বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > 'মায়ের ওই কথাতেই প্রযোজক হওয়া' জানালেন প্রিয়াঙ্কা চোপড়া, জানেন কী ছিল ‘ওই কথা'?
মা মধু চোপড়ার সঙ্গে প্রিয়াঙ্কা। ছবি সৌজন্যে - ফেসবুক
মা মধু চোপড়ার সঙ্গে প্রিয়াঙ্কা। ছবি সৌজন্যে - ফেসবুক

'মায়ের ওই কথাতেই প্রযোজক হওয়া' জানালেন প্রিয়াঙ্কা চোপড়া, জানেন কী ছিল ‘ওই কথা'?

  • দক্ষ অভিনেত্রীর পাশাপাশি প্রিয়াঙ্কা চোপড়া একজন সফল প্রযোজকও বটে।গত ৮ বছরে প্রায় ১২টি সিনেমা তৈরি হয়েছে তাঁর প্রযোজনা সংস্থা থেকে।উল্লেখ্য, মায়ের কথাতেই কিন্তু প্রযোজক হিসেবে যাত্রা শুরু করেছিলেন তিনি।

দক্ষ অভিনেত্রীর পাশাপাশি তিনি একজন সফল প্রযোজকও বটে। তাঁর পরিচিতির গন্ডি বলিউড পেরিয়ে হলিউডের দোরগোড়ায় পৌঁছেছিল বছর কয়েক আগেই।কথা হচ্ছে প্রিয়াঙ্কা চোপড়াকে নিয়েই। বর্তমানে 'পিগি চপস-কে আন্তর্জাতিক তারকা বললেও এতটুকুও অত্যুক্তি হয় না। তবে তারকা-অভিনেত্রীর পাশাপাশি তিনি একজন প্রযোজকও। প্রিয়াঙ্কা প্রযোজিত 'দ্য হোয়াইট টাইগার'-এর কথা তো সর্বজনবিদিত। চলতি বছরে অস্কার নমিনেশনের চূড়ান্ত তালিকায় সেরা সংগৃহীত চিত্রনাট্য বা অ্যাডাপ্টেট স্ক্রিনপ্লে বিভাগে মনোনীত ছিল পরিচালক রামিন বাহারানির এই ছবি!

প্রায় ৮ বছর আগে প্রযোজকের আসনে বসেছিলেন এই অভিনেত্রী। খুলে ফেলেছিলেন নিজস্ব প্রযোজনা সংস্থা 'পার্পল পেবেল পিকচার্স'। গত ৮ বছরে প্রায় ১২টি সিনেমা তৈরি হয়েছে এই অফিস থেকে। তবে জানেন কি মা ডা.মধু চোপড়ার কথাতেই প্রযোজনা সংস্থা খুলেছিলেন এই অভিনেত্রী। সম্প্রতি, সেকথা জানিয়েছেন খোদ প্রিয়াঙ্কাই। বলেছেন তাঁর প্রযোজক হওয়ার পিছনে অন্যতম বড় কারণ ছিলেন তাঁর মা। টেলিগ্রাফের ইমপোস্টার পডকাস্টকে দেওয়া ওই সাক্ষাৎকারে প্রিয়াঙ্কা খোলাখুলি জানিয়েছিলেন মায়ের সঙ্গে তাঁর আয়ের অঙ্ক নিয়ে একবার গভীর আলোচনা চলেছিল। তখনই মা তাঁকে বলেছিলেন যে বয়স বাড়ছে প্রিয়াঙ্কার। তাই এখন থেকেই অভিনয় ছাড়াও অন্য কোনও উপায়ে রোজগারের ব্যবস্থা করে রাখা উচিৎ তাঁর। মায়ের বলা এই কথাই ভাবিয়ে তোলে তাঁকে।

 

 

খোশমেজাজে প্রিয়াঙ্কা। ছবি সৌজন্যে - রয়টার্স
খোশমেজাজে প্রিয়াঙ্কা। ছবি সৌজন্যে - রয়টার্স

প্রিয়াঙ্কার কথায়,' মা সেদিন কথায় কথায় আমাকে স্পষ্ট বলেছিলেন যে এইমুহূর্তে তিরিশের কোঠায় রয়েছে তোর বয়স। অন্যদিকে, বেশিরভাগ নায়করাই ছবিতে তাঁদের বিপরীতে নায়িকার চরিত্রে অভিনয়ের জন্য কুড়ির কোঠায় বয়স থাকা অভিনেত্রীদেরই পছন্দ করে। তাই এখন থেকেই বিকল্প আয়ের ব্যাপারে প্রস্তুতি সেরে রাখা উচিৎ আমার।' সামান্য থেমে অভিনেত্রী আরও জানিয়েছিলেন যে বরাবরের তাঁর ইচ্ছে ছিল ব্যবসা করার। তাই প্রযোজনায় এসে ব্যবসা করার ইচ্ছেপূরণের সঙ্গে যে দ্বিতীয় আয়ের পথও সুগম হলো, সেকথা বলাই বাহুল্য। নিজের প্রযোজিত সব ছবির ব্যাপারে প্রিয়াঙ্কা বলেছেন যে প্রথম থেকেই তাঁর লক্ষ্য ছিল বড় বাজেটের ছবি তৈরির বদলে আঞ্চলিক ছবি তৈরির ওপর জোর দেবেন তিনি। নব্য পরিচালক থেকে নবাগত অভিনেতা-অভিনেত্রীদের তাঁর প্রযোজনায় সুযোগ দেবেন, প্রথম থেকেই এই চিন্তাধারা নিয়ে এগিয়েছেন তিনি। ফলও পেয়েছিলেন হাতে নাতে। 'আমার প্রযোজিত একাধিক ছবি নানানরকম পুরস্কারে ভূষিত হয়েছে', জানিয়েছেন এই অভিনেত্রী-প্রযোজক।

 

বন্ধ করুন