বাড়ি > বায়োস্কোপ > সুশান্তের ‘বিধবা’ সাজার চেষ্টা করছে অঙ্কিতা, বিস্ফোরক মন্তব্য রিয়ার
অঙ্কিতা লোখান্ডে ও রিয়া চক্রবর্তী 
অঙ্কিতা লোখান্ডে ও রিয়া চক্রবর্তী 

সুশান্তের ‘বিধবা’ সাজার চেষ্টা করছে অঙ্কিতা, বিস্ফোরক মন্তব্য রিয়ার

  • রিয়ার মিথ্যা অভিযোগের জবাবও দিয়েছেন অঙ্কিতা লোখান্ডে। 

সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যুর পর প্রথমবার সংবাদমাধ্যমের সামনে মুখ খুললেন রিয়া চক্রবর্তী। বৃহস্পতিবার বেশ কিছু নির্বাচিত সংবাদমাধ্যমে সাক্ষাত্কার দেন সুশান্ত সিং রাজপুত মামলার মূল অভিযুক্ত। সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যুর পর থেকে সোশ্যাল মিডিয়ায় প্রশ্নের মুখে পড়েছেন রিয়া, তবে সুশান্তের পরিবারের তরফে রিয়ার বিরুদ্ধে এফআইআর দায়ের করার পর থেকে নেটিজেনদের ব্যাপক রোষের মুখে অভিযুক্ত। 

মিডিয়ায় দেওয়া সাক্ষাত্কারে সুশান্তের পরিবারের সঙ্গে প্রয়াত অভিনেতার সম্পর্ক নিয়ে যেমন একাধিক প্রশ্ন করেন রিয়া, তেমনই অভিযোগের আঙুল তোলেন সুশান্তের প্রাক্তন বান্ধবী অঙ্কিতা লোখান্ডের দিকেও। সুশান্তের মৃত্যুর পর থেকেই তাঁর প্রাক্তন বান্ধবী হামেশাই পাশে থেকেছে সুশান্তের পরিবারের। অঙ্কিতার নাকি সুশান্তের ‘বিধবা’ সাজবার চেষ্টা করছেন এমনই মন্তব্য রিয়ার। অঙ্কিতার বর্তমান সম্পর্ক নিয়েও প্রশ্ন তোলেন রিয়া। তিনি বলেন, ‘কীভাবে অত্যন্ত সাবলীলভাবে এই রাস্তাটা ও গ্রহন করেছে। যেন অঙ্কিতা সুশান্তের বিধবা, যেখানে ও অন্য একজনের সঙ্গে এনগেজমেন্ট সেরে বসে আছে। সে আবার সুশান্ত-অঙ্কিতার বন্ধু। আমি তো সুশান্তের সঙ্গে তার  (ভিকি জৈন) একটা ছবিও দেখেছি’।

রিয়া সিএনএন নিউজ ১৮-কে দেওয়া সাক্ষাত্কারে আরও যোগ করেন, 'এটা তো আমার খুব অদ্ভূত লেগেছে যে অঙ্কিতা ওরই বন্ধুর সঙ্গে সম্পর্কে রয়েছে, ওর( সুশান্ত) বাড়িতে থাকে, ওর সঙ্গে চার বছর কথা বলেনি। অথচ বলছে এক বছর আগে নাকি সুশান্ত ওকে ফোনে বলেছে যে আমি সুশান্তের উপর অত্যাচার করছি। আপনি তো কোনও কথাই বলেননি মশাই, তাহলে এই সব কথা কী করে বলেছেন?  আপনি ওর বাড়িতে থাকছেন, মিথ্যা কথা বলছেন যে ওই বাড়ি আপনার।ওর বন্ধুর সঙ্গে প্রেম করছেন… নিজে ভালো মহিলা সাজার চেষ্টা করছেন।

রিয়ার তরফে এই মিথ্যা অভিযোগ পর নিজের অবস্থান স্পষ্ট করেন অঙ্কিতা। বিবৃতি জারি করে অঙ্কিতা লেখেন, ‘ শুরু থেকে আমি সুশান্তের সঙ্গে ছিলাম, মোটামুটি ২০১৬-র ২৩ শে ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত । সেই সময়ের মধ্যে সুশান্ত কোনওদিন ডিপ্রেশনের শিকার হয়নি কিংবা কোনও মনোচিকিত্সকের সঙ্গে যোগাযোগ করেনি।ও পুরোপুরি ঠিক ছিল’।

অঙ্কিতা পরিষ্কারভাবে জানান, ‘আমি কোনও ইন্টারভিউতে একবারের জন্য বলিনি যে সুশান্তের সঙ্গে ব্রেক-আপের পর আমার কোনওরকম যোগাযোগ ছিল। আসলে আমি যেটা বলেছি মনিকর্নিকার শ্যুটের সময় সুশান্ত আমার একটা পোস্টারে নিজের মতামত জানিয়েছিল। সৌজন্যের খাতিরে আমিও জবাব দিয়েছিলাম। তাই রিয়ার দাবি আমি খারিজ করছি’।

অঙ্কিতা আরও যোগ করেন,আমাকে যখনই রিয়ার ব্যাপারে কোনও সাক্ষাত্কারে প্রশ্ন করা হয়েছে আমি বলেছি রিয়াকে আমি চিনি না, ওঁদের (সুশান্ত-রিয়া) সম্পর্ক নিয়ে আমার কোনও মাথাব্যাথা নেই। তবে হ্যাঁ, আমার মাথ্যাব্যাথা আছে যদি একটা জীবন শেষ হয়ে যায়। সেই মানুষটার সঙ্গে আমার কাটানো সময় নিয়ে, সেই সময় তার গতিবিধি নিয়ে যদি কেউ আমাকে প্রশ্ন করে, তাহলে আমি সত্যিটা বলব। কেউ আমাকে আটকাতে পারবে না'। 

ফ্ল্যাটের প্রসঙ্গে অঙ্কিতা বলেন. ‘আমি আগেই সেই বিষয়টি পরিষ্কার করেছি। এই ব্যাপারে আমার এবং সুশান্তের পরিবারের অবস্থান এক’। 

সুশান্তের ন্যায়বিচার পাইয়ে দেওয়ার লড়াই অঙ্কিতা সুশান্তের পরিবারের পাশে আছেন সেকথাও নিজের বিবৃতিতে মনে করিয়ে দেন অঙ্কিতা। সুশান্তের পরিবারের মতে রিয়া সুশান্তকে মৃত্যুর দিকে ঠেলে দিয়েছে। তাঁদের কাছে প্রমাণ রয়েছে,চ্যাট রয়েছে, সেগুলো কোনওভাবেই অস্বীকার করা যাবে না বা এড়িয়ে যাওয়া যাবে না। 

হ্যাঁ, আমি সুশান্তের পরিবারের পাশে আছি, সঙ্গে আছি, থাকব, শেষ পর্যন্ত থাকব'।

বন্ধ করুন