বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > Vaibhavi Upadhyaya: সিটবেল্ট না পরাই কাল! অক্ষত হবু স্বামী, মৃত্যু বৈভবীর, শেষ পোস্টে কীসের উল্লেখ?

Vaibhavi Upadhyaya: সিটবেল্ট না পরাই কাল! অক্ষত হবু স্বামী, মৃত্যু বৈভবীর, শেষ পোস্টে কীসের উল্লেখ?

অকালেই প্রাণ হারালেন বৈভবী 

Vaibhavi Upadhyaya: খাদের কিনারায় দাঁড়িয়ে থাকা গাড়িতে হালকা ধাক্কা লাগতেই উলটে যায় গাড়ি। সিট বেল্ট না পরে থাকা বৈভবী ছিটকে পড়েন, মাথায় চোট লাগে তাঁর। ঘটনাস্থলেই সব শেষ। 

বুধবার সাত সকালে অভিনেত্রী বৈভবী উপাধ্যায়ের মৃত্যুর খবরে তোলপাড় হিন্দি টেলিভিশন জগত! গত ২২শে মে (সোমবার) হিমাচল প্রদেশে ভয়ঙ্কর সড়ক দুর্ঘটনায় মৃত্যু হয় ‘সারাভাই ভার্সেস সারাভাই’-এর জেসমিনের। হবু স্বামীর সঙ্গে ১৫ দিনের ছুটিতে হিমাচল প্রদেশে গিয়েছিলেন বৈভবী। সপ্তাহখানেক আগেই দুজনে বাগদান সেরেছিলেন, ডিসেম্বরে বিয়ের তারিখ পাকা ছিল। কিন্তু কে জানত বিয়ের আগের এই ঘুরতে যাওয়াই কাল হবে বৈভবীর জীবনে!

নিয়তির এমনই পরিহাস যে এই সড়ক দুর্ঘটনায় কার্যত অক্ষত বৈভবীর হবু স্বামী, চালকের আসনে ছিলেন তিনি। পাশের সিটে বসেছিলেন অভিনেত্রী। কিন্তু দুর্ভাগ্যের বিষয় সিটবেল্ট পরে ছিলেন না বৈভবী। এই ছোট্ট ভুলের জন্যই অকালে প্রাণ হারালেন ৩৩ বছর বয়সী অভিনেত্রী।

কীভাবে ঘটল এই দুর্ঘটনা? তা বিস্তারিত জানিয়েছেন বৈভবীর ‘ফ্রেন্ড, ফিলোজাফার, গাইড’ জেডি মাজেথিয়া। ‘সারাভাই ভার্সেস সারাভাই’-এর প্রযোজক জানান, হিমাচলের পাহাড়ি বাঁকে ঘটে এই ভয়াবহ দুর্ঘটনা। সামনে থেকে আসা একটি ট্রাককে পাস দিতে খাদের একদম কিনারায় দাঁড়িয়ে ছিল বৈভবীর গাড়িটি। চালকের আসনে ছিলেন তাঁর হবু স্বামী। ট্রাকটি বাঁক নেওয়ার সময় বৈভবীদের গাড়িতে হালকা ধাক্কা লাগে। কিন্তু সেই ধাক্কা সামলাতে না পেরে গাড়িটি খাদে উলটে যায়। সেইদিকেই ছিলেন বৈভবী। দুর্ভাগ্যবশত সিট বেল্ট লাগানো ছিল না অভিনেত্রীর। ছিটকে পড়ে যান বৈভবী, মাথায় গুরুতর চোট পান তিনি, রক্তক্ষরণের সঙ্গে সঙ্গেই কার্ডিয়াক অ্যারেস্ট হয় তাঁর। স্থানীয়রা যখন তাঁকে উদ্ধার করে ততক্ষণে সব শেষ। প্রয়াত অভিনেত্রীর হবু স্বামীর হাতে সামান্য চোট লেগেছে।

গত ৬ই মে ইনস্টাগ্রামে শেষবার পোস্ট করেন বৈভবী। ২০১৯ সালের হিমাচল ট্রিপের ঝলক সেই পোস্টে তুলে ধরেন অভিনেত্রী। বৈভবী লেখেন এই পৃথিবীতে তাঁর সবচেয়ে পছন্দের শব্দ হল গাছের পাতা নড়ার শব্দ। শহরেই কেটেছে তাঁর মেয়েবেলা, তবে গরমের ছুটিতে মায়ের গ্রামের বাড়িতে ছুটে যেতেন বারবার। প্রকৃতির শব্দ, মুক্ত বাতাস, জটহীন জীবনযাত্রা, স্ট্রেস মুক্ত জীবনের স্বাদই আলাদা। এরপর অভিনেত্রীর সংযোজন ছিল, ‘আমি অভিনন্দন জানাতে সকলকে যাদের মধ্যে নিঁখুত সংবেদনশীলতা রয়েছে এবং যাঁরা আমার মতো সুস্বাস্থ্যের অধিকারী। এটা আমাদের স্মরণ করিয়ে দেয় যাতে আমাদের জীবনের সবচেয়ে জরুরি উপহারটার প্রতি আমরা কৃতজ্ঞ হই, সেটা হল আমাদের স্বাস্থ্য। আমি এটা জানি, অনুভব করি, মনে চলি এবং উদযাপন করি'। 

বৈভবীর এই অকাল মৃত্যুতে শোকস্তব্ধ বিনোদন জগত। ‘সারাভাই ভার্সেস সারাভাই’-এর পাশাপাশি ‘সিম্পলি স্বপ্নে’, ‘ক্যায়া কসুর হ্যায় আমলাকা’-র মতো সিরিয়ালেও অভিনয় করেছেন বৈভবী। দীপিকা পাড়ুকোন অভিনীত ‘ছপাক’ ছবিতে গুরুত্বপূর্ণ চরিত্রে কাজ করেছিলেন তিনি। 

বন্ধ করুন