বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > Ranveer Singh on his intelligence: তাঁর মাথায় গণ্ডগোল আছে, ছোটবেলায় দৃঢ় বিশ্বাস ছিল রণবীরের

Ranveer Singh on his intelligence: তাঁর মাথায় গণ্ডগোল আছে, ছোটবেলায় দৃঢ় বিশ্বাস ছিল রণবীরের

তাঁর মাথায় গণ্ডগোল আছে, ছোটবেলায় দৃঢ় বিশ্বাস ছিল রণবীরের

Ranveer Singh on his intelligence: খুব অল্প বয়স থেকেই নাকি রণবীর জানতেন যে তাঁর মস্তিষ্কের ডানদিকের অংশ ভালো কাজ করে বাঁদিকের তুলনায়। কিন্তু কেন তিনি এমনটা মনে করতেন? কী জানালেন সাক্ষাৎকারে?

ছোট থেকেই ভীষণই ক্রিয়েটিভ মানুষ ছিলেন রণবীর সিং। তিনি নাকি কখনই অ্যানালিটিক্যাল বা স্ট্র্যাটেজি প্ল্যান করে চলার মতো মানুষ ছিল না। এমনটা সম্প্রতি তিনি একটি সাক্ষাৎকারে জানালেন। তাঁকে যখন প্রশ্ন করা হয় যে তিনি এই বিনোদন জগতে কীভাবে নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করলেন, সেই প্রশ্নের উত্তরে অভিনেতা জানান, তাঁর মস্তিষ্কের ডানদিকের জন্যই নাকি এটা সম্ভব হচ্ছে। মস্তিষ্কের বাঁদিকের তুলনায় নাকি তাঁর ডানদিক বেশি কাজ করে। আর যাঁদের মস্তিষ্কের ডানদিক বেশি কাজ করে তাঁরা যে ক্রিয়েটিভ, ইমোশনাল হন এ কথা তো সকলেরই জানা। অন্যদিকে বাঁদিকের অংশ বেশি সক্রিয় হলে মানুষ অনেক বেশি লজিক্যাল, অ্যানালিটিক্যাল হন।

রণবীর জানান তিনি ছোট থেকেই ক্রিয়েটিভ ছিলেন। সেই তুলনায় অঙ্ক তেমন পারতেন না। ফলে তিনি মনে করতেন তাঁর মস্তিষ্কের বাঁদিকে নিশ্চয় কোনও শর্ট সার্কিট হয়েছে!

অভিনেতা জানান তিনি এই সিনে দুনিয়ায় টিকে আছেন কারণ তিনি একজন ক্রিয়েটিভ মানুষ। যদিও তিনি তাঁর সাপোর্ট সিস্টেমদের অনেকটাই ডিপেন্ড করেন। আর তাঁর যাঁরা সাপোর্ট সিস্টেম, সব সময় পাশে থাকেন তাঁরাই অনুপ্রেরণা দিয়ে, ভরসা জুগিয়ে তাঁর কেরিয়ার গড়ে তুলতে সাহায্য করেছেন, অনেক বেশি স্ট্র্যাটেজিক করে তুলেছেন। তিনি আরও জানান একটা সময় পর্যন্ত নাকি তাঁকে অঙ্ক বা অ্যাকাউন্টসের মতো বিষয় নিয়ে হাবুডুবু খেতে হতো! তাই তিনি এগুলোর তুলনায় সবসময় আঁকা, নাটক, নাচ, গান করতে ভালোবাসতেন ছোটবেলায়।

ফেমিনাকে দেওয়া একটি সাক্ষাৎকারে তিনি সম্প্রতি জানান, 'দীর্ঘদিন আমি এটা বিশ্বাস করে এসেছি যে আমার মাথার বাঁদিকে একটা শর্ট সার্কিট আছে। আমি অঙ্ক এবং অ্যাকাউন্টসে ভালো ছিলাম না। আমি ছোট থেকেই জানতাম আমি কিসে দক্ষ। আমার মস্তিষ্কের ডানদিক যে অনেক বেশি সক্রিয় সেটা আমি বুঝেছিলাম। শুধু তাই নয়, আমার কোনও সন্দেহ ছিল না সেই বিষয়ে। আমি অনেক বেশি পারদর্শী ছিলাম নাচ, গান, আঁকা, নাটকে।'

তিনি এই সাক্ষাৎকারে আরও বলেন, 'মুভি দুনিয়ায় থাকতে গেলে আপনাকে স্মার্ট হতে হবে। এবং সৌভাগ্যবশত আমি এমন কিছু মানুষের সংস্পর্শে সবসময় থেকেছি যাঁরা আমার সাপোর্ট সিস্টেম। আমি যেটাতে দুর্বল তাঁরা আমার হয়ে সেটা করে দিয়েছেন। আমি একজন ক্রিয়েটিভ মানুষ আর এটা আমি আমার মধ্যে দারুণভাবে বাঁচিয়ে রাখি। অন্যদিকে তাই অ্যানালিটিক্যাল এবং স্ট্র্যাটেজিক জিনিস আমি আমার সাপোর্ট সিস্টেমদের উপর ছেড়ে রাখি। ওঁরা ওটা ভালো বোঝে।'

রণবীরকে শেষবার সার্কাস ছবিতে দেখা গিয়েছিল। রোহিত শেঠির এই ছবিটি দর্শকদের থেকে তেমন সাড়া পায়নি। বক্স অফিসে ফ্লপ করেছে ছবিটি। এর আগে তাঁকে ফিফা বিশ্বকাপে দেখা গিয়েছে। সেখানে তাঁর স্ত্রী এবারের বিশ্বকাপ ট্রফির উপর থেকে পর্দা সরিয়েছেন।

বন্ধ করুন