বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > Ayesha Kapur: ‘ব্ল্যাক’-এর সেই জেদি শিশুশিল্পীর কথা মনে আছে? আয়েশা ফিরছেন বড় পর্দায়
পর্দায় ফিরছেন ‘ব্ল্যাক’ ছবির শিশুশিল্পী আয়েশা

Ayesha Kapur: ‘ব্ল্যাক’-এর সেই জেদি শিশুশিল্পীর কথা মনে আছে? আয়েশা ফিরছেন বড় পর্দায়

  • লিড চরিত্র হিসেবে বলিউডে ডেবিউ করছেন আয়েশা। ‘হরি ওম’ ছবিতে নায়িকা হবেন তিনি। ‘ব্ল্যাক’ ছবির শিশুশিল্পী আয়েশা এখন হিন্দি শিখছেন অভিনয়ের জন্য।

পরিচালক সঞ্জয় লীলা বনশালির ‘ব্ল্যাক’। ২০০৫ সালে বড় পর্দায় মুক্তি পেয়েছিল এই ছবি। ছোট্ট ৬ বছরের মেয়েকে ঘিরে আবর্তিত হয়েছিল ছবির গল্প। যার নাম মিশেল। যে কানে শুনতে পেত না, চোখে দেখত না। কিন্তু অসম্ভব জেদ ছিল তাঁর মধ্যে। সেই ছোট্ট মেয়ের শিক্ষক ছিল অমিতাভ বচ্চন। বিগ বি-র চরিত্রে নাম ছিল দেবরাজ।

ছোট্ট মিশেলের চরিত্রে, বয়স বাড়লে সেই চরিত্রে আসেন রানি মুখোপাধ্যায়। সময় পেরিয়েছে। এখন সেই ছোট্ট মিশেল অনেকটাই বড় হয়ে গিয়েছে। কিন্তু সে এখন কোথায়? কী করছে? পর্দার মিশেলের আসল নাম আয়েশা কাপুর। এখন তাঁর বয়স ২৮ বছর। পড়াশোনার জন্য নিউ ইয়র্কের কলোম্বিয়াতে ছিলেন তিনি। আরও পড়ুন: ১.৪ কোটির BMW-র ইলেকট্রিক গাড়িতে চেপে অর্পিতা খানের বাড়ির পুজোয় রিতেশ-জেনেলিয়া

ফের অভিনয় জগতে ফিরছেন আয়েশা। নতুন সিনেমায় অভিনয় করার জন্য গত ৬ মাস ধরে তালিম নিচ্ছেন। ‘হরি ওম’ ছবিতে অংশুমান ঝা-এর বিপরীতে দেখা যাবে তাঁকে। কুলবিন্দর বকশিশের কাছে হিন্দির উচ্চারণ শিখছেন আয়েশা। আসন্ন এই ছবিতে বলতে গেলে মূল চরিত্র আয়েশারই। তাই সেক্ষেত্রে ভাষার দক্ষতা জরুরি বলেই মনে করছেন নির্মাতারা। আরও পড়ুন: সিদ্ধার্থের প্রথম মৃত্যুবার্ষিকীতে কেন এতটা নিশ্চুপ! কী বলছেন শেহনাজ ঘনিষ্ঠরা?

নিজের আসন্ন ছবি সম্পর্কে কথা বলতে গিয়ে আয়েশা জানিয়েছেন, ‘অভিনয়ে ফিরে আসা নিয়ে আমার মধ্যে উত্তেজনা কাজ করছে। ‘হরি ওম’ একটি মিষ্টি, পারিবারিক ছবি, যা সব বয়সি মানুষকেই কোনও না কোনও ভাবে স্পর্শ করবে। হরিশ স্যার যে সারল্য দিয়ে গল্প লেখেন, যে ভাবে তার চরিত্রগুলিকে ফুটিয়ে তোলেন, আমি বেশ ভালো লাগে। খুব বাস্তব মনে হয়।’ আরও পড়ুন: বুক, পেট, পিঠ, কোমর টলি নায়িকাদের কোথায় কোথায় ট্যাটু আছে? দেখলে চমকে উঠবেন!

রঘুবীর যাদব, সোনি রাজদানের মতো অভিনেতাদের সঙ্গে ফ্রেম ভাগ করে নেবেন আয়েশা। তাঁর কথায়, ‘তাঁদের সঙ্গে একই ফ্রেমে কাজ করার উত্তেজনা তো রয়েছেই। অনেক কিছু শিখতে পারব। অংশুমানের মতো গুণী অভিনেতার বিপরীতে কাজ করাও আনন্দের। মধ্যপ্রদেশে শ্যুটিং শুরুর অপেক্ষায় রয়েছি।’ সেপ্টেম্বরেই শুরু হচ্ছে এই ছবির শ্যুটিং। মধ্যপ্রদেশে ভোপালের বিভিন্ন অংশে শ্যুটিং হওয়ার কথা রয়েছে। 

বন্ধ করুন