বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > Ranbir-Alia Wedding: মধ্যমণি ‘বহুরানি’ আলিয়া,এক ফ্রেমে গোটা কাপুর খানদান; জুম করে দেখুন করিনার কীর্তি

Ranbir-Alia Wedding: মধ্যমণি ‘বহুরানি’ আলিয়া,এক ফ্রেমে গোটা কাপুর খানদান; জুম করে দেখুন করিনার কীর্তি

একফ্রেমে কাপুর ফ্যামিলি

কারা কারা রয়েছে এই ছবিতে? চিনতে পারছেন কি? 

রণবীর-আলিয়ার বিয়ের পর্ব মিটেছে ঠিকই, কিন্তু এই বিয়ের ঘোর কিছুতেই কাটছে না ফ্যানেদের। আর সেই ঘোর কাটবেই বা কী করে? বিয়ের অনুষ্ঠানের একের পর এক ছবি পোস্ট করেই চলেছেন কাপুর ও ভাট পরিবারের সদস্যরা। বৃহস্পতিবার দুই পরিবার ও ঘনিষ্ঠ বন্ধুদের উপস্থিতিতে চার হাত এক হয়েছে ‘রালিয়া’র। খবর, বিয়ের অনুষ্ঠানে মাত্র ২৮ জন অতিথি আমন্ত্রিত ছিল। শনিবার ভাইয়ের বিয়ের একগুচ্ছ অদেখা ছবি শেয়ার করেছেন রণবীরের একমাত্র দিদি ঋদ্ধিমা কাপুর সাহানি।

ঋদ্ধিমার শেয়ার করা ছবিগুলির মধ্যে সবচেয়ে বেশি নজর কাড়ল কাপুর খানদানের ফ্যামিলি ফটো। সেখানে এক ফ্রেমে ধরা দিলেন কাপুর পরিবারের সকল সদস্য, আর অবশ্যই সেই ছবির মধ্যমণি ছিলেন পরিবারের নতুন বহুরানি আলিয়া।

ছবিতে নবদম্পতি রণবীর-আলিয়া ছাড়াও ধরা দিলেন রণধীর কাপুর, ববিতা, নেইলা দেবী, নীতু কাপুর, করিশ্মা কাপুর, আদার জৈন, আরমান জৈন. অনিশা জৈন, শ্বেতা নন্দা, নভ্যা ন্দা, নিখিল নন্দা, রিমা জৈন, নীতিশা নন্দা কাপুর, করিনা ও তাঁর ছোট ছেলে জাহাঙ্গীর।

ক্যামেরার দিকে তাক করে সকলেই পোজ দিতে ব্যস্ত, যদিও এবারও ছবি তুলতে গিয়ে ফেঁসে গেলেন করিনা। তাঁর দেড় বছরের শিশুপুত্র জেহর মেজাজ ঠিক ছিল না। তাই তাঁকে সামলাতে গিয়ে নাজেহাল করিনা। ছবিতে করিনার মুখ খোলা এবং চোখগুলো বড় বড়, অন্যদিকে জেহ চিত্কার করছে সেটাও স্পষ্ট বোঝা যাচ্ছে। প্রত্যেকেই এই ছবিতে ভালোবাসা উজাড় করে দিয়েছে। অনেকে আবার সইফ আর তৈমুরকে মিস করেছে এই ছবিতে।

ভাট পরিবারের সঙ্গে অপর একটি ছবি শেয়ার করে ঋদ্ধিমা লিখেছেন বিয়ের অনুষ্ঠানে প্রয়াত ঋষি কাপুরকে তাঁরা কতখানি মিস করছে। 

অন্যদিকে রণবীরের সঙ্গে বিয়ের পর্ব মেটবার পর নিজের অনুভূতি ভাগ করে নেন আলিয়াও। সোশ্যাল মিডিয়া পোস্টে মিসেস রণবীর কাপুর লেখেন ‘আজ পরিবার পরিজন আর বন্ধু বান্ধবদের সঙ্গে নিজের পছন্দের জায়গাতেই নতুন জীবন শুরু করলাম। গত পাঁচ বছর যে ভালোবাসার ঝুল বারান্দায় আমরা একসঙ্গে সময় কাটিয়েছি….আমরা বিয়ে করলাম (সেখানেই)। অনেক স্মৃতি রয়েছে… আর আগামী দিনে দুজনে একসঙ্গে আরও অনেক স্মৃতি গড়তে চাই… যে স্মৃতিগুলো ভালোবাসা, হাসি, আরামদায়ক নিস্তব্ধতা, মুভি ডেট, মজাদার ঝগড়া, ওয়াইনের গ্লাসের চুমুক আর চাইনিজ খাবারে ভরপর….’।

সব শেষে মিসেস রণবীর কাপুর যোগ করেন, ‘সকলকে ধন্যবাদ এই ভালোবাসার জন্য, আমাদের জীবনকে আলোয় আলোকিত করবার জন্য। সেটাই এই মুহূর্তকে স্পেশ্যাল করে তুলল’।

বন্ধ করুন