বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > ভূষণ কুমার ধর্ষণ মামলা: অভিযোগকারিণীর ‘সঙ্গী’র নামে FIR দায়ের আম্বলি পুলিশে
ভূষণ কুমার। (ফাইল ছবি)
ভূষণ কুমার। (ফাইল ছবি)

ভূষণ কুমার ধর্ষণ মামলা: অভিযোগকারিণীর ‘সঙ্গী’র নামে FIR দায়ের আম্বলি পুলিশে

  • টাকা না দিলে মিডিয়ার কাছে যাওয়ার ও খুন করার ধমকিও দিয়েছিলেন ওই ব্যক্তি। 

ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে বলিউডের সবচেয়ে বড় মিউজিক লেবেল টি-সিরিজের কর্ণধার ভূষণ কুমারের বিরুদ্ধে। এক ৩০ বছরের মহিলাকে কাজ পাইয়ে দেওয়ার নাম করে নাকি তাঁকে ধর্ষণ করেন ভূষণ কুমার। অভিযোগকারিণীর দাবি, ২০১৭ সালে থেকে ২০২০ সাল পর্যন্ত ভূষণ কুমার তাঁকে বহুবার ধর্ষণ করেছে, তাঁর ফোটো ও ভিডিয়ো ফাঁস করে দেওয়ার ভয় দেখিয়ে। তবে, ২৪ ঘণ্টার মধ্যেই মামলায় এল নতুন মোড়। শুক্রবার রাতে আম্বোলি পুলিশের কাছে অভিযোগকারিনীর ‘সাপোর্ট’ হিসেবে পরিচিত জনৈকের নামে জমা হল তোলাবাজির অভিযোগ। 

ওই ব্যক্তির নাম মল্লিকার্জুন পুজারি। ভূষণ কুমারের বিরুদ্ধে ধর্ষণের মামলা দায়ের করার সময় অভিযোগকারিণী মল্লিকার্জুনকে নিজের ‘সাপোর্ট’ হিসেবে পরিচয় দিয়েছেন। জানিয়েছেন, তাঁর কথাতেই পুলিশে অভিযোগ করার সাহস দেখিয়েছেন। ওই ব্যক্তিই তাঁকে আশ্বস্ত করেছে বারবার। প্রসঙ্গত, মল্লিকার্জুন পুজারির নামে অভিযোগ এনেছেন ভূষণ কুমারের আত্মীয় কৃষণ কুমার দুয়া। 

কৃষাণ কুমারের দাবি, ভূষণ ৩ জুলাই থেকে ১০ জুলাইয়ের মধ্যে একাধিকবার মল্লিকার্জুন পুজারির কাছ থেকে ফোন পেয়েছিলেন। জানানো হয়েছিল, ভূষণ টাকা দিলে ওই মডেল আর কোনও অভিযোগ দায়ের করবে না পুলিশে। এমনকী, টাকা না দিলে মিডিয়ার কাছে যাওয়ার ও খুন করার ধমকিও দেওয়া হয়েছিল। ভারতীয় দণ্ডবিধির ৩৮৬, ৫০০, ৫০৬ ধারায় মামলা দায়ের করা হয়েছে। ওই ব্যক্তির সঙ্গে অভিযোগকারিণীর কী সম্পর্ক, ওই ব্যক্তির ফোন রেকর্ডস খতিয়ে দেখছে পুলিশ। 

ভূষণ কুমারের বিরুদ্ধে এই ধরণের অভিযোগ নতুন নয়। ২০১৮ সালে মি টু-র কাঁটায় জেরবার হয়েছিলেন প্রযোজক। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক অভিনেত্রী জানিয়েছিলেন, ছবিতে কাজের অফার দিয়ে শারীরিক সম্পর্কে লিপ্ত হওয়ার প্রস্তাব দেন ভূষণ কুমার। আর রাজি না হওয়ায় বাদ পড়েছিলেন তিনি। যদিও সেই সময় সেসব অভিযোগ 'ভুয়ো ও ভিত্তিহীন' বলে উড়িয়ে দিয়েছিলেন ভূষণ।

বন্ধ করুন