বাড়ি > বায়োস্কোপ > ৪০ রিটেকের পরেও ব্যর্থ!আন্দাজের সেটে অপমানিত প্রিয়াঙ্কাকে রক্ষা করেন টুইঙ্কেল
আয়েগা গা মজা অব বরসাত কা' গানের শ্যুটিং কোরিওগ্রাফারের রোষের মুখে পড়েন প্রিয়াঙ্কা (ছবি সৌজন্যে-ইউটিউব)
আয়েগা গা মজা অব বরসাত কা' গানের শ্যুটিং কোরিওগ্রাফারের রোষের মুখে পড়েন প্রিয়াঙ্কা (ছবি সৌজন্যে-ইউটিউব)

৪০ রিটেকের পরেও ব্যর্থ!আন্দাজের সেটে অপমানিত প্রিয়াঙ্কাকে রক্ষা করেন টুইঙ্কেল

  • 'তুমি মিস ওয়ার্ল্ড জিতেছ বলে অভিনেত্রী হতে পারবে? যাও গিয়ে আগে শিখে আস কীভাবে নাচতে হয়, প্রিয়াঙ্কাকে বলেছিলেন কোরিওগ্রাফার রাজু খান। 

মিস ওয়ার্ল্ডের খেতাব জয়ের পর একরাশ স্বপ্ন নিয়ে বলিউড সফর শুরু করেছিলেন প্রিয়াঙ্কা চোপড়া। ২০০৩ সালে রাজ কানওয়ালের আন্দাজ ছবির সঙ্গে বলিউডে পা রাখেন পিগি চপস। ১৭ বছর আগে নিজের ডেব্যিউ ছবির অভিজ্ঞতা যে শুধুই মধুর স্মৃতিতে ভরপুর তা নয়, তিক্ত অভিজ্ঞতারও মুখোমুখি হতে হয়েছে কোয়ান্টিকো তারকাকে। সম্প্রতি সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে পড়েছে একটি পুরোনো ভিডিয়ো যেখানে প্রিয়াঙ্কা শোনালেন আন্দাজ ছবির অজানা গল্প।

এই ছবিতে প্রিয়াঙ্কার কো-স্টার ছিলেন অক্ষয় কুমার ও লারা দত্ত। শ্যুটিং শেডিউলের একদম শুরুতেই দক্ষিন আফ্রিকায় অক্ষয়ের সঙ্গে একটি রোম্যান্টিক গানের শ্যুটিং সারতে গিয়ে কোরিওগ্রাফারের রোষের মুখে পড়েছিলেন প্রিয়াঙ্কা।' আয়েগা গা মজা অব বরসাত কা'র শ্যুটিং নিয়ে নায়িকা বলেন,'ওটা ছিল প্রথম গান যা আমি শ্যুট করি। সেই সময় আমাকে অনেক কিছু করতে দেখাতে হবে এমন একটা ভাবনা ছিল। এবং প্রায় ৪০টা রিটেকের পরেও আমি একটা পারফেক্ট শট দিতে পারিনি..মনে আছে রাজু খান কোরিওগ্রাফার ছিলেন, সরোজ খানের ছেলে। উনি মাইক ছুঁড়ে ফেলে দিয়ে বলেছিলেন, কী ভাবছ তুমি মিস ওয়ার্ল্ড জিতেছ বলে অভিনেত্রী হতে পারবে? যাও গিয়ে আগে শিখে আস কীভাবে নাচতে হয়,তারপর ফিরে এসে পারফর্ম করবে'। 

সেই সময় প্রিয়াঙ্কার রক্ষাকর্তা হিসাবে সামনে এসেছিলেন টুইঙ্কেল খান্না। অন্তঃসত্ত্বা টুইঙ্কেল,আরভের জন্ম দেওয়ায় সেই সময় কিছুদিনের জন্য শ্যুটিং বন্ধ হয়ে যায়। এবং নিজেকে শুধরে নেওয়ার সুযোগ পান প্রিয়াঙ্কা। প্রিয়াঙ্কা বলেন, ‘অক্ষয়ের স্ত্রী,টুইঙ্কেল লেবারে থাকায় আমারা ফিরে এসেছিলাম দেশে, এবং এরপর আমি পন্ডিত বীরু কৃষানের নাচের ক্লাসে ভর্তি হই। সেখানে আমি কত্থক শেখা শুরু করি। প্রত্যেক দিন ৬ ঘন্টা করে নাচের নিয়মিত অভ্যাস করতাম। এরপর যখন আমি পুনরায় আন্দাজের পরবর্তী শেডিউল শুরু করলাম আমি অনেক কিছু জানতাম’।

এই অভিজ্ঞতা প্রিয়াঙ্কাকে অনেক কিছু শিখিয়েছে। সবচেয়ে বড় বিষয় যা দেশি গার্ল শিখেছেন তা হল, জানা এবং শেখার কোনও শেষ নেই। 

ডেব্যিউ ফিল্ম আন্দাজের পর অনেকটা সফর নিজের পরিশ্রমের সুবাদে পার করেছেন প্রিয়াঙ্কা চোপড়া জোনাস। ফিল্মফেয়ার থেকে জাতীয় পুরস্কার-সবই রয়েছে তাঁর ঝুলিতে। পদ্মশ্রী সম্মানেও ভূষিত হয়েছেন তিনি। এখন তিনি ভারতের গ্লোবাল আইকন। বলিউডের পাশাপাশি হলিউডেও পরিচিত নাম প্রিয়াঙ্কা চোপড়া। 

বন্ধ করুন