বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > হৃতিক রোশনের সঙ্গে টাকার জন্য প্রেম? দেখুন বান্ধবী সাবা আজাদ ঠিক কতটা বড়লোক
অভিনয়ের পাশাপাশি গান গাইছেন সাবা, নিজের মিউজিক ব্যান্ড আছে, রেস্তোরাঁও। (ছবি ইনস্টাগ্রাম)

হৃতিক রোশনের সঙ্গে টাকার জন্য প্রেম? দেখুন বান্ধবী সাবা আজাদ ঠিক কতটা বড়লোক

  • হৃতিকের সঙ্গে সম্পর্কে জড়ানোর পর থেকেই সাবা আজাদকে নিয়ে অনেক কথা। কারও মতে, টাকাপয়সা আর ক্ষমতার লোভে তিনি প্রেম করছেন। তবে সাবা নিজেও কিন্তু কেরিয়ারের বেশ ভালো জায়গায় আছে বর্তমানে। 

গত বছর থেকেই প্রেম করছেন হৃতিক রোশন আর সাবা আজাদ। যদিও এই সম্পর্ক নিয়ে কম জলঘোলা হয়নি। ৪৮ বছরের হৃতিক আর ৩৬ বছরের সাবার প্রেম অনেকেই ভালো চেখে নেয়নি। কেউ কেউ তো আবার বলছেন সাবা শুধু হৃতিকের সঙ্গে সম্পর্কে এসেছে স্বার্থের খাতিরে। তবে এই ধারণা একেবারেই ভুল। বরং, কেরিয়ার গুছিয়েছেন সাবা নিজের হাতে। অভনয়ের পাশাপাশি গান, রেস্তোরাঁ বিজনেসেও আছেন হৃতিক-পত্নী।

সাবা সম্প্রতি এক সাক্ষাৎকারে জানান, ‘আমি একাই মুম্বই এসেছিলাম না পরিবার না বন্ধুরা ছিল সঙ্গে। আর আমি আমার কেরিয়ারের সবটা শুরু করেছিলাম শূন্য থেকে। আমি একজন মিউজিশিয়ান। আমার নিজের ব্যান্ড আছে। আমি একজন প্লেব্যাক সিঙ্গার, ভয়েস ওভার আর্টিস্ট। বেঙ্গালুরুতে আমার নিজের বার আর রেস্তোরাঁও আছে। আমি নিজের সিনেমা বানাতে চাই একদিন।’

সাবা আজাদের আসল নাম সাবা সিং গ্রেওয়াল। সাবা একজন মডেল, সিঙ্গার ও অভিনেতা। ২০০৮ সালে বলিউডের সিনেমা ‘দিল কবাডি’ দিয়ে ডেবিউ। ২০১১ সালে অভিনয় করেছেন ‘মুঝসে ফ্রেন্ডশিপ করোগে’ সিনেমাতে। ২০২১ সালে অভিনয় করেছেন ‘ফিলস লাইক ইশক’ ছবিতে। সাবার গ্রেওয়াল পরিবারের সবাই এসেছে শিক্ষার জগত আর সংস্কৃতি থেকে। ছোট থেকেই থিয়াটার, সিনেমা-নাচ-গানের জগতে তাঁর বেড়ে ওঠা। তবে আজাদ নামটা সাবার মা-য়ের মা-র। পেন নেম হিসেবে নিজের লেখায় ব্যবহার করতেন তিনি। আর সেটাই নিজের নামের সঙ্গে এখন ব্যবহার করেন সাবা।

রিপোর্ট বলছে, একে-অপরের সঙ্গে সম্পর্ক নিয়ে এখন অনেকটাই নিশ্চিত হৃতিক আর সাবা। তবে এখনই বিয়ের পিঁড়িতে বসতে চান না। বিয়ে করার পরিকল্পনা থাকলেও, আরও কিছুটা সময় কাটাতে চান একসঙ্গে। বিয়ের মতো বড় সিদ্ধান্ত নিয়ে তাড়াহুড়ো করতে চান না কেউই।

 

বন্ধ করুন