কখনও রাজ কখনও রাহুল, তবে বলিউডের কিং অফ প্রপোজ নিঃসন্দেহে শাহরুখ খান
কখনও রাজ কখনও রাহুল, তবে বলিউডের কিং অফ প্রপোজ নিঃসন্দেহে শাহরুখ খান

Propose Day 2020: বলিউডের সবেচেয় আইকোনিক প্রপোজের দৃশ্য

ভালোবাসার মানুষের সামনে মনের অনুভূতির প্রকাশ সহজ নয়, তবে এই কঠিন কাজে বছরের পর সহজভাবে রূপোলি পর্দায় করে দেখান বলিউড হিরো-হিরোইনরা। বলিউডের কিছু সেরা প্রপোজের দৃশ্য ফিরে দেখা প্রপোজ ডে-তে।

ভালোবাসা হল মনের সূক্ষ্ম এক অনুভূতি যা প্রতি মুহূর্তে বাঁচার রসদ জোগায়। স্থান-কাল-পাত্র ভেদে প্রেমের প্রকাশভঙ্গি পাল্টাতে পারে তবে প্রেমের গভীর অর্থটা সর্বত্রই এক। ভালোবাসার মানুষটির হাত সব পরিস্থিতিতে শক্ত করে ধরে থাকাটা যেমন জরুরি, তেমন দরকার নিজেদের সম্পর্কের ভিত গড়ে তোলা উচিত বিশ্বাস,সম্মান আর আত্মসমপর্নের মজবুত গাঁথুনিতে। ভালোবাসার মানুষটি মনের কথা বলার জন্য বিশেষ কোনওদিন নেই, কারণ প্রতিটা দিনই তো ভালবাসার দিন। তবুও ভ্যালেন্টাইনস সপ্তাহে প্রেমের জোয়ারে ভাসেন সব প্রেমিক জুটিই। শুক্রবার থেকে শুরু হয়েছে ভালোবাসার সপ্তাহ। রোজ ডে-র পর শনিবার প্রোপোজ ডে। ভালোবাসার মানুষটির সামনে প্রেম জাহির করবার দিন।

প্রেম আর প্রপোজ এই দুটো ছাড়া তো কোনও বলিউডি ছবি অসম্পূর্ন।বলিউডের রোম্যান্টিক ছবিতে কোনও প্রোপোজের সিন থাকবে না এটাও হয় নাকি! তবে বেশ কিছু বাছাই করা বলিউড ছবির প্রোপোজের দৃশ্য আছে যা যে কোনও মুহূর্তে আপনাকে সিরিয়াস রিলেশনশিপ গোলস দেবে।

বলিউডের রোম্যান্টিক ছবির নাম ভাবলে-শুরুতেই মাথায় আসবে দিলওয়ালে দুলহানিয়া লেযায়েঙ্গে। রাজ-সিমরণের প্রেমের চিরন্তন গল্প, যা দশকের পর দশক ধরে আজও দর্শকদের মনের ক্যানভ্যাসে রঙিন। পঞ্জাবের হলুদ সর্ষে খেতে সিমরণকে যেভাবে মনের কথা বলেছিল রাজ-তা কি ভোলা যায়?



রোম্যান্স আর শাহরুখ-বলিউডে এই দুটো প্রায় সমার্থক শব্দ। কিং অফ রোম্যান্স কুছ কুছ হোতা হ্যায় ছবিতেও টিনার সামনে নিজের প্রেম প্রস্তাব রেখেছিলেন একমদম ইউনিক ভঙ্গিতে।


এমনতিতে বলিউডের সিরিয়াল কিসার হিসাবেই পরিচিত ইমরান হাসমি। তবে জন্নত ছবিতে সোনাল চৌহানকে যেমনভাবে প্রপোজ করেছিলেন অভিনেতা তা কিন্তু বলিউডের অন্যতম রোম্যান্টিক প্রেম প্রস্তাব।


ছেলেরাই প্রথম প্রেম প্রস্তাব দেবে, মনের কথা বলবে..এটা শুধু ভারতীয় সমাজব্যবস্থায় নয় বলিউড ছবিতেও এটাই প্রচলিত ট্রেন্ড। হাতে গোনা যে ক’টা ছবিতে এই ফর্মুলা ফলো করা হয়নি তার মধ্যে অন্যতম ফোর্স। এসিপি যশবর্ধন মানে জনের সামনে যেভাবে মনের কথা বলেছিলেন জেনেলিয়া তা সত্যিই মন ছুঁয়ে যায়।


বলিউডের আরও একটি আনকনভেনশানাল প্রপোজের গল্প ধরা পড়ে রণবীর-কঙ্কনা জুটির ওয়েক আপ সিড ছবিতে। যেখানে আয়েশার কলমে ফুটে ওঠে সিদ্ধার্থের প্রতি তাঁর ভালোবাসার গল্প।




ক্যাসিনোভা বানি দীর্ঘ অপেক্ষার পর অবশেষে যখন নয়নাকে নিজের মনের ভিতর লুকানো অনুভূতি ব্যক্ত করেন..সেই দৃশ্যটা কী ভোলা যায়! ইয়ে জবানি হ্যায় দিবানি ছবির সবচেয়ে বড় ইউএসপি রণবীর-দীপিকার রসায়ন। বানি-নয়নার সম্পর্কে বিক্রমের আচমকা উপস্থিতিতে নাজেহাল বানি শেষমেষ বুঝিয়ে দেয় নয়নাকে বরাবরই কতটা ভালোবেসেছে সে.. কথা নয় শুধু একটা প্যাসানেট কিস, এটাই যথেষ্ট।


বন্ধ করুন