বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > 'আমার ডানা বেড়ে গেল', সন্তানকে পেয়ে সব ভুলেছেন পরীমণি, ছেলেকে নিয়েই কাটছে দিন

'আমার ডানা বেড়ে গেল', সন্তানকে পেয়ে সব ভুলেছেন পরীমণি, ছেলেকে নিয়েই কাটছে দিন

ছেলেকে চোখের আড়াল হতে দিচ্ছেন না পরীমণি।

সন্তানের আগমনে যারপরনাই খুশি শরিফুল রাজ। অভিনেতার বিশ্বাস, তাঁর স্ত্রী পৃথিবীর শ্রেষ্ঠ মা হবেন। তিনি জানান, সন্তানকে কাছছাড়া করছেন না পরী। সারাক্ষণ চোখে চোখে রাখছেন তাকে।

মা হয়েছেন পরীমণি। চার দিন আগে পুত্রসন্তানের জন্ম দিয়েছেন বাংলাদেশের জনপ্রিয় অভিনেত্রী। আপাতত একরত্তিকে ঘিরেই দিন কাটছে তাঁর।

জীবনের নতুন অধ্যায় শুরু হল অভিনেতা শরিফুল রাজেরও। বাবা হলেন তিনি। বেড়ে গেল দায়িত্ব। স্ত্রী এবং ছেলেকে নিয়ে বাংলাদেশের প্রথম সারির এক সংবাদমাধ্যমকে তিনি বলেন, 'বাচ্চা এবং পরী এখন সুস্থ আছে। হাসপাতালের বিশেষ কেবিনে আছে ওরা। আমি এবং আমার মা ওদের সঙ্গে থাকছি। তা ছাড়া চিকিৎসক আর কাউকে থাকার অনুমতি দিচ্ছেন না।' সদ্যোজাতর সুরক্ষার জন্য সব ধরনের সাবধানতা অবলম্বন করছেন তাঁরা।

সন্তানের আগমনে যারপরনাই খুশি শরিফুল রাজ। অভিনেতার বিশ্বাস, তাঁর স্ত্রী পৃথিবীর শ্রেষ্ঠ মা হবেন। তিনি জানান, সন্তানকে কাছছাড়া করছেন না পরী। সারাক্ষণ চোখে চোখে রাখছেন তাকে। ছেলেকে ঘিরেই আবর্তিত হচ্ছে তাঁর জীবন। রাজের কথায়, 'গত ন'দশ মাসে ও অনেক কষ্ট করেছে। অনেক ধৈর্য ধরেছে। আমার শ্যুট, ছবির মুক্তি, সব সামলেই ওর কষ্ট ভাগ করে নিতে ছায়ার মতো পাশে আছি। পরী এখন তাঁর নিজের মতো করে সন্তানের সঙ্গে সময় কাটাচ্ছে।'

(আরও পড়ুন: 'আমি পেরেছি'! প্রথম বার সন্তানকে দেখে কী করলেন পরীমণি? ভিডিয়ো দিলেন স্বামী রাজ)

দু'জনে মিলে সন্তানের নাম রেখেছেন রাজ্য। তার জন্মের পর মা-ছেলের মিষ্টি মুহূর্ত লেন্সবন্দি করেছিলেন রাজ। একরত্তিকে বুকে আগলে রাখতে দেখা গিয়েছিল পরীমণিকে। সেই দু'জনের প্রথম দেখা। মা হওয়ার পর রাজের সঙ্গে কী কথা হয় অভিনেত্রীর? পরীর স্বামী বলেন, 'হাসি মাখা মুখে ওর প্রথম কথা ছিল, ''এত দিনের জার্নি শেষ হল। আমি এখন একজন গর্বিত মা। আমার ডানা বেড়ে গেল। এখন আরও ভালোভাবে আকাশে উড়তে পারব।''

(আরও পড়ুন: দেখাশোনায় গাফিলতি? অন্তঃসত্ত্বা পরীমণিকে নিয়ে দেরি করে ডাক্তারের কাছে গেলেন রাজ)

পরীর মতো রাজের কাছেও এ সব কিছুই রূপকথার মতো। আনন্দে নাকি তিন দিন ধরে ঘুমোতেই পারেননি তিনি। সারা ক্ষণ ভেবে চলেছেন সন্তানের কথা।

বন্ধ করুন