বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > Rachna Banerjee: ‘গড়িয়াহাটে ৭০০, রচনার কাছে ১০০০’, শাড়ি বিক্রি শুরু করতেই ট্রোলড রচনা!
শাড়ির লাইভে ‘দিদি নম্বর ১’র রচনা বন্দ্যোপাধ্যায়। (ছবি-ফেসবুক)
শাড়ির লাইভে ‘দিদি নম্বর ১’র রচনা বন্দ্যোপাধ্যায়। (ছবি-ফেসবুক)

Rachna Banerjee: ‘গড়িয়াহাটে ৭০০, রচনার কাছে ১০০০’, শাড়ি বিক্রি শুরু করতেই ট্রোলড রচনা!

  • এত বড় সেলিব্রেটি হয়ে শাড়ি বিক্রি করার কি দরকার, এমন প্রশ্ন তুলেছেন কেউ কেউ!

কিছুদিন আগেই রচনা বন্দ্যোপাধ্যায় সোশ্যাল মিডিয়ায় ঘটা করে জানিয়েছিলেন অভিনয়, সঞ্চালনার পাশাপাশি এবার তাঁকে দেখা যাবে নতুন ভূমিকায়। ‘রটনা'স ক্রিয়েশন’ নামে শাড়ির বুটিক খুললেন তিনি। যেখানে পাওয়া যাবে নানা ধরনের শাড়ির সম্ভার। স্বভাবতই রচনার বুটিকের শাড়ি দেখার জন্য মুখিয়ে ছিলেন সকলে। বৃহস্পতিবারই নিজের ফেসবুক পেজ থেকে প্রথম লাইভ করেন অভিনেত্রী। আর তারপর থেকেই শুরু হয়েছে ট্রোলিং, কটাক্ষ। 

শাড়ির বুটিক রয়েছে ‘রান্নাঘর’-এর সুদীপারও। তিনিও তাঁর ফেসবুক ফেজ থেকে লাইভে আসেন শাড়ি নিয়ে। রচনাও ঠিক তেমনটাই করেছিলেন। কিন্তু দেখা গেল লাইভ শেষ হওয়ার পর শুরু হল কটাক্ষ। সোশ্যাল মিডিয়ায় রচনার লাইভের নানা স্ক্রিনশট শেয়ার করে লেখা হতে থাকল, নিজের তারকা তকমার জন্য বেশি দামে শাড়ি বিক্রি করছেন তিনি। সঙ্গে আবার কেউ কেউ প্রশ্ন তুলল শাড়ির কালেকশন নিয়েও। তাঁদের দাবি, যে শাড়ি গড়িয়াহাটেই পাওয়া যায়, তা কেন নেওয়া হবে ‘রচনা'স রিক্রিয়েশন’ ব্র্যান্ডের থেকে।

কটাক্ষ সোশ্যাল মিডিয়ায়। 
কটাক্ষ সোশ্যাল মিডিয়ায়। 

সোশ্যাল মিডিয়ায় ক্ষোভ উগড়ে দিয়েছেন ছোট ব্যবসায়ীরা। আজকাল অনেক মহিলারাই শাড়ি থেকে জামা কাপড় অনলাইনে বিক্রি করেন ঘরে বসে। দাবি, তাঁদের দেওয়া লাইভের রিকোয়েস্ট দেখে সকলেই বিরক্ত হয়। আর রচনা বন্দ্যোপাধ্যায় শাড়ি বিক্রি করা শুরু করতেই সেখানে উপচে পড়ছে ভিড়। আর যাঁরা পেটের টানে এসব করেন, তাঁদের পাত্তা দেয় না মানুষ। আসলে বেশি টাকা দিয়ে ঠকতে চায় তাঁরা, দেখনদারির জন্য।

যদিও ‘দিদি নম্বর ১’-র রচনার পক্ষও নিয়েছেন কেউ কেউ এই সব পোস্টের কমেন্ট বক্সে। তাঁরা জানিয়েছেন, ‘অনেক স্ট্র্যাগল করার পর আজ রচনা এই জায়গায় পৌঁছেছেন। যাঁরা আজ রচনার নাম নিয়ে নিন্দে করছেন, তাঁরা এরকমই খাটনি করে দেখাক। তাহলে হয়তো আজ থেকে ১০ বছর পরে তাঁদের লাইভও দেখবে কয়েক হাজার মানুষ।’

বন্ধ করুন