বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > Raju Srivastava’s family: রাজুর জ্ঞান ফেরাতে ভয়েস মেসেজ পাঠিয়েছিলেন অমিতাভ, ধন্যবাদ জানালেন পরিবার

Raju Srivastava’s family: রাজুর জ্ঞান ফেরাতে ভয়েস মেসেজ পাঠিয়েছিলেন অমিতাভ, ধন্যবাদ জানালেন পরিবার

রাজু শ্রীবাস্তব যখন অমিতাভ বচ্চনের সঙ্গে দেখা করেছিলেন।

Raju Srivastava’s family: রাজু শ্রীবাস্তবের পরিবার অমিতাভ বচ্চনের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেছে যিনি কোমায় থাকাকালীন প্রয়াত কমেডিয়ানকে একটি ভয়েস নোট পাঠিয়েছিলেন।

কমেডিয়ান-অভিনেতা রাজু শ্রীবাস্তবের মৃত্যুর পর তাঁর পরিবারের তরফে প্রথম প্রতিক্রিয়া এসেছে। হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে দিল্লির অল ইন্ডিয়া ইনস্টিটিউট অফ মেডিকেল সায়েন্সে (AIIMS) হাসপাতালে ভর্তি ছিলেন রাজু। গত সপ্তাহে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন তিনি।

রাজুর সুস্থ হয়ে ওঠার জন্য ভয়েস মেসেজ পাঠিয়েছিলেন অমিতাভ বচ্চন। রাজুকে জাগিয়ে তুলতে কাজে লাগানো হয়েছিল তাঁর প্রিয় অভিনেতার কণ্ঠস্বরকে। কী বলেছিলেন অমিতাভ? জানা গিয়েছেন, রাজুকে জেগে ওঠার সাহস জুগিয়েছিলেন অমিতাভ। ফের তাঁকে সকলের মুখে হাসি ফোটানোর কথা বলেছিলেন। আরও পড়ুন: প্রথমবার দুর্গাপুজোয় কলকাতায় শানু পুত্র, নতুন গান উপহার জান কুমার শানুর

এবার অমিতাভের সঙ্গে পরিরারে তরফে রাজুর কয়েকটি ছবি শেয়ার করে ধন্যবাদ জানানো হয়েছে। রাজুর মেয়ে অন্তরা পরিবারের পক্ষ থেকে লিখেছেন, ‘এই কঠিন সময়ে আমাদের পরিবারের পাশে থাকার জন্য শ্রী অমিতাভ বচ্চন কাকুর কাছে অত্যন্ত কৃতজ্ঞ। আপনার প্রার্থনা আমাদের প্রচুর শক্তি এবং সমর্থন দিয়েছে, যা আমরা চিরকাল মনে রাখব। আপনি আমার বাবার আইডল, অনুপ্রেরণা, ভালোবাসা এবং গুরু।’ আরও পড়ুন: ‘গান রিমেক’ বিতর্কের মাঝেই একমঞ্চে নেহা-ফাল্গুনী, একসঙ্গে নাচলেন ডান্ডিয়া

আরও লেখেন, 'বাবা যখন প্রথমবার আপনাকে বড় পর্দায় দেখেছিল, চিরকাল তার মধ্যেই থেকে গিয়েছেন। তিনি শুধু আপনাকে অন-স্ক্রিন নয় তার বাইরেও অনুসরণ করেছেন। তিনি ফোনে আপনার নম্বর 'গুরুজি' হিসাবে সেভ করেছিলেন। আপনি তাঁর মধ্যেই ছিলেন।' আরও পড়ুন: ‘আজকাল এসব বলা উচিত নয়’, নিজেকে ‘উদারপন্থী, বামপন্থী’ বলে উল্লেখ করেছেন সইফ

রাজুকে একটি ভয়েস নোটে অমিতাভ বলেছিলেন, ‘যথেষ্ট রাজু। রাজু উঠুন, এবং আমাদের সবাইকে হাসাতে থাকুন।’ অন্তরা আরও যোগ করেন, ‘আপনার অডিও ক্লিপ শুনে তাঁর প্রতিক্রিয়ায় পরিষ্কার ছিল, তাঁর কাছে আপনার মূল্য কতটা। আমার মা শিখা, ভাই, আমার পুরো পরিবার এবং আমি আপনার কাছে চির কৃতজ্ঞ। তিনি বিশ্বব্যাপী যে ভালোবাসা এবং প্রশংসা পেয়েছেন তা আপনার কারণে।’

১০ অগস্ট জিমে শরীরচর্চা করার সময়ে হৃদরোগে আক্রান্ত হন রাজু। তখনই তড়িঘড়ি তাঁকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। এর মধ্যে কখনও কখনও তিনি চিকিৎসায় সাড়া দিয়েছিলেন। আশার আলো দেখেছিল তাঁর পরিবার। কিন্তু শেষ পর্যন্ত সব চেষ্টা বিফল করে চলে যান তিনি।

বন্ধ করুন