বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > রবীন্দ্রনাথের সঞ্চয়িতা হাতে রিয়া,গীতাঞ্জলির কবিতা টেনে বললেন ‘বিশ্বাস’-এর কথা
সঞ্চয়িতা হাতে রিয়া
সঞ্চয়িতা হাতে রিয়া

রবীন্দ্রনাথের সঞ্চয়িতা হাতে রিয়া,গীতাঞ্জলির কবিতা টেনে বললেন ‘বিশ্বাস’-এর কথা

  • রবীন্দ্রনাথের লেখনির মধ্যেই নিজের বিশ্বাসকে ধরে রাখবার মন্ত্র খুঁজছেন রিয়া চক্রবর্তী। 

রবীন্দ্রনাথকে ছাড়া অসম্পূর্ণ বাঙালির জীবন। আপনি বাংলা থেকে দূরে থাকলেও রবীন্দ্রনাথকে ভুলে থাকা অসম্ভব। রবিবাসরীয় দুপুরে সঞ্চয়িতা হাতে দেখা মিলল চর্চার কেন্দ্রবিন্দুতে থাকা প্রবাসী বাঙালি নায়িকা রিয়া চক্রবর্তীর। সুশান্ত মামলার মূল অভিযুক্ত রবি ঠাকুরকে স্মরণ করেই  মনের শান্তির ঠিকানা খুঁজলেন। 

‘আরাে আঘাত সইবে আমার, সইবে আমারো।আরাে কঠিন সুরে জীবনতারে ঝঙ্কারো’, রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের এই বাণীগুলি স্মরণ করেই জীবনের সব বাধা কাটিয়ে উঠবার চেষ্টা চালাচ্ছেন রিয়া। এদিন ইনস্টাগ্রামে সঞ্চয়িতা হাতে গীতালঞ্জলির একটি উদ্ধৃতি তুলে ধরলেন অভিনেত্রী। সেই নিয়েই হইচই কাণ্ড সোশ্যাল মিডিয়ায়।

এই পোস্টের সঙ্গে হ্যাশট্যাগে রিয়া জুড়ে দেন, ‘কিপিং দ্য ফেথ’ অর্থাত্ তিনি বিশ্বাস ধরে রেখেছেন। কার প্রতি এই আস্থা রিয়ার? মানবতার প্রতি, দেশের বিচার ব্যবস্থার প্রতি না অন্য কিছু? সেই নিয়ে অবশ্য স্পষ্ট করে কিছু বলেননি নায়িকা। রিয়ার এই পোস্টের কমেন্ট বক্সে বান্ধবী শিবানি দান্ডেকর লেখেন, ‘অনেক ভালোবাসা’। বহু নেটনাগরিকরাই রিয়ার প্রশংসা করেছেন, লিখেছেন- লড়াই চালিয়ে যাও। কেউ কেউ প্রশ্ন করেছেন, ‘তুমি বাংলা পড়তে জানো?’ তবে বাঙালি নেটনাগরিকরা অবশ্য পালটা প্রশ্ন করেছেন, সঞ্চয়িতা হাতে গীতাঞ্জলির লাইন উদ্ধৃত করতে গেলেন কেন?

সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যুর পর নেটদুনিয়ায় ব্যাপক রোষের মুখে পড়েছেন রিয়া। দীর্ঘসময় সোশ্যাল মিডিয়া থেকে দূরে থাকবার পর গত মাসে, আন্তর্জাতিক নারী দিবসে কামব্যাক করেন অভিনেত্রী। এই নিয়ে গত এক মাসে তৃতীয় বার সোশ্যাল মিডিয়ায় নিজেকে অনুভূতি মেলে ধরলেন রিয়া চক্রবর্তী।

দু-দিন আগেই মু্ম্বইয়ের গেটওয়ে অফ ইন্ডিয়াতে লেন্সবন্দি হয়েছিলেন রিয়া চক্রবর্তী। সঙ্গে ছিলেন অভিনেতা শাকিব সালিমও। সূত্রের খবর, অভিনেতার জন্মদিন সেলিব্রেট করতে আলিবাগে পৌঁছেছিলেন তাঁরা। 

বন্ধ করুন