বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > Nusrat Jahan: টু-পিসে শপিং মলে ছুটোছুটি নুসরতের, ‘কখনও বসিরহাটে যান ম্যাডাম’ পরামর্শ নেটপাড়ার
শপিং মল থেকে ভিডিয়ো শেয়ার করে ট্রোলড নুসরত। 

Nusrat Jahan: টু-পিসে শপিং মলে ছুটোছুটি নুসরতের, ‘কখনও বসিরহাটে যান ম্যাডাম’ পরামর্শ নেটপাড়ার

  • নুসরত জাহান সোশ্যাল মিডিয়ায় কোনও ছবি বা ভিডিয়ো শেয়ার করলেই তাঁকে একাংশ মনে করিয়ে দেওয়ার চেষ্টা করে রাজনীতিবিদ-সাংসদ হিসেবে কী কী দায়িত্ব তাঁর রয়েছে। 

নুসরত জাহান ছবি বা ভিডিয়ো পোস্ট করা মানেই তাতে উড়ে এসে জুড়ে বসে কটাক্ষ। কখনও তাঁর পোশাক নিয়ে, তো কখনও বা ব্যক্তিগত জীবন নিয়ে তুলোধনা করার কোনও সুযোগই ছাড়ে না নেটপাড়া। সঙ্গে সাংসদ হিসেবে কতটা নিজের দায়িত্ব পালন করেন নুসরত, তা নিয়েও প্রশ্ন ওঠে হামেশা।

এই যেমন শনিবার শপিং মলে ‘মস্তি মুডে’ ছবি শেয়ার করে নিয়েছিলেন অভিনেত্রী-রাজনীতিবিদ। বেশ খুশির মেজাজে দেখা গেল ‘স্বস্তিক সংকেত’ নায়িকাকে। যেন একপ্রান্ত থেকে অপরপ্রান্তে উড়ে বেড়াচ্ছেন। এই আইসক্রিমের দোকান, তো এই ফুলের তোড়া হাতে ছবির জন্য পোজ। রবিবাসরীয়র আগেই তিনি ছুটির মেজাজে।

তবে এই ছবিতেও জড়ো হল কটাক্ষরা। কেউ লিখলেন, ‘ছেলেকে কখন সময় দাও। নিজেরাই তো ঘুরে বেড়াও।’ আরেকজন লিখলেন, ‘পরের পয়সায় ফুটানি করা একেই বলে।’ সঙ্গে আরেকজন লিখলেন, ‘সাংসদ, এদিকে গত পাঁচ বছরে কতবার বসিরহাট গিয়েছে তা হাতেগুণে বলা যাবে। মুখ দেখিয়ে ভোট জিতে আর সেদিকে পা দেয় না।’

গত বছর অগস্টে মা হন নুসরত। ছেলে ঈশানের ছবি দিয়েছিলেন কালীপুজোয়। এখনই আত্মজকে ক্যামেরার সামনে আনতে চান না মা-বাবা যশ। তবে নিজের সাক্ষৎাকরে তিনি বরাবরই বলেছেন ‘বাড়িতে থাকলে পুরো সময়টাই তাঁর ছেলের। তিনি বা যশ সবসময় চেষ্টা করেন যাতে কেউ না কেউ যশের কাছে থাকতে পারেন।

 

বন্ধ করুন