বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > Sandhya Mukhopadhyay: নিয়ে আসা হল অ্যাপোলেতে, কেমন আছেন গায়িকা সন্ধ্যা মুখোপাধ্যায়? জানাল হাসপাতাল
সন্ধ্যা মুখোপাধ্যায়। (ফাইল ছবি, সৌজন্যে টুইটার)
সন্ধ্যা মুখোপাধ্যায়। (ফাইল ছবি, সৌজন্যে টুইটার)

Sandhya Mukhopadhyay: নিয়ে আসা হল অ্যাপোলেতে, কেমন আছেন গায়িকা সন্ধ্যা মুখোপাধ্যায়? জানাল হাসপাতাল

  • আগে থেকেই শিল্পীর হৃদপিণ্ড সংক্রান্ত সমস্যা আছে। ১৫-২০ বছর ধরে নিয়মিত ওষুধ খেতে হয়।

দীর্ঘদিন ধরেই হৃদপিণ্ডের সমস্যায় ভুগছেন। নিয়মিত ওষুধও খেতে হয়। আরও শারীরিক সমস্যা আছে। তারইমধ্যে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। সেইসব কারণেই গীতশ্রী সন্ধ্যা মুখোপাধ্যায়ের শ্বাসকষ্ট হচ্ছিল। এমনটা জানালেন অ্যাপোলো হাসপাতালের চিকিৎসকরা।

বৃহস্পতিবার সন্ধ্যার দিকে সংগীত শিল্পীকে ১২ মিনিটে এসএসকেএম হাসপাতাল থেকে ইএম বাইপাসের ধারের অ্যাপোলো হাসপাতালে নিয়ে আসা হয়। পরে ওই বেসরকারি হাসপাতালের তরফে জানানো হয়, করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন ৯০ বছরের গণ্ডি পেরিয়ে যাওয়া শিল্পী। আগে থেকেই হৃদপিণ্ড সংক্রান্ত সমস্যা আছে। ১৫-২০ বছর ধরে নিয়মিত ওষুধ খেতে হয়। ইসিজি-সহ অন্যান্য পরীক্ষা করে দেখা গিয়েছে যে শিল্পীর হার্টবিট কখনও কখনও বেড়ে যাচ্ছে। তাঁর হৃদপিণ্ডও কিছুটা বড়। আপাতত তাঁকে কড়া পর্যবেক্ষণে রাখা হয়েছে।

এমনিতে বৃহস্পতিবার সকালের দিকে গ্রিন করিডর করে শিল্পীকে হাসপাতালে আনা হয়েছিল। গত কয়েকদিন ধরেই বর্ষীয়ান গায়িকার শরীর ভালো ছিল না। বুধবার রাত থেকে শারীরিক অবস্থা অবনতি হয়। বাড়তে থাকে জ্বর। শুরু হয শ্বাসকষ্টও। সেই পরিস্থিতিতে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের নির্দেশে গ্রিন করিডর করে শিল্পীকে হাসপাতালে আনা হয়েছিল। ভরতি করা হয়েছিল উডবার্ন ব্লকে। বিকেলে তাঁকে দেখতে এসএসকেএমে আসেন মুখ্যমন্ত্রী। বর্ষীয়ান শিল্পী করোনায় আক্রান্ত হওয়ায় কেবিনের কাঁচ থেকেই তাঁকে দেখেন।

এসএসকেএম থেকে বেরিয়ে সংবাদমাধ্যমকে মুখ্যমন্ত্রী বলেন, ‘সন্ধ্যাদি খুব অসুস্থ। মেয়ে এবং জামাই সকালে এসএসকেএম হাসপাতালে ভরতি করেন। উডবার্নে সঙ্গে সঙ্গে বিশেষজ্ঞদের নিয়ে বোর্ড তৈরি হয়। তাঁদের পর্যবেক্ষণেই চিকিৎসা চলছিল। তাঁর হৃদযন্ত্রের একটি সমস্যা রয়েছে। ইতিমধ্যে অ্যাপোলোর সঙ্গে কথা বলেছি আমি। ওখানে সরিয়ে নিয়ে যাওয়া হচ্ছে। কারণ উনি কোভিড পজিটিভ। তার উপর হৃদযন্ত্রের ধাক্কা তো রয়েছে।’

বন্ধ করুন