বাড়ি > বায়োস্কোপ > কেন সুশান্তের বিরুদ্ধে Me Too অভিযোগ খারিজ করতে দেরি করেছিলেন সঞ্জনা সাংঘি?
সঞ্জনা সাংঘি
সঞ্জনা সাংঘি

কেন সুশান্তের বিরুদ্ধে Me Too অভিযোগ খারিজ করতে দেরি করেছিলেন সঞ্জনা সাংঘি?

  • এই গুজব রটার কিছুদিন পরে নিজের অবস্থান স্পষ্ট করেন সঞ্জনা। এই নিয়ে অনেকের মনে প্রশ্ন ছিল, যে কেন অতটা সময় নিলেন তিনি। একটি ওয়েবসাইটকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে এই ব্যাপারে সবিস্তারে বলেছেন সঞ্জনা

২০১৮ সালে আচমকা রটে গিয়েছিল যে সুশান্ত সিং রাজপুতও যৌন হেনস্থায় যুক্ত। তবে এটি নিছকই রটনা ছিল, কারণ যাকে জড়িয়ে এই কথা বলা হয়েছিল, সেই সঞ্জনা সাংঘি সোশ্যাল মিডিয়ায় এই কথা অস্বীকার করেন। কাকতালীয় ভাবে সেটাই ছিল সুশান্তের শেষ ছবি। ফিল্ম রিলিজের ঠিক আগে তাঁর প্রয়াত সহ অভিনেতার বিরুদ্ধে যে গুজব রটেছিল, সেই নিয়ে মুখ খুলেছেন দিল বেচারার অভিনেত্রী। 

এই গুজব রটার কিছুদিন পরে নিজের অবস্থান স্পষ্ট করেন সঞ্জনা। এই নিয়ে অনেকের মনে প্রশ্ন ছিল, যে কেন অতটা সময়, প্রায় চার সপ্তাহ নিলেন তিনি। একটি ওয়েবসাইটকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে এই ব্যাপারে সবিস্তারে বলেছেন সঞ্জনা। 

তিনি বলেন যে সবাই ভাবে শুধু সুশান্তই বিপাকে পড়েছিল তখন। কিন্তু তিনিও অত্যন্ত বিব্রত ছিলেন বলে জানান অভিনেত্রী। তিনি বলেন যে তাঁরা সত্যটা জানতেন তাই প্রাথমিক ভাবে কোনও পাত্তা দেননি এই সব ভিত্তিহীন রিপোর্টে। 

সঞ্জনা বলেন তাঁদের দুইজনের সম্পর্কে এই বিতর্কের কোনও প্রভাব পড়েনি। কিন্তু ক্রমশ কীভাবে দুনিয়াকে সত্যিটা বলা যায়, সেই প্রশ্ন তাদের কুরে কুরে খেতে থাকে। তখন সুশান্ত তাঁদের দু'জনের মধ্যে হওয়া যাবতীয় কথাপোকথন প্রকাশ করেন সোশ্যাল মিডিয়ায়। সঞ্জনার সম্মতি নিয়েই সুশান্ত এই কাজ করেন বলে জানিয়েছেন অভিনেত্রী। পরে তিনিও সাফাই দেন। কিন্তু তাতেও কাজ হয়নি বলে মনে করেন সঞ্জনা সাংঘি। 

তিনি বলেন যে তাঁরা একে অপরকে প্রচন্ড স্নেহ করতেন। এখনও পর্যন্ত তিনি যাদের সঙ্গে কাজ করেছেন, তাদের মধ্যে সুশান্তই শ্রেষ্ঠ বলে মনে করেন সঞ্জনা। অভিনেত্রী বলেন যে তাঁর সঙ্গে অনভিপ্রেত কিছু ঘটলে তিনি প্যারিসে শুটিং শেষই করতেন না। প্রয়াত অভিনেতার প্রতি নিজের শ্রদ্ধা ও ভালোবাসার কথা বারবার ব্যক্ত করেছেন তিনি। 

কেন তাঁর একটু দেরি হয়েছিল পুরো বিতর্কে জল ঢালতে, সেটিও বুঝিয়ে বলেছেন তিনি। সঞ্জনা বলেন যে  তিনি এমন একটা কালচার চান না, যেখানে প্রতিদিন তাঁকে যাবতীয় গুজব নিয়ে মুখ খুলতে হয়। সঞ্জনা বলেন যে তাঁর তো কোনও স্পষ্টীকরণ দেওয়াই উচিত ছিল না কারণ আদপে কিছুই হয়নি। মানুষকে সত্যিটা বিশ্বাস করার আর্জি জানান তিনি। একই সঙ্গে তিনি বলেন যে জনতার দোষ নয় কারণ তাদের কেউ সত্যিটা বলছে না। ওটিটি প্ল্যাটফর্মে আগামী ২৪ তারিখ মুক্তি পাচ্ছে সুশান্ত সিং রাজপুতের শেষ ছবি দিল বেচারা। 

 

বন্ধ করুন