বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > হৃদরোগে আক্রান্ত কপিল দেবের দ্রুত আরোগ্য কামনায় পর্দার ‘কপিল’ রণবীর সিং
রিল-রিয়েল পাশাপাশি (ফাইল ছবি)
রিল-রিয়েল পাশাপাশি (ফাইল ছবি)

হৃদরোগে আক্রান্ত কপিল দেবের দ্রুত আরোগ্য কামনায় পর্দার ‘কপিল’ রণবীর সিং

  • এদিন টুইট বার্তায় কপিল দেবকে ‘শক্তি ও সহনশীলতা’র প্রতীক বলে উল্লেখ করেন রণবীর।
  •  কবীর খানের ৮৩ ছবিতে কপিলের ভূমিকায় অভিনয় করছেন রণবীর সিং।

বুকে ব্যথা নিয়ে বৃহস্পতিবার গভীর রাতে দিল্লির ফর্টিস হাসপাতালের ইমার্জেন্সি বিভাগে ভর্তি হন কপিল দেব। হাসপাতালের তরফে কপিলের হৃদরোগে আক্রান্ত হওয়ার কথা জানিয়ে দেওয়া হয়- এরপরই চরম উত্কন্ঠায় ভুগতে শুরু করেন কপিল দেব ভক্তরা। ২০২০ সালে একের পর এক খারাপ খবর ও করোনা পরিস্থিতির ধাক্কা সামলে ক্লান্ত দেশবাসী- দ্রুত সেরে উঠুন ‘হরিয়ানা হ্যারিকেন’ এমনটাই প্রার্থনা চলে দিনভর। পিছিয়ে থাকেননি পর্দার কপিল দেব অর্থাত্ রণবীর সিংও। 

টুইটারে কপিল দেবের দ্রুত আরোগ্য কামনা করে রণবীর লেখেন- ‘কিংবদন্তী কপিল দেব হলেন শক্তি এবং সহনশীলতার প্রতীক- আমার আসল মানুষটির দ্রুত আরোগ্য কামনা করছি’। 

১৯৮৩ সালে ভারতের প্রথম ক্রিকেট বিশ্বকাপ জয়ের কাণ্ডরি কপিল দেবের পরিস্থিতি আপতত স্থিতিশীল। বৃহস্পতিবার রাতেই তাঁর অ্যাঞ্জিওপ্লাস্টি করা হয়েছে বলে জানা গিয়েছে। শুক্রবার রাতে নিজের সুস্থতার খবর জানিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্টও করেন ৬১ বছর বয়সী তারকা। কপিল দেব লেখেন- ‘ভালোবাসা ও উদ্বেগ প্রাকাশ করার জন্য প্রত্যেককে ধন্যবাদ। সবার শুভকামনায় আমি অভিভূত এবং সুস্থ হয়ে ওঠার পথে যথাযথ এগচ্ছি।’

শীঘ্রই রুপোলি পর্দায় কপিল দেবের ভূমিকায় দেখা যাবে রণবীরকে। কবীর খানের ৮৩ ছবিতে ফুটে উঠবে  কপিলের নেতৃত্বে ভারতীয় ক্রিকেট দলের ১৯৮৩-এর ক্রিকেট বিশ্বকাপ জয়ের সোনালি ইতিহাসের বাস্তব কাহিনি। ফিল্মে কপিল দেব পত্নীর চরিত্রে অভিনয় করছেন দীপিকা পাড়ুকোন। চলতি বছর ক্রিসমাসে থিয়েটারে মু্ক্তি পাবে এই ছবি। করোনা আবহে সিনেমা হল খোলার পর সেই অর্থে বলিউডে প্রথম বড় রিলিজ ৮৩।

শুধু রণবীরই নন, কিং খানও কপিল দেবের মঙ্গল কামনা করে টুইট করেন। শাহরুখ খান লেখেন- ‘তাড়াতাড়ির থেকে শীঘ্র সুস্থ হয়ে উঠুন পাজি। যেমন দ্রুত আপনি বোলিং ও ব্যাটিং করতেন, ঠিক সেরকমই তাড়াতাড়ি সেরে উঠুন। আপনার জন্য অনেক ভালোবাসা স্যার।’

কপিল দেবের শারীরিক পরিস্থিতি নিয়ে হাসপাতালের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, ‘এই মুহূর্তে ডাক্তার অতুল মাথুর ও তাঁর দলের নজরদারিতে আইসিএউতে রয়েছেন তিনি। কপিল দেবের শারীরিক অবস্থা আপাতত স্থিতিশীল। আশা করা হচ্ছে দিন দু’য়েকের মধ্যেই তাঁকে ছেড়ে দেওয়া হবে।'

বন্ধ করুন