বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > 'যেতে নাহি দিব, তবু যেতে দিতে হয়', পার্থ ঘোষের প্রয়াণে শোকস্তব্ধ ব্রততী
আবৃত্তি জগতে নক্ষত্র পতন, প্রয়াত বাচিকশিল্পী পার্থ ঘোষ
আবৃত্তি জগতে নক্ষত্র পতন, প্রয়াত বাচিকশিল্পী পার্থ ঘোষ

'যেতে নাহি দিব, তবু যেতে দিতে হয়', পার্থ ঘোষের প্রয়াণে শোকস্তব্ধ ব্রততী

  • ‘যুগাবসান', বাচিকশিল্পী পার্থ ঘোষের প্রয়াণে শোক প্রকাশ করেছেন আবৃত্তিশিল্পী ব্রততী বন্দ্যোপাধ্যায়।

আবৃত্তি জগতের নক্ষত্র পতন। প্রয়াত বাচিক শিল্পী পার্থ ঘোষ। শনিবার সকালে হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে প্রয়াত হন তিনি। বয়স হয়েছিল ৮৩ বছর। সকাল ৭টা ৩৫ মিনিটে শেষ নিশ্বাস ত্যাগ করেন বাচিকশিল্পী। নিমতলা শ্মশানে শেষকৃত্য।

পরিবার সূত্রে খবর, অসুস্থতার কারণে দিন কয়েক আগে হাওড়ার এক বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি ছিলেন তিনি। গলায় অস্ত্রোপচার হয়েছিল। এরপর প্রবীণ বাচিকশিল্পীর শারীরির পরিস্থিতি অনেকটা স্থিতিশীল ছিল। আচমকা হৃদরোগে আক্রান্ত হন। এরপরই তড়িঘড়ি তাঁকে হাসপাতালে নিয়ে আইসিইউতে রাখা হয়েছিল। শনিবার ভোরে না ফেরার দেশে পাড়ি দেন তিনি। আরও পড়ুন: আবৃত্তি জগতে নক্ষত্র পতন, প্রয়াত বাচিকশিল্পী পার্থ ঘোষ

পার্থ ঘোষের মৃত্যুতে শোকের ছায়া নেমে এসেছে শিল্পমহলে। শোক প্রকাশ করেছেন প্রখ্যাত আবৃত্তিশিল্পী ব্রততী বন্দ্যোপাধ্যায়। সামাজিক মাধ্যমে পার্থ ঘোষের সঙ্গে একটি ছবি দিয়ে তিনি লিখেছেন, ‘যুগাবসান। অন্য লোকে, অন্য কোনোখানে, পার্থ-দাও... ‘যেতে নাহি দিব’ আমরা বলি, তবু যেতে দিতে হয়।' বাচিক শিল্পী পার্থ ঘোষ পুত্র অয়ন ঘোষকেও ট্যাগ করেছেন তিনি। 

গত বছরের ২৬ অগস্ট মৃত্যু হয় পার্থ ঘোষের স্ত্রী তথা বিখ্যাত বাচিকশিল্পী গৌরী ঘোষের। শনিবার চলে গেলেন পার্থ। রেডিয়োয় উপস্থাপক হিসেবে পেশাজীবনের শুরু হয় এই আবৃত্তিকার দম্পতির। আকাশবাণী কলকাতার সঙ্গেও তাঁরা যুক্ত ছিলেন দীর্ঘ দিন। তাঁর প্রয়াণে শোকস্তব্ধ পরিবার-পরিজনেরা।

বন্ধ করুন