বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > জামাইবাবুকে নিয়ে গুজব রটায় আত্মহত্যার চেষ্টা করেছিল নায়িকার বোন, বিস্ফোরক রবিনা
রবিনা টন্ডন (ফাইল ছবি) (HT_PRINT)

জামাইবাবুকে নিয়ে গুজব রটায় আত্মহত্যার চেষ্টা করেছিল নায়িকার বোন, বিস্ফোরক রবিনা

  • সোশ্যাল মিডিয়া কেন আজকের তারকাদের জন্য আর্শীবাদ, বাখ্যা করলেন রবিনা টন্ডন। 

সময়ের সঙ্গে সঙ্গে দেশের 'ট্যাবলয়েড কালচার'-এ যে পরিবর্তন এসেছে তাতে খুশি রবিনা টন্ডন। নব্বইয়ের দশকের অন্যতম জনপ্রিয় অভিনেত্রী তিনি, রবিনার কথায় তখনকার দিনে নিজেদের অবস্থান স্পষ্ট করবার জন্য সোশ্যাল মিডিয়া ছিল না তারকাদের কাছে। এর জেরে প্রায়ই ম্যাগাজিনে ফিল্মস্টারদের নিয়ে মিথ্যা রটনা, কিংবা প্রেমের মুচমুচে গল্প ছাপা হত বিক্রি বাড়ানোর জন্য। রবিনা বললেন, ‘আজ ভাগ্যিস সোশ্যাল মিডিয়া রয়েছে’। 

রবিনা সম্প্রতি এক সাক্ষাত্কারে জানিয়েছেন, সেই সময় উঠতি তারকাদের অনেক সময়ই নির্দিষ্ট কিছু ম্যাগাজিনের সম্পাদকদের ‘মুখাপেক্ষী’ হয়ে থাকতে হত। অতীতের এক তিক্ত স্মৃতিও ভাগ করে নেন রবিনা, যখন তাঁর নামে ছড়িয়ে পড়া রটনার জেরে আত্মহত্যার চেষ্টা করেছিল এক মহিলা। 

রবিনা জানান, ‘আজকাল তো একটা ভীষণ পজেটিভ চেঞ্জ এসেছে। সত্যি বলতে তখন বডি শেমিংয়ের শিকার হতে হত, ব্যক্তিগতভাবে আক্রমণ করা হত। গুজব তো আগুনের মতো ছড়িয়ে পড়ত। আজ তো সোশ্যাল মিডিয়া রয়েছে, যেখানে আপনি সঙ্গে সঙ্গে প্রমাণসহ সত্যিটা তুলে ধরতে পারেন। কিন্তু আমাদের সময় ওইসব ছিল না। আপনাকে ম্যাগাজিনের এডিটরদের মুখাপেক্ষী হয়ে থাকতে হত। যারা আপনার নামে ভুলভাল গল্প লিখত, আর হেডলাইন হিট মানে তো সেটা আপনার মানসিক স্বাস্থ্যকে আঘাত করবেই’। 

রবিনা আরও যোগ করেন, ‘আমার মনে পড়ে একজন খুব সিনিয়র অভিনেত্রীর বোন আত্মহত্যার চেষ্টা করেছিল কারণ সে নাকি তাঁর নিজের দিদির বরকে পটানোর চেষ্টা করছে এমন গসিপ লেখা হয়েছিল তাঁকে নিয়ে। সে আমার জিমেই আসত, ঘুমের ওষুধ খেয়ে আত্মহত্যার চেষ্টা করেছিল সে শুধুমাত্র তাঁকে নিয়ে মিথ্যা গুজব লেখায়। আমাকে নিয়েও যা ভুলভাল খবর লেখা হত, ফিরে তাকালে মনে হয় ওইসব লোকগুলোকে আদালতে টেনে নিয়ে যাওয়া উচিত ছিল’। 

সম্প্রতি নেটফ্লিক্সের সিরিজ ‘আরণ্যক’-এ দেখা মিলেছে রবিনার। সিরিজে জাঁদরেল পুলিশ অফিসারের ভূমিকায় নজর কেড়েছেন রবিনা। 

 

 

বন্ধ করুন