বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > ‘জানি আমার লাখ চোখের জলেও তুমি আর আসবে না’, ভাইয়ের স্মৃতিতে ইনস্টায় পোস্ট নিকির!
বর্তমানে দক্ষিণ আফ্রিকার কেপ টাউনে রয়েছেন নিকি। 
বর্তমানে দক্ষিণ আফ্রিকার কেপ টাউনে রয়েছেন নিকি। 

‘জানি আমার লাখ চোখের জলেও তুমি আর আসবে না’, ভাইয়ের স্মৃতিতে ইনস্টায় পোস্ট নিকির!

এর আগেও চেষ্টা করেছেন ট্রোলারদের মুখ বন্ধ করতে। আবারও হয়তো সেই চেষ্টাই করলেন ‘বিগ বস ১৪’-র এই ফাইনালিস্ট। 

‘বিগ বস ১৪’-র ফাইনালিস্ট নিকি তাম্বোলি বর্তমানে কেপ টাউনে রয়েছেন ‘খতরো কে খিলাড়ি ১১’-র শ্যুটে। যবে থেকে তিনি কেপ টাউনের উদ্দেশে রওয়ানা হয়েছেন তবে থেকেই নেটিজেনদের ট্রোলের মুখে পড়তে হয়েছে তাঁকে। আসলে গত সপ্তাহই মারা গিয়েছেন নিকি তাম্বোলির ভাই। যক্ষা ও করোনা সংক্রমণের কারণেই মৃত্যু হয়েছে তাঁর। ভাই মারা যাওয়ার কয়েক ঘণ্টা পরেই নিকির এভাবে দেশ ছেড়ে রিয়েলিটি শো-তে অংশগ্রহণ করতে যাওয়া তাই মেনে নিতে পারেননি কিছু মানুষ। 

কেপ টাউন যাওয়ার আগে এক সাক্ষাৎকারে নিকি জানিয়েছিলেন, শুধুমাত্র কাজের জায়গায় প্রতিশ্রুতিবদ্ধ হওয়ার কারণে তিনি কেপ টাউনে যাচ্ছেন। পাশাপাশি নিকি আরও বলেন, তাঁর ভাই খুব উত্তেজিত ছিল নিকির ‘খতরো কে খিলাড়ি’-তে অংশগ্রহণ করা নিয়ে। ভাইয়ের করোনা ধরা পড়ার আগে নাকি তাঁরা সবসময় এই শো নিয়েই কথা বলতেন। পাশাপাশি নিকি জানান, তিনি যদি আবার কাজে ফেরেন, হাসিখুশি থাকেন, তাহলে তাঁদের বাবা-মাও মনে অনেকটা জোর পাবেন।

সোমবার তাঁর ইনস্টা স্টোরিতে নিকি লিখেছিলেন, ‘ঘুমোতে যাওয়ার আগে রোজ তোমার কথা মনে করে চোখের জল ফেলি।’ তবে তাতেও মন গলেনি ‘হেটার্স’দের। তাই মঙ্গলবার সেই সব মানুষগুলোর জন্যই ইনস্টা স্টোরিতে নিকি করলেন নতুন একটি পোস্ট। লিখলেন, ‘লাখ খানেক শব্দও তোমায় ফেরত নিয়ে আসবে না আমি জানি। কারণ, আমি চেষ্টা করে দেখেছি। না কি, আমার লাখ চোখের জল, আমি জানি, কারণ আমি কেঁদেছি।’

নিকি তাম্বোলির ইনস্টা স্টোরি
নিকি তাম্বোলির ইনস্টা স্টোরি

এর আগে ট্রোলারদের উদ্দেশে নিকি তাঁর ইনস্টাগ্রাম পোস্টে লিখেছিলেন, ‘কিছু লোক আমাকে মেসেজ করে চলেছে আর আমার ছবিতে কমেন্ট করছে যে আমার ভাইয়ের মৃত্যুর পর আমি শোক না করে আনন্দ কেন করছি। তাঁদের বোঝার ক্ষমতা নেই যে, আমারও একটা জীবন আছে, আমারও খুশি থাকার অধিকার আছে। নিজের জন্য না হলেও আমার ভাইয়ের জন্য আমাকে আনন্দে থাকতে হবে, কারণ ও সবসময়ে আমার হাসিমুখ পছন্দ করত। যাঁদের কোনও কাজ নেই, নেগেটিভটি ছড়ানো ছাড়া, তাঁদের কাছে আমার অনুরোধ, নিজেরাও কিছু স্বপ্ন দেখুন আর তা পূরণ করার দিকে মন দিন। তার মাধ্যমে নিজের বাবা-মা ও পরিবারের সকলকে আনন্দ দিতে পারবেন।’

বন্ধ করুন