বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > পদ্মশ্রী পুরস্কার প্রত্যাখ্যান করলেন সন্ধ্যা মুখোপাধ্যায়
সন্ধ্যা মুখোপাধ্যায়।(ছবি সৌজন্যে - ফেসবুক)

পদ্মশ্রী পুরস্কার প্রত্যাখ্যান করলেন সন্ধ্যা মুখোপাধ্যায়

  • মোদী সরকারের তরফে দেওয়া পদ্ম পুরস্কার-এর প্রস্তাব ফেরালেন প্রবাদপ্রতিম সঙ্গীত শিল্পী সন্ধ্যা মুখোপাধ্যায়।

'গানে মোর কোন ইন্দ্রধনু', 'মায়াবতী মেঘে এল তন্দ্রা', 'কী বৃষ্টি দেখো মিষ্টি কী বৃষ্টি এ সকাল', 'জানিনা ফুরোবে কবে এই পথচাওয়া', 'আকাশের অস্তরাগে'এর মতো একাধিক মনোমুগ্ধকর গান বেরিয়েছে তাঁর গলা থেকে। তিনি বাঙালির প্রিয় গায়িকা সন্ধ্যা মুখোপাধ্যায়। ছিলেন প্রখ্যাত শিল্পী গিরিজাশঙ্কর চক্রবর্তীর ছাত্রী। পরে গান শিখেছেন বড়ে গুলাম আলি খাঁর কাছে। উল্লেখ্য,পঞ্চাশের শতকে উত্তম-সুচিত্রা ছবিতে সুচিত্রা সেনের লিপে সন্ধ্যা দেবীর গান ছিল অপরিহার্য। তাঁর স্বামী প্রয়াত গীতিকার শ্যামল গুপ্ত। এবার মোদী সরকারের তরফে দেওয়া পদ্ম পুরস্কার-এর প্রস্তাব ফেরালেন প্রবাদপ্রতিম সঙ্গীত শিল্পী সন্ধ্যা মুখোপাধ্যায়।

বয়স পেরিয়ে গিয়েছে নব্বই। একাধিক ভাষায় গেয়েছেন অজস্র গান। প্রজন্মের পর প্রজন্ম ধরে বাঙালি শুনে এসেছে তাঁর গান। বহু বছর আগে একবার সংগীত প্রতিযোগিতায় তিনি 'গীতশ্রী' পুরস্কার পেয়েছিলেন। এরপর থেকেই তাঁর নামের সঙ্গে জুড়ে যায় 'গীতশ্রী' শব্দটি। পশ্চিমবঙ্গ সরকারের দেওয়া বহু পুরস্কারই পেয়েছেন কিন্তু কেন্দ্রীয় সরকারের তরফে কোনও পুরস্কার পাননি। পদ্ম পুরস্কারের আগে যাঁকে দেওয়া হয় তাঁর অনুমতি নেওয়া হয়। এটাই দস্তুর। তা সেই ব্যাপা রে শিল্পীর লেক গার্ডেন্সের বাড়িতে ফোন আসে দিল্লির তরফে। জানানো হয় তাঁকে 'পদ্মশ্রী' সম্মানে সম্মানিত করা হবে। তবে ওপর প্রান্তের কথা শেষ হওয়ার আগেই স্পষ্টভাবে সন্ধ্যা মুখোপাধ্যায় জানিয়ে দিয়েছেন যে তিনি প্রত্যাখ্যান করছেন। 

এ প্রসঙ্গে নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক সন্ধ্যা মুখোপাধ্যায় পরিবার ঘনিষ্ঠ এক ব্যক্তি হিন্দুস্তান টাইমস-কে জানালেন, ‘দিল্লির কেন্দ্রীয় সরকারের সংশ্লিষ্ট সচিবালয় থেকে তাঁকে ফোন করা হয়েছিল। তিনি তাঁদের স্পষ্ট জানিয়ে দিয়েছেন তাঁর মতো একজন বর্ষীয়ান শিল্পীর জন্য পদ্মশ্রী সঠিক সম্মান নয়। তাঁর থেকে অনেক কম বয়সী শিল্পীরা এই সম্মান পেয়েছেন। সুতরাং এখন যদি তিনি এই পুরস্কার গ্রহণ করেন তাহলে তাঁর ক্ষেত্রে তা অপমানিত বৈ অন্য কিছু হবে না। সুতরাং তাঁর আর পদ্মশ্রীর কোনও দরকার নেই। শ্রোতাদের প্রশংসাই তাঁর কাছে শ্রেষ্ঠ পুরস্কার।’

বন্ধ করুন