রেকর্ড ভিউয়ার্স দেখল তিন দশক পুরোনো রামায়ণ
রেকর্ড ভিউয়ার্স দেখল তিন দশক পুরোনো রামায়ণ

ঐতিহাসিক রেকর্ড 'রামায়ণ'-এর : ২ দিনে ১৭ কোটি মানুষ দেখল তিন দশক পুরোনো সিরিয়াল

  • লকডাউনের একঘেয়েমি কাটাতে এবং দর্শকদের মনে নস্ট্যালজিয়া উস্কে দেওয়ার জন্যই আশি ও নব্বইয়ের দশকের হিট শোগুলি পুনঃসম্প্রচার করছে দূরদর্শন।

লকডাউনের সময় পুরোনো স্মৃতি উস্কে দিতেই রামায়ণ সহ নব্বইয়ের দশকের একাধিক হিট শোয়ের পুনঃসম্প্রচার শুরু করেছে দূরদর্শন। রামানন্দ সাগরের রামায়ণ ইতিহাস রচনা করল শুরুতেই।

তথ্য সম্প্রচার মন্ত্রকের তরফে আনুষ্ঠানিক বিবৃতিতে বৃহস্পতিবার জানানো হয়, ২০১৫ সাল থেকে হিন্দি এন্টারটেনমেন্ট চ্যানেলে সম্প্রচারিত অনুষ্ঠানগুলির মধ্যে রামায়ণের প্রথম চারটি এপিসোডের দর্শক সংখ্যা সর্বাধিক। বার্কের রিপোর্টে উঠে এসেছে সেই তথ্য। ব্রডকাস্টিং অডিয়েন্স রিসার্চ কাউন্সিল (BARC)-এর রিপোর্ট বলছে গত সপ্তাহ শেষে রামায়ণের যে চারটি এপিসোড সম্প্রচারিত হয়েছিল সেগুলো দেখেছেন প্রায় ১৭০ মিলিয়ন (১৭ কোটি) মানুষ।

বার্কের চিফ এক্সিকিউটিভ সুনীল লুলা জানিয়েছেন, রামায়ণের এই সাফল্যে হতবাক তাঁরাও। এবং এটাকে প্রসার ভারতীর একটা ‘দুর্দান্ত পদক্ষেপ’ বলে উল্লেখ করেন তিনি।

শনিবার সকালে সম্প্রচারিত রামায়ণের প্রথম এপিসোডটি দেখেন প্রায় তিন কোটি ৪০ লক্ষ মানুষ। সেদিন সন্ধ্যায় সম্প্রচারিত এপিসোডের ভিউ সংখ্যা আরও বেশি-সাড়ে চার কোটি। রবিরার সম্প্রচারিত এপিসোডগুলি দেখেন যথাক্রমে-৪ কোটি এবং ৫ কোটি ১০ লক্ষ মানুষ।

২১ দিন দীর্ঘ লকডাউনের সময় মানুষকে সুস্থ বিনোদন পৌঁছে দিতেই আশি ও নব্বইয়ের দশকের কাল্ট শো গুলি সম্প্রচারের সিদ্ধান্ত নেয় প্রসার ভারতী। সেই অনুযায়ী-রামায়ণ, মহাভারত, সার্কাস, ব্যোমকেশ বক্সীর মতো শোগুলি সম্প্রচার শুরু করে দূরদর্শন। জনতার অনুরোধে ডিডি-১ এর পর্দায় ফিরেছে শক্তিমান, শ্রীমান শ্রীমতি, চাণক্য, দেখ ভাই দেখের মতো ক্ল্যাসিক শোগুলিও। আলিফ লায়লা, উপনিষদ গঙ্গার মতো শো গুলি সম্প্রচারিত হচ্ছে ডিডি ভারতীতে।

প্রসঙ্গত প্রত্যেকদিন সকাল ৯টা এবং রাত ৯টায় রামায়ণের দুটি পৃথক এপিসোড সম্প্রচারিত হচ্ছে দূরদর্শনের পর্দায়।


বন্ধ করুন