বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > বডিগার্ডের জন্মদিনের কেক খেতে অস্বীকার করলেন সলমন! দেখুন ভাইরাল ভিডিও
স্বাস্থ্য সচেতন ভাইজান
স্বাস্থ্য সচেতন ভাইজান

বডিগার্ডের জন্মদিনের কেক খেতে অস্বীকার করলেন সলমন! দেখুন ভাইরাল ভিডিও

  • শনিবার ফিল্মসিটিতে বডিগার্ড, জগ্গির জন্মদিনের সেলিব্রেশনে শামিল হলেও কেকের টুকরো মুখে তুললেন না সলমন খান। 

অভিনেতা সলমন খান তাঁর সহকর্মীদের কতখানি খেয়াল রাখেন তা নতুন করে কিছু বলবার নেই। শনিবার ছিল ভাইজানের এক দেহরক্ষীর জন্মদিন। আর কাজের ব্যস্ততার মাঝেই সময়বার করে মুম্বইয়ের ফিল্মসিটিতেই বডিগার্ডের জন্মদিন পালন করলেন সল্লু মিঁয়া। সেই সেলিব্রেশনের ভিডিয়োও ইতিমধ্যেই শোরগোল ফেলেছে সোশ্যাল মিডিয়ায়। ভিডিয়োতে দেখা যাচ্ছে সলমনের বডিগার্ড জগ্গি, জন্মদিনের কেক কাটছে, এরপর সে এক টুকরো কেক সামাজিক দূরত্ব মেনেই সলমনের হাতে মুখে দিতে যায়, মুখ বাড়ালেও শেষ পর্যন্ত কেক হতে অস্বীকার করলেন সলমন।

ভিডিয়োয় আকাশি রঙের টি-শার্টে পাওয়া গেল সলমনকে। বডিগার্ডের জন্য ‘হ্যাপি বার্থ ডে’ গানও গাইলেন অভিনেতা। তবে স্বাস্থ্য সচেতন সলমন হাঁ মুখ করেও শেষপর্যন্ত কেকের টুকরোটি খেলেন না। এখানেই শেষ নয়, চেনা মেজাজে কেক না খেয়েই সলমন বলেন-'দুর্দান্ত খেতে (কেক)'। যা শুনে সকলে হেসে ওঠে।

জনসমক্ষে হোক বা শ্যুটিং সেটে সবসময় সলমনের সঙ্গে থাকে একটি সিকিউরিটি টিম। আর সেই নিরাপত্তা দলের দায়িত্বে রয়েছেন সলমনের দীর্ঘদিনে বডিগার্ড শেরা। তিনি হামেশাই বলে থাকেন- ‘যতদিন বেঁচে আছি, ভাইয়ের সঙ্গে আছি’। হিন্দুস্তান টাইমসকে দেওয়া সাক্ষাত্কারে শেরা জানিয়েছিলেন, ‘কেউ আমাকে কখনও সলমন ভাইয়ের পাশে বা পিছনে দাঁড়ায়ে থাকতে দেখবে না। আমি সবসময় আগে থাকব, সবরকম বিপদের মোকাবিলা করতে’। 
 

২০১১ সালে বডিগার্ড ছবিতে দেহরক্ষীর ভূমিকাতে অভিনয় করতে দেখা গিয়েছিল সলমনকে। ছবির কাহিনির সঙ্গে তাঁর ব্যক্তিগত বডিগার্ড শেরার জীবনের কোনও মিল না থাকলেও পর্দায় বডিগার্ড হয়ে উঠতে শেরা তাঁকে অনেক সাহায্য করেছেন, জানিয়েছিলেন ভাইজান। 

আপাতত ছোটপর্দায় বিগ বসের শ্যুটিং নিয়ে ব্যস্ত সলমন। এছাড়াও অন্তিম ছবির শ্যুটিংও শুরু করেছেন সমন খান। এই ছবিতেই প্রথমবার ভগ্নিপতি আয়ুষ শর্মার সঙ্গে অভিনয় করতে দেখা যাবে ভাইজানকে। ছবিতে এক শিখ পুলিশ কর্মীর চরিত্রে অভিনয় করেছেন সলমন খান।

বন্ধ করুন