বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > সুশান্তের সঙ্গে 'দিল বেচারা'র পর নতুন ছবি বাছাই করাটা জরুরি এবং কঠিন ছিল: সঞ্জনা
সঞ্জনা সাংঘি

সুশান্তের সঙ্গে 'দিল বেচারা'র পর নতুন ছবি বাছাই করাটা জরুরি এবং কঠিন ছিল: সঞ্জনা

  • ২০২০ সালে ‘দিল বেচারা’ ছবি দিয়ে বলিউডে ডেবিউ করেন সঞ্জনা। শীঘ্রই অভিনেত্রীকে ‘ওম: দ্য ব্যাটেল উইদইন’ সিনেমায় দেখা যাবে। 

অভিনেত্রী সঞ্জনা সাংঘি। ২০২০ সালে বলিউডে ডেবিউ করেন তিনি। প্রয়াত অভিনেতা সুশান্ত সিং রাজপুতের বিপরীতে ‘দিল বেচেরা’ ছবি দিয়ে বলিউডে পথচলা শুরু তাঁর। জন গ্রীনের বেস্টসেলিং উপন্যাস ‘ফল্ট ইন আওয়ার স্টারস’ থেকে অনুপ্রাণিত এই সিনেমা। প্রয়াত অভিনেতা সুশান্ত সিং রাজপুত ম্যানির চরিত্রে অভিনয় করেছিলেন। সঞ্জনার চরিত্রের নাম ছিল কিজি। দু'জনই ক্যানসার রোগী ছিলেন। 

মুকেশ ছাবড়া-পরিচালিত দিল বেচারার আগে, সঞ্জনা ‘রকস্টার’, ‘হিন্দি মিডিয়াম’ এবং 'ফুকরে রিটার্নস'-এর মতো ছবিতে পার্শ্ব চরিত্রে অভিনয় করেছিলেন। সদ্য পিটিআইকে দেওয়া এর সাক্ষাৎকার সঞ্জনা জানিয়েছেন, ‘দিল বেচারার’ পর কী করব, সেই সিদ্ধান্ত নেওয়া খুবই গুরুত্বপূর্ণ এবং কঠিন ছিল। আমি অনেক স্ক্রিপ্ট দেখেছি, অনেক বর্ণনা নিয়েছি এবং অনেক অডিশন দিয়েছি। যতক্ষণ আমার ঠিক মনে না হয়নি, আমি কোনও কিছুইতেই ঝাঁপিয়ে পড়তে চাইনি'।

অনেকটা চিন্তাভাবনা করে অভিনেত্রী জানিয়েছেন, অ্যাকশন-থ্রিলার ফিল্ম ‘ওম: দ্য ব্যাটল উইদইন’ তাঁর আসন্ন প্রোজেক্ট। কারণ এটায় নতুন কিছু করার সুযোগ পেয়েছেন তিনি। কোরিওগ্রাফার-পরিচালক আহমেদ খান প্রযোজিত, এই ছবিতে মুখ্য চরিত্রে অভিনয় করেছেন আদিত্য রায় কাপুর।

সঞ্জনায়র কথায়, ‘আমার মনে হয়েছে, 'দিল বেচারা'এর পর এটাই সঠিক ছবি। স্বর্গে তৈরি হওয়া একটা ম্যাচের মতো ওম। আহমেদ স্যার এবং কপিল ভার্মা, আমার পরিচালক, আমাকে অ্যাকশন গার্ল হিসেবে দেখেছেন। চরিত্রে আমি শক্তিশালী এবং উত্সাহী। ‘দিল বেচারা’য় আমার চরিত্র অত্যন্ত আবেগপূর্ণ ছিল। আমার প্রতি আস্থা রেখেছিলেন তাঁরা'। 

প্রসঙ্গত, খুব শীঘ্রই দর্শকদের সামনে সঞ্জনা আসতে চলেছেন তাঁর দ্বিতীয় ছবি ‘ওম: দ্য ব্যাটেল উইদিন’ দিয়ে। যেখানে তাঁকে দেখা যাবে আদিত্য রয় কাপুরের বিপরীতে। সঞ্জনার চরিত্রের নাম কাব্যা। ছবি পরিচালনার দায়িত্বে রয়েছেন কপিল ভার্মা। যৌথভাবে প্রযোজনা করেছেন জি স্টুডিও, আহমেদ খান এবং শায়রা খান।

আসন্ন সিনেমা সম্পর্কে বলতে গিয়ে সঞ্জনা জানিয়েছেন, ‘আমি আমার সমস্ত স্টান্ট এবং সিকোয়েন্স নিজেই করেছি। একজন শিল্পী হিসেবে নিজেকে অবাক করা গুরুত্বপূর্ণ, তবেই আপনার ভক্তরা অবাক হতে পারেন। আমি মনে করি কাব্যা অভিনয় করে নিজেকে অবাক করেছে। কারণ আমি নিজেকে কখনই তার মতো দেখিনি’।

 

 

বন্ধ করুন