বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > বসের মেয়ের সঙ্গে প্রেম! কীভাবে বিয়ের প্রস্তাব দিয়েছিলেন পরেশ রাওয়াল?
স্ত্রী স্বরূপ সম্পতের সঙ্গে পরেশ রাওয়াল। (ছবি সৌজন্যে - হিন্দুস্তান টাইমস)

বসের মেয়ের সঙ্গে প্রেম! কীভাবে বিয়ের প্রস্তাব দিয়েছিলেন পরেশ রাওয়াল?

  • সম্প্রতি এক সাক্ষাৎকারে বিয়ের আগে নিজের স্ত্রী তথা প্রাক্তন অভিনেত্রী স্বরূপ সম্পতের সঙ্গে চুটিয়ে প্রেম কাহিনির কথা জানালেন পরেশ রাওয়াল।

সাধারণত নিজের ব্যক্তিগত জীবন লাইমলাইটে বাইরেই রাখেন পরেশ রাওয়াল। তবে সম্প্রতি এক সাক্ষাৎকারে বিয়ের আগে নিজের স্ত্রী তথা প্রাক্তন অভিনেত্রী স্বরূপ সম্পতের সঙ্গে চুটিয়ে প্রেম কাহিনির কথা জানালেন এই বর্ষীয়ান অভিনেতা। সঙ্গে অকপটে এও জানিয়েছেন প্রেমের প্রস্তাব দেওয়ার সময় স্বরূপকে ঠিক কী কথা তিনি বলেছিলেন। 'বাবু রাও'-এর কথা থেকেই জানা গেল প্রথম দেখাতেই স্বরূপকে তাঁর ভালো লেগে গেছিল। এতটাই যে তিনি মনে মনে ঠিক করে নিয়েছিলেন বিয়ে করলে এই নারীকেই তিনি ছাদনাতলায় বসবেন। মনের সেকথা বলেছিলেন প্রিয় বন্ধুকে। যেমন কথা তেমন কাজ। প্রায় ১২ বছর চুটিয়ে প্রেম করার পর ১৯৮৭ সালে সাত পাকে বাঁধা পড়েছিলেন স্বরূপ-পরেশ। উল্লেখ্য, ১৯৭৯ সালে 'মিস ইন্ডিয়া'-র মুকুটও শোভা পেয়েছিল স্বরূপের মাথায়।

বলিউড বাবল-কে দেওয়া ওই সাক্ষাৎকারে পরেশ বলেন, ' স্বরূপকে প্রথমবার দেখার প্রিয় মনে মনে ঠিক করে নিয়েছিলাম বিয়ে করলে ওঁকেই করব। বন্ধু মহেশ জোশীকে সেকথা বলামাত্রই বেচারা চমকে উঠেছিল। অবাক হয়ে আমাকে জবাব দিয়েছিল, 'তুই যে সংস্থায় চাকরি করিস সেখানকার মালিকের মেয়ে স্বরূপ'। শুনে জোর গলায় বলেছিলাম আরে ও যাঁরই মেয়ে হোক, বোন হোক, মা হোক বিয়ে তো আমি ওঁকেই করব!'

সামান্য থেমে বর্ষীয়ান বলি-অভিনেতার সংযোজন, 'এরপর স্বরূপের সঙ্গে পরিচয় হওয়ার মাস দুই তিনেক পর সরাসরি ওঁকে বিয়ের প্রস্তাব দিয়ে ফেলেছিলাম। কোনও ভণিতা না করে বলে দিয়েছিলাম ও যেন আমাকে ভুলেও 'আগে পরস্পরকে ভালো করে চিনব', 'দু'জন্যে আরও একটু বেশি সময় কাটাই' এ ধরণের বহু ব্যবহৃত ছেঁদো কথাবার্তা না বলে। কারণ গোটা এক জন্ম একসঙ্গে কাটিয়ে ফেলেও মানুষ পরস্পরকে সম্পূর্ণ বুঝে উঠতে পারে না , চিনে উঠতে পারে না। তাই আমাকে যেন সম্পূর্ণ কথা দেয়'। কথা শেষে হেসে পরেশ জানালেন দীর্ঘ ১২ বছর টানা প্রেম করার পর ১৯৮৭ সালে স্বরূপের সঙ্গে বিয়ে হয় তাঁর। উল্লেখ্য, বর্তমানে এই জুটির দুই সন্তান- আদিত্য এবং অনিরুদ্ধ।

বন্ধ করুন