বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > ইটের জবাবে পাটকেল! লতাকে 'কুৎসিত' বলার ফল এভাবে ভোগ করেছিলেন রাজ কাপুর
গল্প,আড্ডায় মগ্ন লতা মঙ্গেশকর এবং রাজ কাপুর। ( ছবি সৌজন্যে - হিন্দুস্তান টাইমস)
গল্প,আড্ডায় মগ্ন লতা মঙ্গেশকর এবং রাজ কাপুর। ( ছবি সৌজন্যে - হিন্দুস্তান টাইমস)

ইটের জবাবে পাটকেল! লতাকে 'কুৎসিত' বলার ফল এভাবে ভোগ করেছিলেন রাজ কাপুর

  • লতা মঙ্গেশকরের গলার স্বরের অকুন্ঠ প্রশংসা করলেও তাঁকে 'কুৎসিত' বলেছিলেন রাজ কাপুর। শুনে যারপরনাই রেগে গেছিলেন লতা।

১৯৭৮ সালে রাজ কাপুর পরিচালিত ছবি 'সত্যম শিবম সুন্দরম' বক্স অফিসে রেকর্ড গড়ার পাশাপাশি তুলেছিল বিতর্কের ঝড়। তবে জানেন কি এই সুপারহিট ছবির গল্প কাকে ভেবে লিখে ফেলেছিলেন রাজ কাপুর? জবাব হলো, লতা মঙ্গেশকর। একদম ঠিক পড়ছেন। কিংবদন্তি বলি-গায়িকাকে ভেবেই 'সত্যম শিবম সুন্দরম' তৈরির করার ভাবনা মাথায় এসেছিল তাঁর। শুধু তাই নয়, প্রথম থেকেই লতা মঙ্গেশকরকে এই ছবির জন্য গান গাওয়ানোর কথাও ভেবে রেখেছিলেন এই কিংবদন্তি পরিচালক।তবে রাজি হয়েও কিছুদিন পর সেই প্রস্তাব খারিজ করে দিয়েছিলেন 'ভারতের নাইটেঙ্গেল'। 'রাজ কাপুর স্পিকস' নামে নিজের লেখা বইয়ে এ কথা স্বয়ং জানিয়েছিলেন পরিচালক-কন্যা ঋতু নন্দা।

ওই বইয়ে ঋতু লিখেছেন 'সত্যম শিবম সুন্দরম' প্রসঙ্গে রাজ কাপুর বলেছিলেন, 'যখনই মাথায় এসেছিল একজন পুরুষ ভীষণ সাধারণ দেখতে এক নারীর প্রেমে পড়ছে স্রেফ তাঁর গলার স্বর শুনে, তখনই লতার মুখ আমার চোখে ভেসে উঠেছিল।' লেখিকা আরও জানিয়েছেন তাঁর বাবা দৃঢ়ভাবে বিশ্বাস করতেন দু'টি মানুষের মধ্যে ভালোবাসা ও ভরসা জন্মায় সম্পর্কের বুনিয়াদের ওপর ভিত্তি করে। কখনওই শারীরিক সৌন্দের্যের দরুণ ভালোবাসা জন্মায় না। ছবির গল্প ও রাজ কাপুরের প্রস্তাব পেয়ে নাকি স্বয়ং লতাও হাজির হয়েছিলেন এই ছবিতে অভিনয় করতে। কিন্তু পরবর্তী সময়ে নিজেকে এই ছবির থেকে সরিয়ে নেন তিনি।

কেন রাজি হয়েও নিজেকে এই ছবি থেকে সরিয়ে নিয়েছিলেন লতা? সেকথা লেখা রয়েছে সাংবাদিক বীর সাংভির আত্মজীবনীতে। লেখক জানিয়েছেন তাঁর সঙ্গে একবার আড্ডার ফাঁকে রাজ কাপুর বেশ দর্শনিকভাবে এই প্রশ্নের জবাব দিয়েছিলেন। বর্ষীয়ান পরিচালক নাকি বলেছিলেন যে একটা নুড়ি পাথরের মধ্যে কোনও বৈশিষ্ট্যই নেই। কিন্তু ওই একই নুড়ির মধ্যে ধর্মীয় কোনও রং মাখিয়ে দিলে তা পরিণত হয়ে ঈশ্বরে। অর্থাৎ কোন ব্যাপার কেমন তা নির্ভর করে যে দেখছে তাঁর দৃষ্টিভঙ্গির ওপর। ঠিক তেমনই কোনও স্বর্গীয় সুর শুনে হয়তো কেউ ভীষণ মুগ্ধ হলো। কিন্তু পরবর্তী সময় জানা গেল যিনি গাইছেন তিনি অত্যন্ত কুৎসিত দেখতে। সামান্য থেমে রাজ কাপুর আরও বলেছিলেন এই ' কুৎসিত' ব্যাপারটার প্রসঙ্গ আসতেই রেগে গেছিলেন লতা। সেই প্রথম নয়, বীর সাংভি তাঁর সেই আত্মজীবনীতে দাবি করেছেন এর অঅঅগেও এই ছবির স্বার্থে রাজ জানিয়েছিলেন লতার রূপ এবং গলার স্বরের মধ্যে যে এই বৈপরীত্য, সেই বিষয়টাই ভীষণভাবে টেনেছিল এই কিংবদন্তি পরিচালক।

এরপরেই নিজেকে এই ছবির থেকে সরিয়ে নিয়েছিলেন লতা। ফিরিয়ে দিয়েছিলেন 'সত্যম শিবম সুন্দরম' ছবিতে গান গাওয়ার প্রস্তাব। পরে অবশ্য তাঁর মান ভাঙ্গন স্বয়ং রাজ কাপুর। শেষপর্যন্ত রাজি হয়েছিলেন লতা।

বন্ধ করুন