প্রাক্তন বান্ধবী আকাঙ্ক্ষা পুরীকে হোয়াটসঅ্যাপে ব্লক করলেন পরশ ছাবড়া! (ছবি-ইন্সটাগ্রাম)
প্রাক্তন বান্ধবী আকাঙ্ক্ষা পুরীকে হোয়াটসঅ্যাপে ব্লক করলেন পরশ ছাবড়া! (ছবি-ইন্সটাগ্রাম)

প্রাক্তন বান্ধবী আকাঙ্ক্ষা পুরীকে হোয়াটসঅ্যাপে ব্লক করলেন পরশ ছাবড়া!

  • পরশ-আকাঙ্ক্ষার সম্পর্কে এখন এতটাই তিক্ত যে হোয়াটস্যাপে আকাঙ্ক্ষাকে ব্লক করে দিয়েছেন পরশ! সম্প্রতি এমনই চাঞ্চল্যকর তথ্য দিয়েছেন পরশ নিজে। পাশাপাশি অভিনেতার ইন্সটাগ্রাম প্রোফাইল থেকেও গায়েব আকাঙ্ক্ষায় সব ছবি।

বিগ বসের ঘরে অভিনেতা পরশ ছাবড়া ও তাঁর বান্ধবী আকাঙ্ক্ষা পুরির সম্পর্ক নিয়ে কম কাটাছেঁড়া হয়নি। বিগ বসের ঘর ছাড়ার আগেই পরশ স্পষ্ট করে দিয়েছিলেন কোনওভাবেই নিজেদের প্রেম সম্পর্ককে এগিয়ে নিয়ে যেতে চাননা তিনি। ব্রেক-আপ নিশ্চিত করেছিলেন অভিনেত্রী আকাঙ্ক্ষাও। একসময় টেলিউডের অন্যতম চর্চিত প্রেমিক যুগলের সম্পর্ক এখন এতটাই তিক্ত যে হোয়াটস্যাপে আকাঙ্ক্ষাকে ব্লক করে দিয়েছেন পরশ! সম্প্রতি এমনই চাঞ্চল্যকর তথ্য দিয়েছেন পরশ নিজে। আপতত কার্লাস চ্যানেলেই বিবাহ বিষয়ক একটি রিয়ালিটি শোতে অংশ নিচ্ছেন পরশ। মুঝসে শাদি করোগি অনুষ্ঠানে পরশ ছাড়াও রয়েছেন অপর বিগ বস প্রতিযোগী শেহনাজ গিল। দুজনেই তাঁদের জীবনসঙ্গী খুঁজছেন এই অনুষ্ঠানে।



টেলিচক্করকে দেওয়া এক সাক্ষাত্কারে পরশ জানিয়েছেন, 'আপনারা বিশ্বাস করবেন না কিন্তু আমি হোয়াটস্যাপে প্রায় ৫০০ জন অজানা ব্যক্তিদের ব্লক করেছি। দুর্ভাগ্যবশত সেই তালিকায় আরও একজন আছে-যার নাম আকাঙ্ক্ষা'।

অভিনেতা আরও বলেন, ' আমি সবাইকে বলতে চাই আমার জীবনে আকাঙ্ক্ষা নামের অধ্যায়টা শেষ হয়ে গিয়েছে। আমি বিগ বস ফিনালে শেষ হওয়ার পরেও ওর সঙ্গে দেখা করিনি। আমি বেশ কিছু ভিডিয়ো দেখেছি যেখানে আমার সম্পর্কে ও মিথ্যা কথা বলেছে। আমি সেগুলো নিয়ে নতুন করে কিছু বলতে চাই না। কারুর মন ভেঙে গেলে মেক আপ করে মিডিয়ার সামনে সাক্ষাত্কার দেয় না! আমি বিগ বসে যাওয়ার আগে ওর সঙ্গে ব্রেক-আপ করিনি কারণ তাহলে সবাই ভাবত আমি একটা বড় শো পেয়েছি বলে আমার পুরোনো সম্পর্ক ভেঙে দিচ্ছি। আমি কোনদিন ওর সম্পর্কে খারাপ কথা বলিনি-কিন্তু যেদিন সলমন স্যার উইকএন্ড কা ওয়ারে আমার সামনে বেশকিছু জিনিস পরিস্কার করে দেন'।

বিগ বসের ঘরে অপর প্রতিযোগী মাহিরা শর্মার সঙ্গে পরশের ঘনিষ্ঠ বন্ধুত্বও সংবাদ শিরোনামে থেকেছে। শো শেষ হলেও পরশ-মাহিরার সম্পর্কে এতটুকুও বদল আসেনি। পরশন জানান, নিজের মা এবং ম্যানেজার ছাড়া মাহিরাই তৃতীয় ব্যক্তি যাঁর নম্বর মুঠোফোনের স্পিড ডায়ালের সেভ করে রেখেছেন তিনি।

বিগ বস সিজন ১৩-এই রিয়ালিটি শোয়ের ইতিহাসের সবচেয়ে চর্চিত এডিশন। সাড়ে চার মাস ধরে চলা এই শোয়ের ছ জন ফাইনালিস্টের একজন পরশ ছাবড়া। ১৫ ফেব্রুয়ারি গ্র্যান্ড ফিনালের দিন, বিগ বসের তরফে শর্ত রাখা হয় ১০ লক্ষ টাকা নিয়ে যে কেউ নিজের মর্জিতে ঘর ছাড়তে পারে। সেই অফার সইচ্ছায় গ্রহণ করে নেন পরশ। সিদ্ধার্থ শুক্লা বিগ বস ১৩-র বিজয়ী নির্বাচিত হওয়া নিয়েও কম বিতর্ক হয়নি। তবে পরশ মনে করেন সিদ্ধার্থই সবচেয়ে যোগ্য। পরশ জানান, ‘আমার মনে হয় সিদ্ধার্থ শুক্লাই বিগ বস ১৩ জেতার সবচেয়ে যোগ্য। গোটা শো জুড়ে নিজের নানান আবেগ সিদ্ধার্থ তুলে ধরেছে। তবে সিদ্ধার্থ না জিতলে আমার জেতা উচিত ছিল’।



বন্ধ করুন