বাড়ি > বায়োস্কোপ > আজ 'দিল বেচারা দিন', সুশান্তকে খোলা চিঠি লিখলেন তাঁর নায়িকা সঞ্জনা সাংঘি
ম্যানিকে স্মরণ করে নিলেন সঞ্জনা (ছবি-ইনস্টাগ্রাম)
ম্যানিকে স্মরণ করে নিলেন সঞ্জনা (ছবি-ইনস্টাগ্রাম)

আজ 'দিল বেচারা দিন', সুশান্তকে খোলা চিঠি লিখলেন তাঁর নায়িকা সঞ্জনা সাংঘি

  • আমার আর মুকেশের প্রথম ছবি কী করে তোমার শেষ ছবি হতে পারে? প্রশ্ন সঞ্জনা সাংঘির। 

আর মাত্র কয়েকঘন্টা। শুক্রবার সন্ধ্যা সাড়ে সাতটায় মুক্তি পাবে সুশান্ত সিং রাজপুতের শেষ ছবি দিল বেচারা। শেষবার সুশান্তের অভিনয়ের জাদু চাক্ষুস করবার সুযোগ, স্বভাবতই আবেগ আর উত্তেজনায় ভাসছে গোটা দেশ। ভালো লাগা আর মন খারাপের এক অদ্ভূদ দ্বন্দ্ব কাজ করছে সুশান্ত ভক্তদের মনে। ছবি মুক্তির কয়েক ঘন্টা আগে সুশান্তকে স্মরণ করে এক আবেগঘন খোলা চিঠি লিখলেন তাঁর দিল বেচারা কো-স্টার সঞ্জনা সাংঘি। এই ছবির সঙ্গেই লিডিং লেডি হিসাবে বলিউড সফর শুরু করছেন সঞ্জনা। ছবিতে কিজির চরিত্রে রয়েছেন সঞ্জনা, আর ম্যানির ভূমিকায় দেখা মিলবে সুশান্তের।

নায়িকা লেখেন, 'আমার প্রিয় ম্যানি, আমি আশা করছি তুমি উপর থেকে আমাদের দেখছ। আশীর্বাদ করছো এবং আমাদের দিকে তাকিয়ে হাসছো, আমরাও তোমার দিকে তাকিয়ে আছি। আকাশের দিকে তাকিয়ে খুঁজে চলছি তোমাকে। আমার মনের এক কোণে রয়েছে বিস্ময়, অন্যটায় রয়েছে অবিশ্বাস।

যেমনটা মুকেশ ছাবরা একদম সঠিকভাবে বলেছ, আমাদের দুজনের প্রথম ছবি কী করে তোমার শেষ ছবি হতে পারে? জীবন এটা সঠিক বিচার একে বারেই করল না।

তোমাকে অনেক ধন্যবাদ জানা,অজানা পথে আমাদের এই শক্তি আর সাহসের জোগান দেওয়ার জন্য, এই ভীষণ কঠিন পথটা তুমিই পার করতে সাহায্য করলে। আমরা সেই সাহসটা প্রতি মুহূর্তে অনুভব করতে পারি। এটাই একমাত্র আলোর কিরণ,ঘন কালো মেঘের আড়ালে।

অবশেষে দিনটা এল। আজ ‘দিল বেচারা দিন’।

শান্তি,ইতিবাচক মনোভাব এবং স্থিরতা- সকলের জন্য এটাই একমাত্র প্রার্থনা। খুব শীঘ্র দেখা হচ্ছে'।

সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যুর ঠিক ৪০ দিনের মাথায়, আজ সন্ধ্যা সাড়ে সাতটায় ডিজনি প্লাস হটস্টারে মুক্তি পাচ্ছে দিল বেচারা। দিল বেচারা পরিচালনার দায়িত্বে রয়েছেন মুকেশ ছাবরা। পরিচালক হিসাবে এটাই তাঁর প্রথম ছবি। সুশান্ত-সঞ্জনা ছাড়াও এই ছবিতে থাকছেন সাহিল বেদ, স্বস্তিকা মুখোপাধ্যায়, শাশ্বত চট্টোপাধ্যায় ও সইফ আলি খান।

জন গ্রিনের লেখা উপন্যাস ‘দ্য ফল্ট ইন আওয়ার স্টার’ অবলম্বনে তৈরি দিল বেচারা। দিল বেচারায় বলবে ক্যানসার আক্রান্ত কিজি (সঞ্জনা সাংঘি) ও ক্যানসার জয়ী ম্যানির (সুশান্ত) ভালোবাসার গল্প। অল্প বয়সেই মারণরোগ ক্যানসারে আক্রান্ত হয়েছে দুজনেই, তবুও প্রতি মুহূর্তে লড়াই করে বাঁচতে জানে ম্যানি। কিজিকে সে শেখাবে বেঁচে থাকার আসল মানে,ভালোবাসার অর্থ। সুশান্তের জীবনের মতোও এই ছবির গল্পেও হ্যাপি এন্ডিং নেই, তবুও এক অদ্ভূত ভালোলাগা আছে।

বন্ধ করুন