বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > Nusrat-Srabanti: ‘শ্রাবন্তী বিজেপি, তৃণমূল বা আমার বাড়িতে পার্টি করুক,পাশে আছি’, সাফ কথা নুসরতের
শ্রাবন্তীর দলত্যাগ নিয়ে কথা বললেন নুসরত 
শ্রাবন্তীর দলত্যাগ নিয়ে কথা বললেন নুসরত 

Nusrat-Srabanti: ‘শ্রাবন্তী বিজেপি, তৃণমূল বা আমার বাড়িতে পার্টি করুক,পাশে আছি’, সাফ কথা নুসরতের

  • ‘টলিউডে ট্যালেন্টের ভিত্তিতে কাজ পাওয়া যায়। কেউ কারুর ভাগ্য কেড়ে নিতে পারে না', অভিযোগ ওড়ালেন নুসরত। 

মাত্র আট মাসেই পদ্মশিবিরে মোহভঙ্গ শ্রাবন্তীর। বিধানসভা নির্বাচনের আগে গেরুয়া পতাকা হাতে তুলে নিয়েছিলেন অভিনেত্রী, নির্বাচনী ময়দানেও নেমেছিলেন কিন্তু ২রা মে-র রেজাল্ট বলেছে বেহালাবাসী তাঁদের ঘরের মেয়েকেই প্রত্যাখ্যান করেছে। ৫০ হাজারেরও বেশি ব্যবধানে বেহালা পশ্চিম কেন্দ্র থেকে পরাজিত হন এই টলি নায়িকা। তারপর থেকে রাজনীতির সঙ্গে কোনও প্রত্যক্ষ যোগাযোগ রাখেননি শ্রাবন্তী। ব্যক্তিগত জীবন নিয়ে বিতর্কের কেন্দ্রবিন্দুতে থাকা নায়িকা অবশেষে বৃহস্পতিবার বিজেপির সঙ্গে সব সম্পর্ক ছিন্ন করলেন। 

এদিন টুইট বার্তায় শ্রাবন্তী জানিয়েছিলেন, 'বিজেপির সাথে সমস্ত সম্পর্ক ছিন্ন করছি। এই দলের হয়ে আমি গত রাজ্য নির্বাচনে লড়াই করেছি। (সম্পর্ক ছিন্ন করার) কারণ হল বাংলার স্বার্থকে আরও এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার জন্য তাদের উদ্যোগ এবং আন্তরিকতার অভাব...'। তারপর থেকেই টলিপাড়ায় জোর জল্পনা এবার বোধহয় তৃণমূলে যোগ দেবেন শ্রাবন্তী। বরাবরই মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ঘনিষ্ঠ বলেই পরিচিত ছিলেন শ্রাবন্তী, সেখান থেকে আচমকা পদ্মশিবিরে যোগদান হয়রান করেছিল অনেককেই। শ্রাবন্তী শিবির পালটালেও ব্যক্তিগত সম্পর্ক কিন্তু ছিন্ন হয়নি তৃণমূল নেতা-সাংসদদের সঙ্গে। কখনও তৃণমূল নেতা মদন মিত্রর সঙ্গে ভোটের আবহেই দোলের উত্সবে মেতেছেন শ্রাবন্তী, কখনও আবার তৃণমূল সাংসদ নুসরতের সঙ্গে হাউজ পার্টিতে লেন্সবন্দী হয়েছেন। 

শ্রাবন্তীর দলত্যাগ নিয়ে মুখ খুলেছেন নায়িকার ঘনিষ্ঠ বান্ধবী নুসরত জাহান। বৃহস্পতিবার নিজের আসন্ন রেডিও টক শো ‘ইশক উইথ নুসরত’-এর আনুষ্ঠানিক লঞ্চে হাজির হয়েছিলেন ঈশানের মাম্মা। সেখানেই তাঁকে প্রশ্ন করা হয়েছিল শ্রাবন্তীর বিজেপির সঙ্গে সম্পর্ক ছিন্ন করবার প্রসঙ্গে। সাংবাদিকের প্রশ্ন শুনে হাসি মুখে অভিনেত্রী জানান, ‘শ্রাবন্তী আমার খুব ভাল বন্ধু। ও যা সিদ্ধান্ত নিয়েছে, সেটা ওর ব্যক্তিগত সিদ্ধান্ত। তার জন্য ওকে অনেক অভিনন্দন এবং শুভেচ্ছা। শ্রাবন্তী তৃণমূল করুক, বা বিজেপি, কোনও ক্লাবে গিয়ে পার্টি করুক বা আমার বাড়িতে এসে আমার সঙ্গে পার্টি করুক— ওর পাশে আমি সব সময়ে আছি’। বন্ধুর রাজনৈতিক সিদ্ধান্ত নিয়ে বিশেষ মন্তব্য না করলেও নুসরত কিন্তু স্পষ্ট করলেন টলিউডে কাজ পাওয়ার ক্ষেত্রে রাজনীতির রঙ কোনও ফ্যাক্টর নয়। তিনি জানান, ‘এখানে ট্যালেন্টের ভিত্তিতে কাজ পাওয়া যায়। কেউ কারুর ভাগ্য কেড়ে নিতে পারে না। পলিটিকস জড়িয়ে আমাদের ইন্ডাস্ট্রিতে কারুর কাজ কেড়ে নেওয়া হয় না’। 

বন্ধ করুন