বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > রানা সরকারের নির্দেশে ‘ভজহরি মান্না’য় রাঁধলেন ‘শঙ্খ’, স্বাদ নিতে হাজির মদন মিত্র
মদন মিত্রের সঙ্গে রানা সরকার (বাঁ দিকে) এবং প্রতীক।
মদন মিত্রের সঙ্গে রানা সরকার (বাঁ দিকে) এবং প্রতীক।

রানা সরকারের নির্দেশে ‘ভজহরি মান্না’য় রাঁধলেন ‘শঙ্খ’, স্বাদ নিতে হাজির মদন মিত্র

  • শুরু হতে চলেছে এক অভিনব রান্নার অনুষ্ঠান 'ভজহরি মান্না'। পরিবেশনায় রানা সরকার। ইতিমধ্যেই শুরু হয়ে গেছে অনুষ্ঠানের শ্যুটিং। অতিথি হিসেবে হাজির হয়েছেন মদন মিত্র, শিলাজিৎ মজুমদার এর মতো সব জনপ্রিয় মুখ।

রীতিমতো হইচই করে ইনস্ট্রিতে 'কামব্যাক' করছেন প্রযোজক রানা সরকার।'জাতিস্মর' ছবি খ্যাত প্রযোজক আগেই জোর গলায় জানিয়েছিলেন ইন্ডাস্ট্রিতে বড় করে ফিরবেন। সেই কথা তিনি রাখলেন। শ্রীজাতর প্রথম ছবি ‘মানবজমিন’ হোক কিংবা সৃজিত মুখোপাধ্যায়ের 'লহ গৌরাঙ্গের নাম রে', সবই তৈরি হচ্ছে তাঁর প্রযোজনায়। তালিকায় রয়েছে 'কিশমিশ' ছবির পরিচালক রাহুল মুখোপাধ্যায়ের পরবর্তী ছবি 'চং চং' এবং রাজদীপ ঘোষের 'বনবিবি'। এবার ছবির সঙ্গে যোগ হল শো। রান্নার নতুন এক অনুষ্ঠান ওয়েব প্ল্যাটফর্মে হাজির করছেন রানা। নাম, ‘ভজহরি রান্না’।আর যেই শো-তে হাজির হবেন মদন মিত্র থেকে শুরু করে শিলাজিৎ মজুমদার-এর মতো জনপ্রিয় সব মুখ। এবং থাকবেন ‘মোহর’ ধারাবাহিকের ‘শঙ্খ’ ওরফে জনপ্রিয় অভিনেতা প্রতীক সেন।

প্রতীক রাঁধছেন, মদন বলছেন।
প্রতীক রাঁধছেন, মদন বলছেন।

এইমুহূর্তে সুন্দরবনের বিস্তীর্ণ অঞ্চল জুড়ে জোরকদমে 'বনবিবি' ছবির শ্যুটিং। সেখান থেকেই এই নতুন রান্না শো-এর শ্যুটিং শুরু হয়েছে। শ্যুটিংয়ের নেপথ্যের সেইসব নানান ছবি সোশ্যাল মিডিয়াতেও পোস্ট করেছেন রানা সরকার এবং কামারহাটির বিধায়ক। যাঁরা এতটা পর্যন্ত পড়ে ভুরু কুঁচকিয়েছেন তাঁদের জন্য জানিয়ে রাখা দরকার 'ভজহরি মান্না'-র শ্যুটিং স্টুডিওর কোনও চার দেওয়ালের মধ্যে হবে না। প্রতিটি পর্বের শ্যুটিং খোলা আকাশের নীচে হবে। রাজ্যের বিভিন্ন প্রান্তে। শো-তে আমন্ত্রিত অতিথিদের তালিকায় যেমন থাকবেন রাজনৈতিক ব্যক্তিত্ব তেমন থাকবে গ্ল্যামার দুনিয়া ও খেলার জগতের তারকারাও! আর অবশ্যই থাকছেন রাঁধুনি। আর সেখানেও রয়েছে চমক। এই রাঁধুনির ভূমিকায় দেখা যাবে 'খোকাবাবু' প্রতীক সেন। বর্তমানে 'মোহর' ধারাবাহিক খ্যাত এই অভিনেতাই এই শো-তে নিজের হাতে অতিথিদের ফরমায়েশ মত রেঁধে খাওয়াবেন তাঁদের প্রিয় পদ। আর জানিয়ে রাখা ভালো সবক'টি পদ যে বাঙালি হবে না জানা গেছে তাও। বিদেশি রান্নাও দেখা যাবে এখানে। একইসঙ্গে শো-এর সঞ্চালকের দায়িত্বও সারবেন প্রতীক।

খোশগল্পে ব্যস্ত মদন মিত্র এবং মজুমদার।
খোশগল্পে ব্যস্ত মদন মিত্র এবং মজুমদার।

খাওয়া দাওয়া তো থাকবেই। সঙ্গে থাকছে নানারকম মজার খেলা। রান্নার ফাঁকে ফাঁকেই সেসবে মেতে উঠবেন শো-এর হোস্ট এবং অতিথি। আর তাঁদের পছন্দের খাবারের পদের সঙ্গে সুখ কিংবা দুষ্টুমির স্মৃতি জড়িয়ে থাকলে সেসবও দর্শকদের সঙ্গে শেয়ার করে নেবেন অতিথিরা। 'ভজহরি মান্না' প্রসঙ্গে রানা সরকারের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে ফোনের ওপার থেকে তিনি জানিয়েছেন, 'সবসময় চিরাচরিত ট্রেন্ডের বাইরে গিয়ে কিছু করার চেষ্টা করেছি। বড়পর্দার বাইরে এই কুকিং শো-তেও ঠিক সেটাই বজায় রাখার চেষ্টা করেছি। এতদিন তো সব রান্নার অনুষ্ঠান স্টুডিওতেই হয়ে এসেছে। অথচ পিকনিকের মজা কীরকম তা কিন্তু আমরা সবাই জানি। তাই খোলা আকাশের নিচে গল্প, আড্ডা চলার পাশাপাশি একেবারে হাসি মজায় ভরপুর ভরা এই অনুষ্ঠান যে দর্শকদের অন্যরকম ভালো লাগবে সে বিষয়ে আমি নিশ্চিত'।

ইতিমধ্যেই মদন মিত্র এবং শিলাজিৎ মজুমদারকে নিয়ে সারা হয়েছে দু'টি পর্বের শ্যুটিং। বিখ্যাত রাজনীতিবিদ ও জনপ্রিয় গায়ক দু'জন্যেই যে বেশ হুল্লোড় করে এই অনুষ্ঠানে অংশগ্ৰহণ করেছেন জানা গেল তাও। আর কী খাবারের 'অর্ডার' দিয়েছিলেন তাঁরা? সে উত্তর অবশ্য এখনই দিতে নারাজ অনুষ্ঠানের নির্মাতারা। তার জন্য অপেক্ষা করতে হবে শো শুরু হওয়া পর্যন্ত।

বন্ধ করুন