বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > পল্লবী-সাগ্নিকের ফ্ল্যাট থেকে পুলিশ পেল গাঁজা, হুক্কা! কাকে করা হয়েছিল শেষ ফোন?
পল্লবীর ফ্ল্যাট থেকে উদ্ধার হল নেশার জিনিস। 

পল্লবী-সাগ্নিকের ফ্ল্যাট থেকে পুলিশ পেল গাঁজা, হুক্কা! কাকে করা হয়েছিল শেষ ফোন?

  • পুলিশ সূত্রে ফের উঠে এল চাঞ্চল্যকর তথ্য। নেশার জিনিস মিলল পল্লবীর ফ্ল্যাট থেকে। প্রশ্ন উঠছে, কার এগুলো? অভিনেত্রীর না তাঁর প্রেমিকার?

যত সময় গড়াচ্ছে ততই যেন অভিনেত্রী পল্লবী দে-র মৃত্যু রহস্য নাটকীয় মোড় নিচ্ছে। মেয়ের অস্বাভাবিক মৃত্যু নিয়ে ইতিমধ্যেই গড়ফা থানায় প্রেমিক সাগ্নিক ও বান্ধবীর বিরুদ্ধে খুনের অভিযোগ এনেছে পরিবার। পুলিশ সূত্রে খবর, সাগ্নিককে জেরা করার পাশাপাশি তল্লাশি চালানো হয়েছে গড়ফার সেই ফ্ল্যাটে। সঙ্গে পল্লবীর মোবাইলও পরীক্ষা করে দেখা হয়েছে। আর তাতেই বেশ কিছু তথ্য এসেছে তাঁর হাতে। 

পুলিশ সূত্রে খবর, পল্লবী আর সাগ্নিকের ভাড়ার ফ্ল্যাট থেকে উদ্ধার হয়েছে হুক্কা, গাঁজা-সহ নেশার জিনিসপত্র। মাসখআনেক আগে থেকেই এখানে বিবাহিত পরিচয়ে থাকতে শুরু করেছিলেন তাঁরা। সঙ্গে তদন্তে জানা গিয়েছে মারা যআওয়ার আগে পল্লবী শেষ ফোন করেছিল বাড়ির পরিচারিকাকে। যদিও, তাঁদের মধ্যে কী কথোপকথন হয়েছিল, তা বিশদে জানা যায়নি।

পল্লবীর পরিবার এর আগেই জানিয়েছেন এই পরিচারিকার খোঁজ দিয়েছিলেন অভিনত্রীর মাসি। এমনকী, সেই মেয়েটি পল্লবীর মাসিকে বহুবার বলেওছেন, ‘দাদা-বউদি (সেও জানত ওরা বিবাহিত) খুব ঝগড়া করে।’ আরও পড়ুন: মাকে নিয়ে দিদি নম্বর ১-এ এসেও পল্লবী বলেছিলেন প্রেমিকের কথা, ‘যা খিটখিটে…’

খুনের অভিযোগের পাশাপাশি সাগ্নিক আর্থিক সুবিধে নিত বলে দাবি করেছে পল্লবীর পরিবার। এমনকী, সাগ্নিক নিজের ও নিজের বাবার নামে নিউটাউনে যে ফ্ল্যাট কিনেছেন সেখানেও মোটা অঙ্কের টাকা তাঁদের মেয়ে দিয়েছিল বলে দাবি করেছন তাঁরা। দু'জনের নামের ফিক্সড ডিপোজিটও পাওয়া গিয়েছে। আরও পড়ুন: শুধু ইউটিউব ভিডিয়ো বানিয়েই অডি গাড়ি! পল্লবীর সঙ্গী সাগ্নিকের আয় নিয়ে রহস্য

অনেকেই এই মৃত্যুর সঙ্গে তুলনা টানছেন সুশান্ত সিং রাজপুতের কেসের। পল্লবী যেন সুশান্ত, আর সাগ্নিক যেন রিয়া। পল্লবীর ঘনিষ্ঠ থেকে শুরু করে অনুরাগীরা, সাধারণ মানুষ চাইছেন এর বিচার হোক দ্রুত। সামনে আসুক কেন চলে যেতে হল এভাবে পল্লবীকে। 

হেল্পলাইন নম্বর: ওয়ালাইফ ফাউন্ডেশন - ৭৮৯৩০৭৮৯৩০

 

বন্ধ করুন