বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > Prosenjit -Rana: ‘এত ডেকেও হলে খোকা-খুুকু এল না’, প্রসেনজিতের 'আয় খুকু আয়'কে তীব্র কটাক্ষ রাণার
আয় খুকু আয় নিয়ে প্রসেনজিৎ-কে কটাক্ষ রাণার

Prosenjit -Rana: ‘এত ডেকেও হলে খোকা-খুুকু এল না’, প্রসেনজিতের 'আয় খুকু আয়'কে তীব্র কটাক্ষ রাণার

  • প্রসেনজিৎ-জিৎ'কে ফের নিশানা রাণা সরকারের। আয় খুকু আয় দেখতে হলমুখী হচ্ছে না দর্শক, ছবি সুপারফ্লপ- দাবি রাণা সরকারের। 

বাংলা ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রির অন্যতম ঠোঁটকাটা ব্যক্তিত্ব রাণা সরকার। গত কয়েকমাস ধরেই এই প্রযোজকের নিশানায় ‘বাংলা ছবির পাশে দাঁড়ান’ বুলি আওড়ানো টলি তারকা। কেন ছবির বক্স অফিস কালেকশন রিপোর্ট পেশ করা হবে না? সেই নিয়ে বারবার প্রশ্ন তুলেছেন এই প্রযোজক। ‘অপরাজিত’, ‘বেলাশুরু’-র মতো ছবির রিপোর্ট কার্ডও পেশ করেছেন তিনি, অবশ্যই প্রযোজনা সংস্থার সহায়তায়। এবার রাণার নিশানায় ইন্ডাস্ট্রি প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায়।

‘আমিই ইন্ডাস্ট্রি, এই ফর্মুলা এখন আর কাজ করছে না’,স্পষ্ট জানালেন প্রযোজক রানা সরকার। গত শুক্রবার মুক্তি পেয়েছে প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায় এবং দিতিপ্রিয়া রায় অভিনীত ছবি ‘আয় খুকু আয়’। ছবি প্রযোজনায় টলিউডের অপর সুপারস্টার অভিনেতা জিৎ। ছবি মুক্তির তিন দিনের মাথায় ফেসবুকে রাণা সরকাল লিখলেন ‘খুকু এল না’। এখানেই থেমে থাকেননি তিনি সংযোজন, 'এতো করে ডাকলো তবু খোকা খুকুরা হলে এলো না; এতবার বললো পাশে দাঁড়ান পাশে দাঁড়ান তবু টিকিট কাউন্টারের সামনে কেউ দাঁড়ালো না...দুজন সুপারস্টারের উদ্যোগ, একজন ষ্টার নায়ক অন্য একজন প্রযোজক, একজন বিনিয়োগ করলেন লাভের আশা নিয়ে, অন্যজন মাথার চুল পর্যন্ত্য জলাঞ্জলি দিয়ে সর্বস্ব ত্যাগ করে বাংলা সিনেমা কি একা টেনে নিয়ে যাওয়ার শেষ চেষ্টা করলেন, তবুও খোকা খুকুরা হলে এলো না'।

ফেসবুক পোস্টের কোথাউ প্রসেনজিৎ-এর নাম লিখলেও তাঁর নিশানায় যে বুম্বাদা তা বুঝতে অসুবিধা হবে না। এই স্টেটাস নিয়ে এক সংবাদমাধ্যমে রাণা সরকার বলেন, ‘ছবিটা সুপার ফ্লপ। যাঁদের আমরা ‘সুপারস্টার’ বলে মাথায় তুলে রাখি, অধিকাংশ ক্ষেত্রেই তাঁদের ছবি কাজ করে না।’

বিস্ফোরক পোস্ট রাণা সরকারের
বিস্ফোরক পোস্ট রাণা সরকারের

জিৎ-প্রসেনজিৎ-এর ছবি চলছে না বক্স অফিসে স্পষ্ট জানান রাণা। সুপারস্টারদের উচিত নিজেদের পারিশ্রমিক কমানো, সঙ্গে নতুনদের সুযোগ করে দেওয়া। ‘আমিই নায়ক, আমিই ইন্ডাস্ট্রি — এই ফর্মুলা আর কাজ করছে না' টলিউডে দাবি প্রযোজকের।

ফেসবুকে রাণা সরকার আরও লেখেন, 'এখনো সময় আছে, আজ ও নেক্সট তিনদিন সব হল ভর্তি করে ওনার সিনেমাটিকে 'সুপারফ্লপ' তকমা থেকে বাঁচান...না হলে আমার কথা মিলে যাবে, সৃজিত, শিবু-নন্দিতা আর অতনু ঘোষের নির্দেশনার ছবি ছাড়া 'ইন্ডাস্ট্রি'র ছবি দেখতে বাঙালি আর ইন্টারেস্টেড না...'। 

সৌভিক কুণ্ডু পরিচালিত ‘আয় খুকু আয়’ তৈরি হয়েছে বাবা-মেয়ের সম্পর্কের প্রেক্ষাপটে। ছবিতে প্রসেনজিৎ ছাড়াও রয়েছেন দিতিপ্রিয়া রায়। এই ছবির বক্স অফিস কালেকশন এখনও জানা যায়নি। রাণা সরকারের কটাক্ষের জবাব দেবেন প্রসেনজিৎ? সেটাই এখন প্রশ্ন। 

বন্ধ করুন