বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > 'দারুণ কোনও ছবি নয় রাধে', এবার সমালোচনায় যোগ দিলেন সলমনের বাবা সেলিম খান!
বাবার সঙ্গে সলমন খান। ছবি সৌজন্যে - ট্যুইটার
বাবার সঙ্গে সলমন খান। ছবি সৌজন্যে - ট্যুইটার

'দারুণ কোনও ছবি নয় রাধে', এবার সমালোচনায় যোগ দিলেন সলমনের বাবা সেলিম খান!

  • এবার 'রাধে' নিয়ে সমালোচনা এল 'ভাইজান'-এর পরিবারের অন্দর থেকেই। সদ্য এই ছবি নিয়ে সমালোচনায় মুখর হলেন সলমনের বাবা সেলিম খান স্বয়ং। বললেন,'দারুণ কোনও ছবি নয় রাধে!'

মুক্তির প্রথম দিন থেকেই বিতর্কে ছিল সলমন খান অভিনীত ছবি 'রাধে : ইওর মোস্ট ওয়ান্টেড ভাই’।' ছবির মান ঘিরে বিভিন্ন জায়গায় তীব্র সমালোচিত হয়েছে 'রাধে'। পড়েছে ছবির রেটিংও। যা নিয়ে একেকসময় ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন সলমন স্বয়ং। মোদ্দা কথা, ফিল্ম সমালোচকদের থেকে শুরু করে দর্শকদের একাংশ মোটেই খুশি হননি এই ছবি দেখে। এবার 'রাধে' নিয়ে সমালোচনা এল 'ভাইজান'-এর পরিবারের অন্দর থেকেই। সদ্য এই ছবি নিয়ে সমালোচনায় মুখর হলেন সলমনের বাবা সেলিম খান স্বয়ং।

'রাধে'-র পোস্টারে সলমন। ছবি সৌজন্যে - ট্যুইটার
'রাধে'-র পোস্টারে সলমন। ছবি সৌজন্যে - ট্যুইটার

একে তো সলমনের বাবা তার ওপর বলিউডে ছবির গল্পকার ও চিত্রনাট্যকার হিসেবে সেলিম খানের সাফল্য তর্কাতীত। তাই এক্ষেত্রে তাঁর মন্তব্যের মূল্য তো রয়েইছে। সদ্য দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে সেলিম জানিয়েছেন 'রাধে' মোটেই তেমন পছন্দ হয়নি তাঁর। সেই সাক্ষাৎকারে সেলিম আরও জানান যে সলমন অভিনীত 'দবাং ৩' অন্যান্য ছবির থেকে বেশ আলাদা ছিল। 'বজরঙ্গি ভাইজান' তো রীতিমতো ভালো রবং সম্পূর্ণ অন্য ধরণের ছবি ছিল তাই তা ভালো লেগেছিল সেলিমের। কিন্তু ছবি হিসেবে 'রাধে' মোটেই দারুণ কিছু নয়। তাঁর কথায়,'কর্মাশিয়াল ছবির একটা দায় থাকে। সকলে যাতে পয়সা ফেরত পান, সে দায়িত্ব থাকে। শিল্পী, প্রযোজক, ডিস্ট্রিবিউটর, এক্সিবিটর, শেয়ারের প্রত্যেক অংশীদারের টাকা ফেরত পাওয়া উচিত। তবেই তো সিনেমা তৈরির ব্যবসা চলবে। সেদিক দিয়ে দেখতে গেলে সলমন সফল কিন্তু এছাড়া আহামরি কিছু নয় রাধে।' তবে তাঁর পাশাপাশি তিনি এও জানান যে এক্ষেত্রে সলমনের তেমন দোষ নেই কারণ বর্তমানে ইন্ডাস্ট্রিতে ভালো গল্পকার এবং চিত্রনাট্যকারের বড়ই অভাব। সেলিমের আক্ষেপ,' আজকালকার চিত্রনাট্যকাররা কেউই আর তেমন হিন্দি এবং উর্দু ভাষার সাহিত্য নিয়ে চর্চা করেন না। বাইরে থেকে অন্য কিছু একটা দেখে লেখা শুরু করে দেন তাঁরা।' বক্তব্য শেষে তাঁর সংযোজন,' ‘জঞ্জির’ ভারতীয় সিনেমার একটা মাইলফলক। ওই ছবি মুক্তির পর তৎকালীন সময়ের সিনেমাকে নতুন দিশা দেখিয়েছিল সেই ছবি। তারপর অবশ্য এত বছর পরেও ইন্ডাস্ট্রি সেলিম-জাভেদ জুটির কোনও বিকল্প খুঁজে পায়নি। তাই শুধু সলমন আর কী করবে?'

 

বন্ধ করুন