বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > কথা বলেও চিনতে পারেননি প্রীতিকে! টুইটারে ক্ষমা চাইলেন হৃতিকের প্রাক্তন শ্বশুর
প্রীতি জিন্টার কাছে ক্ষমা চাইলেন সঞ্জয় খান। (ছবি সৌজন্যে -হিন্দুস্তান টাইমস)
প্রীতি জিন্টার কাছে ক্ষমা চাইলেন সঞ্জয় খান। (ছবি সৌজন্যে -হিন্দুস্তান টাইমস)

কথা বলেও চিনতে পারেননি প্রীতিকে! টুইটারে ক্ষমা চাইলেন হৃতিকের প্রাক্তন শ্বশুর

  • বিমানে বসা প্রীতি জিন্টাকে দেখে এবং কথা বলার পরেও তাঁকে চিনতে পারেননি বর্ষীয়ান বলি-অভিনেতা তথা হৃতিক রোশনের প্রাক্তন শ্বশুর সঞ্জয় খান!

একটা সময় বলিউডের অন্যতম 'দামি' নায়িকা ছিলেন প্রীতি জিন্টা। দক্ষ অভিনয়ের পাশাপাশি প্রীতির 'গার্লস নেক্সট ডোর ইমেজ' এবং টোল পড়া হাসির ভক্ত ছিল তামাম হিন্দি ছবিপ্রেমী দর্শকের দল। দীর্ঘ বছর পর্দায় হাজির না হলেও প্রীতিকে চিনতে পারবে না বলিউড, এমন কথা সম্ভবত এই প্রাক্তন অভিনেত্রীর অতি বড় নিন্দুকও বলবে না। তবে সম্প্রতি একটি ঘটনার কথা জানতে পেরে নড়চড়ে বসেছে নেটপাড়া। বিমানে বসা প্রীতিকে দেখে এবং কথা বলার পরেও তাঁকে চিনতে পারেননি বর্ষীয়ান বলি-অভিনেতা তথা হৃতিক রোশনের প্রাক্তন শ্বশুর সঞ্জয় খান!

দুবাইগামী এক বিমানে ছিলেন প্রীতি। সেই একই বিমানে ছিলেন সঞ্জয় খান ও তাঁর কন্যা সিমোন অরোরা। সিমোন-ই দু'জনকে ডেকে পরস্পরের সঙ্গে আলাপ করিয়ে দেন। কিন্তু তারপরেও 'কোই মিল গয়া'-র নায়িকাকে চিনে উঠতেই পারেননি সঞ্জয়। অথচ তাঁর প্রাক্তন জামাই হৃতিকের সঙ্গে 'লক্ষ্য', 'কোই মিল গয়া'-র মতো একাধিক সুপারহিট ছবিতে অভিনয় করেছেন প্রীতি। শেষপর্যন্ত টুইটারে নিজের এই 'গুনাহ' কবুল করে প্রীতির কাছে ক্ষমা চাইলেন সঞ্জয়। টুইট করে তাঁর সাফাই, প্রীতি যেহেতু তাঁর পদবীটি উচ্চারণ করেননি তাই সেইসময় তিনি তাঁকে চিনে উঠতে পারেননি। যদিও প্রীতির বহু ছবি তিনি দেখেছেন'।

সঞ্জয় খানের সেই টুইট। (ছবি সৌজন্যে - টুইটার)
সঞ্জয় খানের সেই টুইট। (ছবি সৌজন্যে - টুইটার)

জানিয়ে রাখা ভালো সম্প্রতি যমজ সন্তানের মা-বাবা হয়েছেন প্রীতি ও জিন গুডএনাফ। জয় আর জিয়া এসেছে তাঁদের ঘরে। অর্থাৎ একটি ছেলে ও একটি মেয়ের মা হয়েছেন এই দম্পতি। যদিও সারোগেসির মাধ্যমেই সন্তানের জন্ম দেন প্রীতি।

জিনের সাথে সোশ্যাল মিডিয়ায় ছবি শেয়ার করে ৪৬ বছরের এই অভিনেত্রী লেখেন, ‘হাই! আমি আমাদের একটা দারুণ খবর আপনাদের সাথে ভাগ করে নিতে এলাম। আমি আর জিন আনন্দে পাগল হয়ে গিয়েছি, ভালোবাসায় আমাদের হৃদয় ভরে গিয়েছে কারণ আমরা ঘরে এনেছি আমাদের দুই যমজ সন্তান জয় আর জিয়াকে। নিজেদের জীবনের এই নতুন অধ্যায় নিয়ে আমরা আনন্দিত।’

বন্ধ করুন