বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > 'কুছ কুছ হোতা হ্যায়'-এর ‘টিনা’র হয়ে সাফাই দিলেন রানি, বাঁচালেন ‘রাহুল’-কেও
'কুছ কুছ হোতা হ্যায়' ছবির সুবাদে প্রথমবার একসঙ্গে স্ক্রিনে হাজির হয়েছিলেন শাহরুখ, কাজল, রানি।
'কুছ কুছ হোতা হ্যায়' ছবির সুবাদে প্রথমবার একসঙ্গে স্ক্রিনে হাজির হয়েছিলেন শাহরুখ, কাজল, রানি।

'কুছ কুছ হোতা হ্যায়'-এর ‘টিনা’র হয়ে সাফাই দিলেন রানি, বাঁচালেন ‘রাহুল’-কেও

  • 'কুছ কুছ হোতা হ্যায়' ছবিতে ‘রাহুল’ এবং ‘টিনা’ সম্পর্কিত যাবতীয় বিতর্কে মুখ খুললেন রানি মুখোপাধ্যায়। 

১৯৯৮ সালে করণ জোহরের পরিচালনায় বক্স অফিস কাঁপিয়ে মুক্তি পেয়েছিল 'কুছ কুছ হোতা হ্যায়'। এই ছবি পরিচালককে এক ধাক্কায় লাইমলাইটে এনে ফেলার পাশাপাশি এক ধাক্কায় এগিয়ে দিয়েছিল ছবির তিন মুখ্য তারকা শাহরুখ, কাজল ও রানি মুখোপাধ্যায়ের কেরিয়ারগ্রাফ-ও। তবে হিন্দি ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রি সাবালক হয়ে ওঠার পরপর বিগত বেশ কয়েক বছর ধরে 'কুছ কুছ হোতা হ্যায়' ছবি ঘিরে তৈরি হয়েছে একাধিক বিতর্কও। ছবিতে শাহরুখ খান অভিনীত 'রাহুল' চরিত্রটির মানসিকতা নিয়ে প্রশ্ন ওঠার পাশাপাশি কথা বলা হয়েছে রানি অভিনীত 'টিনা' চরিত্রটি নিয়েও। এবার সেসব নিয়ে মুখ খুললেন 'মর্দানি' অভিনেত্রী রানি স্বয়ং।

সম্প্রতি দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে 'কুছ কুছ হোতা হ্যায়' ছবির 'রাহুল' ও 'টিনা চরিত্র দু'টির স্বপক্ষে মুখ খুলেছেন রানি। জানিয়েছেন সেই ছবিতে 'টিনা' শুধুই একজন আধুনিক ও চোখ কপালে তোলার মত সুন্দরী হিসেবে 'আই ক্যান্ডি' ছিল না। এরই সঙ্গে সে যেমন একজন দয়ালু মানুষ ছিল তেমনই কোনওকিছুতে সহজে তাঁর মন গলত না। এই দুই গুণের ফলে তাঁর প্রতি 'রাহুল'-এর আগ্রহ উত্তরোত্তর বেড়েছিল। তাছাড়া বিলেতে বড় হলেও টিনার শিকড় ছিল ভারতবর্ষ। তাই তো মাইক্রো মিনি স্কার্ট পরে কলেজ হাজির হলেও, ভরা ক্যাম্পাসে 'ওম জয় জগদীশ' নিখুঁত সুরে গেয়ে উঠেছিল সে।

সামান্য থেমে 'টিনা'-র হয়ে রানির সাফাই, ' এছাড়াও টিনা অত্যন্ত বুদ্ধিমান ও সেনসেটিভ একজন মানুষ ছিল। তাই তো রাহুল এবং অঞ্জলি (কাজল) -র বন্ধুত্বের খোলসে আদতে লুকিয়ে রয়েছে পরস্পরের প্রতি তীব্র ভালোবাসা তা তাঁরা নিজেরা না বুঝলেও, বুঝেছিল টিনা। তাই তো মৃত্যুর আগে নিজের মেয়েকে দায়িত্ব দিয়ে গেছিল সে যেন রাহুল এবং অঞ্জলি ভালোবাসার সার্থক ফলাফল তৈরি করতে সাহায্য করে।'

 

বন্ধ করুন