বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > Nusrat-Yishaan: ঈশানের জন্য উপহার পাঠালেন মিমির সহকারী, ভিডিয়ো শেয়ার করলেন নুসরত
নুসরত জাহান
নুসরত জাহান

Nusrat-Yishaan: ঈশানের জন্য উপহার পাঠালেন মিমির সহকারী, ভিডিয়ো শেয়ার করলেন নুসরত

  • ভালোবাসায় ভাসছে ঈশান, নুসরত-পুত্রের জন্য ঝাঁপি সাজিয়ে এল উপহার।

নুসরত জাহান এখন যাই করেন, তাই সংবাদ শিরোনামে। গত মাসেই সন্তানের জন্ম দিয়েছেন বসিরহাটের তৃণমূল সংসদ। চলতি বছরের শুরু থেকেই নায়িকার ব্যক্তিগত জীবন সংবাদ শিরোনামে। নিখিলের সঙ্গে তাঁর ভাঙা দাম্পত্য, যশ দাশগুপ্তের সঙ্গে সহবাস থেকে মা হওয়ার খবর- সবই থেকেছে চর্চায়। গত সপ্তাহেই প্রকাশ্যে এসেছে নুসরতের সন্তানের পিতৃপরিচয়, সেই নিয়ে নতুন করে হইচই। একদিকে যেমন বিতর্ক গায়ে মাখছেন না নুসরত, তেমনই ইনস্টাগ্রামেও সমানতালে অ্যাক্টিভ তিনি। দুধের ছেলেকে সামলেও সোশ্যাল মিডিয়ায় এক নাগাড়ে পোস্ট দিয়ে চলেছেন। 

মঙ্গলবার দুপুরে ছেলের জন্য আসা কিছু উপহারের ঝলক ফটো শেয়ারিং সাইটে ভাগ করে নিলেন যশ দাশগুপ্তর সঙ্গিনী। ঈশানের জন্য ঝাঁপি ভর্তি উপহার, রয়েছে নানা ধরণের পোশাক, বার্ব ক্লোথ আরও কত কী! নানা রঙের বেশ কয়েকটি গেঞ্জি, ছোট্ট পায়ের জন্য মোজা, সাবান, শ্যাম্পু, বেলুনে ভর্তি সেই ঝাঁপি পাঠিয়েছেন মিমির সহকারী রুদ্রদীপ বন্দ্যোপাধ্যায় এবং তাঁর স্ত্রী ঋত্বিকা খাটুয়া। উপহারের সঙ্গে ছোট্ট ঈশানের জন্য লেখা বিশেষ বার্তা, ‘ছোট্ট সোনাকে এই পৃথিবীতে স্বাগত’।

ঈশানের জন্য আসা উপহার
ঈশানের জন্য আসা উপহার

নুসরতেরও ভীষণ ঘনিষ্ঠ এই দুইজন। নায়িকার একাধিক বিজ্ঞাপনী ক্যাম্পনের দায়িত্ব সামলেছেন রুদ্রদীপ-ঋত্বিকা। নুসরত-নিখিলের বিতর্কিত বিয়ের অংশও হয়েছিলেন তাঁরা। হাজির ছিলেন তুরস্কের বোদরুমে। এর আগে ঈশানের জন্য উপহার পাঠিয়েছিলেন নুসরতের বন্ধু, প্রভা আগারওয়াল। কিন্তু মিমি কবে ‘বোনুয়া’ পুত্রের সঙ্গে সাক্ষাত্ করবে এখন সেই প্রশ্নের উত্তর খুঁজছে ভক্তরা। 

মাতৃত্ব কেমনভাবে পালটে দিয়েছে নুসরতের জীবন? এই প্রশ্নের জবাবে তিনি সম্প্রতি জানিয়েছেন, ‘২৬ শে অগস্টের আগে এবং পরে আমার জীবনের ইতিহাস, ভূগোল সবটাই পালটে গিয়েছে… আমি খুব ভালো একটা সময় কাটাচ্ছি, এটা নতুন একটা জীবন বলতে পারেন’। সোশ্যাল মিডিয়া থেকে দূরেই রেখেছেন ছেলেকে। কবে ঈশানকে দুনিয়ার সামনে আনবেন নুসরত? কবে একরত্তির মুখ দেখার সাধ মিটবে নুসরত ভক্তদের? এই প্রশ্নের উত্তরে চলতি মাসের শুরুতে এক স্যালোঁর উদ্বোধনে পৌঁছে নুসরত জানিয়েছিলেন- ‘একে তো কোভিড, তার উপর আমরা বেশ কিছু রীতিও মেনে চলছি…. কেউই এখন বাড়িতে আসছে না, পরিবার ছাড়া। আমার মনে হয় এই প্রশ্নটা ওর বাবার (যশ দাশগুপ্ত) কাছে রাখা উচিত, এই মুহূর্তে উনি (বাইরের) কাউকেই ছেলের পাশে ঘেঁসতে দিচ্ছে না’।

 

বন্ধ করুন