সঞ্চালক সলমনও জানালেন এরকম ঝামেলার সাক্ষী আগে হতে হয় নি তাকে (সৌজন্যে-কার্লাস)
সঞ্চালক সলমনও জানালেন এরকম ঝামেলার সাক্ষী আগে হতে হয় নি তাকে (সৌজন্যে-কার্লাস)

সিদ্ধার্থের 'এয়সি লড়কি' মন্তব্যের জেরে উত্তাল বিগ বসের ঘর

  • রশমি দেশাই এবং সিদ্ধার্থ শুক্লার ঝগড়া এদিন শোয়ের গন্ডি ছাড়িয়ে ব্যক্তিগত পর্যায়ে পৌঁছে যায়। তাঁদের সমলাতে হিমসিম খান দাবাং খানও।
  • মল্লিকা শেরাওয়াতের সঙ্গে এদিন মজাদার গেম খেলতে দেখা গেল সলমন খানকে।

রবিবার বিগ বসের ঘরে যা ঘটল তা সত্যিই অভাবনীয়! বিগ বসের ইতিহাসে এত বিস্ফোরক এপিসোড আগে দেখা গিয়েছে বলে মনে পড়ে না। রশমি দেশাই এবং সিদ্ধার্থ শুক্লার ঝগড়া একসময় শোয়ের গন্ডি ছাড়িয়ে ব্যক্তিগত পর্যায়ে পৌঁছে যায়। তাদের সমলাতে হিমসিম খান দাবাং খানও। এদিন সিদ্ধার্থ শুক্লার গায়ে অ্যাসিড ছোঁড়ার হুমকিও দিলেন রশমির বিশেষ বন্ধু আরহান খান।

এদিনের এপিসোডে সলমন খান আরও জানান, ভয় পেয়ে চ্যানেল কর্তৃপক্ষ 'সুলতানি আখাড়া' বন্ধ করে দিয়েছে। তারা মনে করছে এই আখাড়ায় নিজেদের ব্যক্তিগত রাগ উগড়ে একে অপরকে আঘাত করতে পারেন চলতি সিজনের প্রতিযোগীরা।



শুরুতেই সলমন পরশ এবং আসীমের কাছে জানতে চান ডাইনিং টেবিলে তাঁদের ঝগড়ার ঘটনাটি কেন ঘটল? দুজনেই ভাইজানকে জানান, একে অপরের পরিবারের বিরুদ্ধে কটুক্তি করেছেন তারা। এই ঝগড়ার মাসে আসীম সিদ্ধার্থকে টেনে তাকে ডন বলে সম্বোধন করেন।

এরপর সলমন রশমি, শেহনাজ এবং শেফালি জরিওয়ালার কাছে জানতে চান পরশ, সিদ্ধার্থ এবং মাহিরা কি তাদের টার্গেট করে? শেহনাজ, শেফালি দুজনেই জানায় এখানে সকলেই সকলকে টার্গেট করে। সবাই সমান দোষী।

বিকাশ গুপ্তা গোটা পরিস্থিতি সম্পর্কে জানান, একজন মানুষকে সারাক্ষণ যদি আপনি খোঁচা দিতে থাকেন তাহলে কি তার পক্ষে মাথা ঠান্ডা রাখা সম্ভব? সেটা করতে থাকলে দুইপক্ষই ঝামেলায় জড়িয়ে পড়ে।

এরপর আসে রশমি-সিদ্ধার্থের কাছে প্রশ্ন রাখেন বিগ বসের সঞ্চালক। সলমন জানতে চান ‘এয়সি লড়কি’র অর্থ কি? নিজের পক্ষ রেখে সিদ্ধার্থ বলেন তাঁর কোনও খারাপ অর্থ ছিল না, এয়সি লড়কি মানে রেশমি যেমন মেয়ে তেমন। যদিও সিদ্ধার্থের এই তত্ত্ব মানতে চান নি রশমি।

এরপর রশমিরও ক্লাস নিলেন ভাইজান। সিদ্ধার্থকেও অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করেন রশমি। যার অধিকাংশই দর্শকদের জন্য মিউট করে দিতে হয়েছিল চ্যানেল কর্তৃপক্ষকে। এমনকি সিদ্ধার্থের গায়ে গরম চা ঢেলে দেন রশমি। রশমি জানান, ‘সিদ্ধার্থ তাঁকে বলেছিল, বাড়িতে ডাকা বন্ধ করে দিয়েছি তোকে, এই কথাটা আমার তরফে সহ্য করা সম্ভবকর ছিল না’।

সিদ্ধার্থ উত্তরে জানান, এই কথার অর্থ একটা সময় রশমি তাঁর বাড়িতে নিয়মিত আসতেন। তবে এখন সেটা বন্ধ করে দিয়েছেন সিদ্ধার্থ। এই কথার মধ্যে কোনও খারাপ অর্থ খুঁজলে সেটা রশমির সমস্যা।

রেগে গিয়ে সলমন জানান, তোমরা তোমাদের অতীতকে কেন খুঁড়ে বার করছো?

প্রসঙ্গত কার্লাসের জনপ্রিয় শো দিল সে দিল তক-এর জুটি সিদ্ধার্থ-রশমি। তবে শো চলাকালীনও দুজনের সমস্যার খবর সংবাদ শিরোনামে এসেছিল। প্রথমে প্রেম তার পর ব্রেক আপ, তবে কোনওদিন এই ব্যাপারে মুখ খোলেন নি সিদ্ধার্থ-রশমি।

সিদ্ধার্থ আগেও অনেকবার রশমিকে মিছরির ছুরি বলে উল্লেখ করেছেন। এদিনও সিদ্ধার্থ অভিযোগ জানান মহিলা হওয়ার ফায়দা লুটবার চেষ্টা করেন রশমি। জানান, ‘প্রথমে ঝগড়া করবে, গালিগালাজ করবে তারপর বলবে আমি মেয়ে আমাকে এটা কি করে বললে? রশমির কাছে তাঁর আত্মসম্মান যতটা গুরুত্বপূর্ন আমার কাছেও ততটাই গুরুত্বপূর্ন’।

সলমনের সঙ্গে মজাদার গেম খেললেন মল্লিকা (সৌজন্যে- কালার্স)
সলমনের সঙ্গে মজাদার গেম খেললেন মল্লিকা (সৌজন্যে- কালার্স)



তবে গোটা এপিসোডেই যে ঝগড়া আর ঝামেলা দেখানো হয়েছে তেমনটা নয়। শনিবারের পর রবিবারের এপিসোডেও দেখা মিলল মল্লিকা শেরাওয়াতের। এদিন ভাইজানের সঙ্গে মজাদার গেম খেললেন মল্লিকা। পুননির্মাণ করলেন মেয়নে প্যায়ার কিয়া ছবির আইকোনিক দৃশ্য।

বন্ধ করুন