বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > করিশ্মা-করিনার পড়াশোনা থেকে দামি স্কচ; খরচ জোগাতে অমানুষিক পরিশ্রম করতাম: রণধীর
দুই মেয়ে করিনা এবং করিশ্মার সঙ্গে রণধীর। (ছবি সৌজন্যে - হিন্দুস্তান টাইমস)
দুই মেয়ে করিনা এবং করিশ্মার সঙ্গে রণধীর। (ছবি সৌজন্যে - হিন্দুস্তান টাইমস)

করিশ্মা-করিনার পড়াশোনা থেকে দামি স্কচ; খরচ জোগাতে অমানুষিক পরিশ্রম করতাম: রণধীর

  • রাজ কাপুরের বড় ছেলে হয়েও আর্থিক সমস্যায় পড়তে হয়েছিল রণধীর কাপুরকে। করিনা কাপুর এবং করিশ্মা কাপুর ছোট থাকাকালীন অবস্থাতে অসম্ভব পরিশ্রম করে উপার্জন করতে হতো তাঁকে।

কাপুর পরিবারের সদস্য শুধু নন, রীতিমতো রাজ কাপুরের বড় ছেলে হয়েও আর্থিক সমস্যায় পড়তে হয়েছিল রণধীর কাপুরকে। করিনা কাপুর এবং করিশ্মা কাপুর ছোট থাকাকালীন অবস্থাতে অসম্ভব পরিশ্রম করে উপার্জন করতে হতো তাঁকে। সেই টাকায় তাঁর পুরো সংসারের খরচ, করিশ্মা ও করিনার পড়াশোনা থেকে শুরু করে বাড়ির বৈদ্যুতিক খরচ, তাঁর স্ত্রীর বিভিন্ন খরচ চলত। তার ওপর ছিল নিজের জন্য দামি দামি সব স্কচ। সেই খরচও ছিল আকাশছোঁয়া। এ প্রসঙ্গে সম্প্রতি দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে বর্তমানে বলিপাড়ার তারকাদের আর্থিক পরিস্থিতির সঙ্গে পাঁচ থেকে সাতের দশকের তারকাদের আর্থিক পরিস্থিতিটির তুলনা টানলেন রণধীর।

বর্ষীয়ান বলি-অভিনেতার কথায়, ' এখনকার বলি-তারকারা বছরে একটি ছবি করে। ছবি ছাড়াও রোজগারের অনেক উপায় থাকে। বিজ্ঞাপন, বা কোনও এক সংস্থার এনডর্সমেন্ট, বিভিন্ন অনুষ্ঠানে মুখ দেখানো। সেসবের জন্য বেশ মোটা টাকা তাঁদের আয় হয়। কিন্তু আমাদের সময় এসব কিছুই ছিল না। তার ওপর অভিনয়ের পারিশ্রমিকও এমন আকাশছোঁয়া ছিল না। তাই একটি বছরে একটি ছবি করলে পোষাত না। সারা বছর অমানুষিক পরিশ্রম করতাম সংসার চালানোর খরচ ওঠানোর জন্য'।

এই প্রসঙ্গে রণধীরের আক্ষেপ যদি এই সময়ে তাঁর বয়সটা তরুণ হতো তাহলে বড় ভালো হতো। তবে একটি ছবি করলেই অনেক টাকা রোজগার করে ফেলতেন। কারণ ওঁদের সময়ের তুলনায় বর্তমানে একটি ছবি পিছু অভিনয়ের পারিশ্রমিক অনেক, অনেক বেশি।

বন্ধ করুন