বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > রূপঙ্করের বিতর্কিত ভিডিয়োতে নিজেদের নাম শুনে বিব্রত রাঘব, সোমলতা! কী বলছেন?
রূপঙ্করের বিতর্কিত ভিডিয়ো প্রসঙ্গে মুখ খুলেছেন রাঘব, সোমলতারা।

রূপঙ্করের বিতর্কিত ভিডিয়োতে নিজেদের নাম শুনে বিব্রত রাঘব, সোমলতা! কী বলছেন?

  • রূপঙ্করের মন্তব্যে বিব্রত, শিল্পীর উপার্জন-জনপ্রিয়তা নিয়ে কটাক্ষ মানতে নারাজ ইমন চক্রবর্তী।  এ বিষয় এ বার মুখ খুলেছেন রাঘব, সোমলতারা।

বলিউড গায়ক কেকে-কে নিয়ে গায়ক রূপঙ্কর বাগচীর বিতর্কিত ভিডিয়োতে ঝড় বয়ে গিয়েছে নেটমাধ্যমে। তাঁর ভিডিয়ো ঘিরে নেটদুনিয়ায় চর্চার শেষ নেই। ভিডিয়োতে কেকে-র সমালোচনা করতে দেখা গিয়েছে তাঁকে। সেখানে বাংলার একাধিক শিল্পীর নাম উল্লেখ করেছিলেন তিনি। কেকে-কে নিয়ে করা বিতর্কিত মন্তব্যের বিষয় নিজেদের আপত্তি প্রকাশ করেছেন অনেকেই। 

যদিও নিজের ভুল স্বীকার করে শুক্রবার বিকেলে সাংবাদিক সম্মেলন করেছেন রূপঙ্কর বাগচী। নিঃশর্ত দুঃখ প্রকাশ করছেন তিনি। রূপঙ্করের মন্তব্যকে নিয়ে এক সংবাদমাধ্যমে মুখ খুলেছেন গায়ক রাঘব চট্টোপাধ্যায়। তিনি জানিয়েছেন, ভিডিয়োতে তাঁদের নামে এভাবে বলার আগে তাঁদের কাছ জানতে চাওয়া উচিত ছিল, ‘কাল যদি বলি, আমি রোনাল্ডোর থেকে ভালো ফুটবল খেলি এবং শ্রীকান্ত আচার্য, নচিকেতাও রোনান্ডোর থেকে ভালো ফুটবল খেলে, আমার কথার দায় তো ওঁদের হতে পারে না।’ তাঁর সাফ কথা, অন্য কারও নাম এভাবে তাঁর অনুমতি ছাড়া একেবারেই নেওয়া উচিত নয়। আরও পড়ুন: রূপঙ্করের মন্তব্যে বিব্রত, শিল্পীর উপার্জন-জনপ্রিয়তা নিয়ে কটাক্ষ মানতে নারাজ ইমন

একই ভাবে রূপঙ্কর বাগচীর ভিডিয়ো মন্তব্যকে অসমর্থন জানিয়েছেন গায়িকা সোমলতা আচার্য চৌধুরী। তিনি বলেন, উচিত-অনুচিত তিনি বলতে পারবেন না। তবে রূপঙ্কর বাগচীর কথায় সমর্থন জানাচ্ছেন না তিনি। বলেছেন, কেকে তাঁর অনুপ্রেরণা। ছোট থেকে তাঁর গান শুনে বড় হয়েছেন। কেকে-এর থেকে ভালো গান তিনি একথা চিন্তার বাইরে গায়িকার কাছে। 

রূপঙ্করের মন্তব্যে আগেই বিব্রত প্রকাশ করেছেন ইমন চক্রবর্তী। শিল্পীর উপার্জন-জনপ্রিয়তা নিয়ে কটাক্ষ মানতে নারাজ তিনি। বলেছিলেন, ‘তাঁকে এ ভাবে অকারণে ছোট করা বোধহয় ঠিক হয়নি।’ তাঁর মতে শিল্পীদের মধ্যে পারস্পরিক সৌজন্য, সৌহার্দ্য, শ্রদ্ধা থাকাটা জরুরি। জাতীয় পুরস্কারপ্রাপ্ত গায়িকার সাফ কথা, ‘কেউ কোনও প্রসঙ্গে ব্যক্তিগত মতামত দিতেই পারেন, কিন্তু সেখানে যদি অন্য কোনও শিল্পীর নাম নেওয়া হয়, তখন এ বিষয়ে তাঁর অনুমতি নেওয়া হয়েছে কি না, তাঁর সঙ্গে কথা বলা হয়েছে কি না, সবটাই স্পষ্ট হওয়া উচিত।’ আরও পড়ুন: ‘উনি কী করে জানলেন আমি রূপঙ্করদার পাশে নেই?', নচিকেতার মন্তব্যের পালটা ইমন

‘হু ইজ কেকে?' মন্তব্যের জেরে বিতর্কে রূপঙ্কর। সাংবাদিক বৈঠক ডেকে নিঃশর্ত ক্ষমা চেয়েছেন তিনি। এ দিন সাংবাদিকদের কোনও প্রশ্নের মুখোমুখি হননি তিনি। ছাপা বিবৃতি পড়েই সাংবাদিক বৈঠক ছেড়ে উঠে যান রূপঙ্কর। 

 

বন্ধ করুন