বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > The Empire: ‘তাহলে তো ইতিহাসটাই বদলে দিতে হবে’,বিতর্ক নিয়ে অকপট ‘হুমায়ুন’ আদিত্য
আদিত্য শীল
আদিত্য শীল

The Empire: ‘তাহলে তো ইতিহাসটাই বদলে দিতে হবে’,বিতর্ক নিয়ে অকপট ‘হুমায়ুন’ আদিত্য

  • ‘যদি কারুর সমস্যা হয় তাহলে তো তাঁকে পিছোনে ফিরে গিয়ে ইতিহাসটা বদলে আসতে হবে’, বিস্ফোরক আদিত্য। 

বিতর্ক কিছুতেই থামছে না ‘ডিজনি প্লাস হটস্টার’-এর নতুন অরিজিন্যাল সিরিজ ‘দ্য এম্পায়ার’ নিয়ে। এই সিরিজের বিরুদ্ধে অনেকেই ইতিহাস বিকৃতির অভিযোগ তুলেছেন। সিরিজ মুক্তির ঠিক আগেই কবীর খানের মন্তব্য ঘিরে হইচই শুরু হয়েছিল। ‘বজরঙ্গি ভাইজান’ পরিচালক দাবি করেছিলেন বলিউডে মুসলিম শাসকদের দানব হিসাবে তুলে ধরবার প্রবণতা রয়েছে, যদিও সেটা প্রকৃত ইতিহাস নয়। 

‘দ্য এম্পায়ার’ সিরিজে মুঘল সম্রাট হুমায়ুনের চরিত্রে অভিনয় করেছেন আদিত্য শীল। ‘তুম বিন ২’ ছবির মিষ্টি হিরোকে একদম অচেনা অবতারে পাওয়া গেছে এই সিরিজে। তাঁর কথায়, ‘হয়ত নিখিল আডবানি এবং ওঁনার টিম আমার মধ্যে কিছু দেখেছিলেন, না হলে আমি তো নিজেকে হুমায়ুন হিসাবে ভাবতেই পারি না’। 

অ্যালেক্স রুথফোর্ডের লেখা উপন্যাসের উপর ভিত্তি করে তৈরি এই সিরিজ। কেমনভাবে বাবরের নেতৃত্বে ভারতে মুঘল সম্রাজ্যের সূচনা হয়, কীভাবে পানিপথের প্রথম যুদ্ধে ইব্রাহিম লোদীকে পরাজিত করে মুঘলরা কাবুল থেকে ভারতে নিজেদের সাম্রাজ্য বিস্তার করে তা ফুটে উঠেছে। মূলত কুণাল কাপুর অভিনীত বাবর চরিত্রই এই সিরিজের কেন্দ্রবিন্দুতে। সিরিজের দ্বিতীয়ার্ধে বাবর-পুত্র হিসাবে আর্বিভাব আদিত্যর। 

সিরিজ মুক্তির আগে আদিত্যকে নিয়ে একেবারেই চর্চা হয়নি, সেই প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘এটা একদিক থেকে ভালো, আমার চরিত্রটা সিরিজ মুক্তির পর উন্মোচিত হয়েছে। সেটা আমার সঙ্গে স্টুডেন্ট অফ ইয়ার টু-তেও ঘটেছে। পরে আমি প্রশংসা কুড়িয়েছি। সেটা এক দিক থেকে ভালো, আন্ডারডগ হয়ে ম্যাচ জেতার মতো’। 

মিতাক্ষর কুমার পরিচালিত এই সিরিজের বিরাট স্কেল,কস্টিউম, প্রোডাকশন প্রশংসিত হয়েছে। এমন ম্যাগনাম ওপাসের অংশ হতে পেয়ে উচ্ছ্বসিত বলিপাড়ার এই তরুণ তুর্কী। তবে শ্যুটিংয়ের সময়ও এই সিরিজের বিরাট মাত্রা সম্পর্কে বিশেষ ধারণা ছিল না আদিত্যর। কারণ খুব কম অংশ জুড়েই রয়েছেন তিনি। তবে চরিত্রের স্ক্রিন টাইম নিয়ে কোনওদিনই মাথা ঘামান না আদিত্য, বরং ভালো কনটেন্টের অংশ হতে চান। 

কখনও কী এই সিরিজের অংশ হওয়ার আগে ভয় পেয়েছিলেন আদিত্য, কারণ ইতিহাস নিয়ে তৈরি সিরিজ মানেই সেটা নিয়ে প্রবল কাঁটাছেড়া চলবে সোশ্যাল মিডিয়ায়। অভিনেতা ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেসকে দেওয়া সাক্ষাত্কারে জানিয়েছেন, ‘আমি ইতিহাসের সঙ্গে যতটা পেরেছি একাত্ম হওয়ার চেষ্টা করেছি। এটা পর্দার জন্য তৈরি, বিনোদনমূলক কাজ। সেখানে একটা সিনেমাটিক লিবার্টির ব্যাপার এসেই যায়। হ্যাঁ, এটা ঠিক যে আপনি সব মানুষকে সন্তুষ্ট করতে পারবেন না। তবে কোনও নির্দিষ্ট শ্রেনি বা জাতির মানুষকে খাটো করা যাতে না হয়, সেটা মাথায় রাখতে হবে। আমরা হানাদারদের গৌরবান্বিত করেছি এমনটা বলা হতে পারে, কিন্তু যদি কারুর সমস্যা হয় তাহলে তো তাঁকে পিছোনে ফিরে গিয়ে ইতিহাসটা বদলে আসতে হবে। বর্ডার ছবিটাও যুদ্ধ নিয়ে তৈরি, কিন্তু তার মানে এই নয় ওই ছবিতে যুদ্ধকে গৌরবান্বিত করা হয়েছে’। 

বন্ধ করুন