বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > Dance Deewane 3: রাঘবের উপরে বর্ণবিদ্বেষের অভিযোগ! অসমের মেয়েকে চাইনিজ-মোমো ডাকা নিয়ে মুখ খুললেন
রাঘব জুয়ালের মন্তব্য উঠল বর্ণবিদ্বেষের অভিযোগ। 
রাঘব জুয়ালের মন্তব্য উঠল বর্ণবিদ্বেষের অভিযোগ। 

Dance Deewane 3: রাঘবের উপরে বর্ণবিদ্বেষের অভিযোগ! অসমের মেয়েকে চাইনিজ-মোমো ডাকা নিয়ে মুখ খুললেন

  • 'ডান্স দিওয়ানে'র মঞ্চে ঘটেছে এই ঘটনা। এমনকী, রাঘবের কথায় হাসতে দেখা গিয়েছে মাধুরী, রেমোকেও!

ডান্স রিয়েলিটি শো 'ডান্স দিওয়ানে'-তে 'বর্ণবিদ্বেষী' মন্তব্য করার জন্য আপাতত নেট-নাগরিকদের রোষে সঞ্চালক-কোরিওগ্রাফার রাঘব জুয়াল। রেমো ডিসুজা, তুষার কালিয়া, ধর্মেশ ইলেন্ডে এবং মাধুরী দীক্ষিতের মতো বলিউডের নামজাদা বিচারকদের সামনে এমন মন্তব্য করে বসেন তিনি। আর এতেই যেন জনতার রাগ আরও বেড়েছে। 

'ডান্স দিওয়ানে'-র একটি ক্লিপিংস সম্প্রতি ভাইরাল হয়েছে সোশ্যাল মিডিয়ায়। যেখানে অসমের এক খুদে প্রতিযোগী গুঞ্জন সিং-কে স্টেজে ডাকার সময় রাঘবকে ‘মোমো’, ‘চাউমিন’র মতো কথা দিয়ে পরিচয় দিতে দেখা যাচ্ছে। এমনিতেও নর্থ ইন্ডিয়ানদের নিয়ে মোমো বা চাইনিজের মতো নানা কমেন্টের প্রতিবাদে সরব হয়েছে দেশের অনেকেই! তাই রাঘবের গায়েও সেঁটে দেওয়া হয়েছে ‘বর্ণবিদ্বেষী’ তকামা। নেটপাড়ার অনেকেরই মত, ক্ষমা চাওয়া উচিত রাঘবের।

যদিও এই ক্লিপিংস ভাইরাল হওয়ার পর আত্মপক্ষ সমর্থন করে একটি ছোট্ট ভিডিও ইনস্টাগ্রামে আপলোড করেন রাঘব। যেখানে তাঁর দাবি, শো-তে গুঞ্জন নিজেই জানিয়েছিল সে চাইনিজ ভাষায় কথা বলতে পারে। আর পুরো শো-তে এই নিটে তার সাথে মজাও করা হত। তাই ওই খুদে প্রতিযোগীকে স্টেজে ডাকার সময় চাইনিজ  তিনি জুড়ে দেন মোমো, চাইনিজের মতো শব্দ। বলেন, ‘আমার অনেক বন্ধু-পরিবার থাকে নাগাল্যান্ড অসমে। আমি বা কালার্স চ্যানেল ইচ্ছে করে ভাবাবেগে আঘাত করতে চাইনি। তবে কারও খারাপ লাগলে ক্ষমা চাইছি।’ সঙ্গে তিনি এও বলেন, তাঁকে বিচার করার আগে যেন সবাই গোটা এপিসোড ও পুরো শো দেখে। 

কালার্স চ্যানেল, রাঘব, মাধুরী, রেমোদের উদ্দেশে ক্ষোভ উগড়ে দিয়েছেন সকলে। ২০২১ সালে দাঁড়িয়ে হাসির খারোক বানানো হয় নর্থ ইন্ডিয়ার মানুষদের, এরকমই পোস্ট চোখে পড়েছে সব জায়গায়। অনেকে আইনি ব্যবস্থা নেওয়ারও হুমকি দিয়ে ফেলেছেন।

বন্ধ করুন