বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > Rukmini Maitra: ‘এটা সত্যি আমার শরদিন্দু পড়া নেই…’, দেবের ব্যোমকেশে সত্যবতী হওয়া নিয়ে ট্রোল, মুখ খুললেন রুক্মিণী

Rukmini Maitra: ‘এটা সত্যি আমার শরদিন্দু পড়া নেই…’, দেবের ব্যোমকেশে সত্যবতী হওয়া নিয়ে ট্রোল, মুখ খুললেন রুক্মিণী

সত্যবতী হওয়ায় ট্রোল, মুখ খুললেন রুক্মিণী। 

যবে থেকে দেবের ব্যোমকেশ সিনেমায় রুক্মিণীর রুক্মিণী মৈত্রের সত্যবতী হওয়ার খবর মিলেছে, তবে থেকে যেন ছেঁকে ধরেছে ট্রোলাররা। নিন্দুকদের নিয়ে কী বললেন অভিনেত্রী?

বুধবার সামনে এসেছিল টলিউডের অভিনেত্রী, যিনি দেবের বিশেষ বান্ধবী হিসেবেও বেশ পরিচিত সামাজিক মাধ্যমে, ‘সত্যবতী’ হওয়ার খবর। আর তারপর থেকেই শুরু হয় ট্রোল। দেব-রুক্মিণীর সোশ্যাল মিডিয়া পোস্টে গিয়ে আক্রমণ করতে থাকে নেটিজেনরা। শুরুটা অবশ্য হয়েছিল বহু আগেই। যবে থেকে দেব ‘ব্যোমকেশ’ করার কথা ঘোষণা করেন ও নিজের ব্যোমকেশ লুক শেয়ার করেন। দেবকে নিয়েও ট্রোলের বন্যা বয়ে গিয়েছিল। 

সত্যবতীর মতো একটা চরিত্রে অভিনয় করার সুযোগ পাওয়া সত্যিই বিশেষ ব্যাপার। সঙ্গে অবশ্যই ‘ব্যোমকেশ’-এর মতো ফ্র্যাঞ্চায়েজি-র অংশ হতে পারা। কিন্তু চারদিকে যেভাবে ছেঁকে ধরেছে ট্রোলাররা তাতে কি মানসিক ভাবে আরও চাপ বাড়ছে রুক্মিণীর। চ্যাম্প-অভিনেত্রী আনন্দবাজারকে এই প্রসঙ্গে জানালেন, সমালোচনা নিয়ে বেশি ভাবেন না। বরং তাঁর কাছে সবথেকে বেশি গুরুত্ব পায় কাজটা কী করে ভালোভাবে করা যায়। রুক্মিণী নিজের মুখেই জানালেন, ছবির পরিচালক বিরসা দাশগুপ্ত তাঁকে জানিয়েছেন প্রথমদিন থেকে সত্যবতী হিসেবে তাঁর কথাই ভেবেছিলেন তিনি। এমনকী ছবির চিত্রনাট্যকর শুভেন্দু দাসমুন্সিরও তাই মত। 

তবে দেব-বান্ধবী স্বীকার করে নিলেন, ‘একটা সত্যি কথা, আমার শরদিন্দু পড়া নেই। তবে চরিত্রটাকে বোঝার চেষ্টা করছি। দামিনী বেণী বসুর কাছে ওয়ার্কশপ করছি। মানুষের সমালোচনার কথা  ভাবলে কাজই তো করতে পারব না।’

ব্যোমকেশ ও দুর্গ রহস্য ছবির শুভ মহরত অনুষ্ঠিত হয় বুধবার। শুক্রবার থেকে ছবির ফ্লোরে যাওয়ার কথা আগেই জানিয়েছিলেন দেব। খবর মিলছে অগস্টেই মুক্তি পাবে এই সিনেমা। সেই হিসেবে হয়তো আগে শ্যুট শেষ হওয়া ‘বাঘাযতীন’ আসবে দুর্গ রহস্যের পর।

রুক্মিণীর কাছে সত্যবতী হওয়ার আরেক বড় চ্যালেঞ্জ হল তাঁকে এই সিনেমায় দেখানো হবে গর্ভবতী হিসেবে। সেই প্রসঙ্গে এৎ আগে অভিনেত্রী জানিয়েছিলেন, ‘ব্যোমকেশ ও দুর্গ রহস্য ছবিতে আমার চরিত্রের কাছে সব থেকে বড় চ্যালেঞ্জ হল এটার লুক। এখানে আমায় অন্তঃসত্ত্বা দেখানো হবে। এর আগেও আমি চ্যাম্প ছবিতে অন্তঃসত্ত্বার চরিত্রে অভিনয় করেছি। কিন্তু এটা সেই তুলনায় অনেকটাই আলাদা।’

দেব রুক্মিণীর জুটি চ্যাম্প, ককপিট, কবীর, কিডন্যাপ, পাসওয়ার্ড, কিশমিশের মতো একাধিক ছবি উপহার দিয়েছে। তবে ব্যোমকেশ আর সত্যবতী হিসেবে দুজনেই একদম আলাদাভাবে আসবেন দর্শকদের সামনে। ছবি নিয়ে তাই জনতার মধ্যে বেশ উৎসাহও রয়েছে। দেখার, সব মিলিয়ে ছবি মুক্তির পর টনিক, প্রজাপতির মতো এই ছবিটা নিয়েও বাঙালি মাতামাতি করে কি না!

 

(এই খবরটি আপনি পড়তে পারেন HT App থেকেও। এবার HT App বাংলায়। HT App ডাউনলোড করার লিঙ্ক https://htipad.onelink.me/277p/p7me4aup)

বন্ধ করুন