বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > ‘মিস্টার রে’-এর সঙ্গে টলিগঞ্জ ক্লাবে আলাপে ব্যস্ত সাহানা বাজপেয়ী, প্রকাশ্যে ছবি
জিতু কমল এবং সাহানা বাজপেয়ী। (ছবি সৌজন্যে - ইনস্টাগ্রাম)
জিতু কমল এবং সাহানা বাজপেয়ী। (ছবি সৌজন্যে - ইনস্টাগ্রাম)

‘মিস্টার রে’-এর সঙ্গে টলিগঞ্জ ক্লাবে আলাপে ব্যস্ত সাহানা বাজপেয়ী, প্রকাশ্যে ছবি

  • অনীক দত্তের ‘অপরাজিত’ ছবির মুখ্য অভিনেতা জিতু কমলের ফার্স্ট লুক সামনে আসতেই হইচই সোশ্যাল মিডিয়ায়। ‘সত্যজিৎ রায়’ রুপী জিতুর সঙ্গে নিজের একটি সাদা কালো ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করেছেন সাহানা বাজপেয়ী ।

অনীক দত্তের পরবর্তী ছবি ‘অপরাজিত’-র মুখ্য অভিনেতা জিতু কামালের ফার্স্ট লুক সামনে আসতেই হইচই পড়ে গেছিল সোশ্যাল মিডিয়ায়। নড়েচড়ে বসেছে টলিপাড়াও।সত্যজিৎ রায়-র মতো দেখতে জিতু কমলকে দেখে প্রায় চমকে গিয়েছিল বাঙালি।প্রথম ঝলকেই মনে হতে বাধ্য এ যেন খোদ যুবক সত্যজিত। সেই অতিপরিচিত ব্যাকব্রাশ কায়দায় আঁচড়ানো চুল, ভাঙা লম্বাটে চোয়াল, চিন্তামিশ্রিত দৃষ্টির পাশাপাশি নজর এড়ায়নি থুতনির একপাশে উঁকি মারা আঁচিলও। বলাই বাহুল্য সিনেমাপ্রেমী মানুষ থেকে শুরু করে চুলচেরা বিশ্লেষণী সত্যজিৎ-ভক্তরা পর্যন্ত জিতুর এই লুক দেখে বেশ খুশি। অবাকও যে হয়েছেন তা বলাই বাহুল্য। এবার জিতুর এই লুকে তাঁকে দেখে অবাক হওয়ার তালিকায় নিজের নাম যোগ করলেন জনপ্রিয় গায়িকা সাহানা বাজপেয়ী। প্রসঙ্গত, রবীন্দ্রসঙ্গীত হোক বা বাংলা নিজস্ব গান, সাহানার গায়কী ইতিমধ্যেই জায়গা করে নিয়েছে শ্রোতাদের মননে। গানের পাশাপাশি শিক্ষকতার সঙ্গেও বেশ কয়েক বছর ধরে জুড়ে রয়েছেন তিনি।

এদিন জিতুর সঙ্গে নিজের একটি সাদা কালো ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করেছেন সাহানা। ছবিতে 'সত্যজিৎ রায়' এর লুকেই ধরা দিয়েছেন জিতু। জানা গেছে, টলিগঞ্জ ক্লাবেই তোলা হয়েছে এই ছবি। স্ট্রাইপড শার্ট পরে একহাত চিবুকে রেখে স্মিত হাসি ঠোঁটে ফুটিয়ে রেখেছেন জিতু। পাশে বসে সাহানা। ছবির সঙ্গে জনপ্রিয় গায়িকার ক্যাপশন ‘আপনার সঙ্গে আলাপ হয়ে ভাল লাগল মিস্টার রে!’ যদিও এই মুহূর্তে নিজের ইন্সটাগ্রাম অ্যাকাউন্ট থেকে এই ছবিটি সরিয়ে দিয়েছেন সাহানা।

অপরাজিত' প্রসঙ্গে বলতে গিয়ে পরিচালক অনীক দত্ত জানিয়েছেন এ ছবি এককথায় ভীষণ 'ইনস্পিরেশনাল' হতে চলেছে। কীভাবে শুধুমাত্র প্রতিভা এবং জেদ-কে পুঁজি করে একজন মানুষ নিজের স্বপ্নকে ছুতে পারে তাই নিয়েই এই ছবি। সঙ্গে আরও জানালেন জিতুর মেক আপের ক্ষেত্রে সামান্য প্রস্থেটিক্সের সাহায্য নিয়ে মেকআপ সোমনাথ কুণ্ডু যা কাণ্ড করেছেন তা এককথায় অভূতপূর্ব। শুধুমাত্র গালে ও থুতনিতে প্রস্থেটিক্সের সাহায্য নেওয়া হয়েছে।

ছবির একটা অংশের শুট হয়েছে বীরভূমে, বোলপুরের আশপাশে। জানা গেছে, দ্বিতীয় শিডিউল শুরু হয়েছে ১৯ নভেম্বর থেকে। নন্দন, শিশির মঞ্চ ও বেশ কিছু সিকোয়েন্সের শ্যুটিং সারা হবে। এছাড়াও সেই আউটডোর-এর তালিকায় রয়েছে কলকাতার বেশ কয়েকটি জায়গা।

বন্ধ করুন