বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > ফের একসঙ্গে সলমন-বনশালি! হাত মেলালেন নতুন প্রোজেক্ট 'বিয়ন্ড দ্য স্টার'-এ
ফের একটি প্রোজেক্টে একসঙ্গে হাজির হচ্ছেন সলমন-বনশালি।
ফের একটি প্রোজেক্টে একসঙ্গে হাজির হচ্ছেন সলমন-বনশালি।

ফের একসঙ্গে সলমন-বনশালি! হাত মেলালেন নতুন প্রোজেক্ট 'বিয়ন্ড দ্য স্টার'-এ

  • সলমন খানকে নিয়ে তৈরি হতে চলেছে একটি ডকু সিরিজ, যার নাম 'বিয়ন্ড দ্য স্টার'। এই প্রোজেক্টেই ‘ভাইজান’-এর সঙ্গে ফের একবার দেখা যাবে সঞ্জয় লীলা বনশালিকে।

বলিউডের ইতিহাসে অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ অধ্যায়ের নাম সলমন খান।ইন্ডাস্ট্রিতে তিন দশক কাটিয়েও মধ্যে পঞ্চাশে সলমনের জনপ্রিয়তার কাছে আজও ম্লান বহু তাবড় তাবড় তারকার খ্যাতি। সলমনের জনপ্রিয়তার মতো বলি-প্রেমীদের কাছে অন্যতম চর্চিত বিষয় বলিউডে তাঁর যাত্রাপথ। এককথায় 'ভাইজান' এর জার্নি যেন নাগরদোলায় চড়ার সামিল। এতটাই বিতর্ক ও আকাশচুম্বী খ্যাতি ঘিরে সেই ওঠা- নামা, চড়াই উৎরাই পথ। তবে মজার ব্যাপার আজ পর্যন্ত সলমনের সেই বলিউডের যাত্রাপথের কথা বিশদে কোথাও লেখা হয়নি, না তো তাঁর খুঁটিনাটি পেশ করা হয়েছে তারকার অনুরাগীদের কাছে। তবে এবার তা হচ্ছে। সলমনকে নিয়ে তৈরি হতে চলেছে একটি ডকু সিরিজ, যার নাম 'বিয়ন্ড দ্য স্টার'। জোর খবর, একটি আন্তর্জাতিক মানের ওটিটি প্ল্যাটফর্মে আগামী বছরে স্ট্রিমিং শুরু হবে এই ডকু-সিরিজের।

এবং এই 'বিয়ন্ড দ্য স্টার' এর দৌলতেই ফের একবার জুটি বাঁধতে চলেছেন সঞ্জয় লীলা বনশালি এবং সলমন। দেশের অন্যতম এই সেরা পরিচালকের প্রিয় তারকার নাম সলমন হলেও বিগত কয়েক বছরে তাঁদের ' লাভ-হেট' সম্পর্ক একাধিকবার উঠে এসেছে খবরের শিরোনামে। 'হম দিল দে চুকে সনম' এর প্রায় একুশ বছর পর 'ইনশাল্লাহ' ছবিতে বনশালির নির্দেশনায় ফের একবার কাজ করার কথা পাকা হয়েও সেই ছবি করা হয়ে উঠল না। ছবির শ্যুটিং শুরু হওয়ার মাত্র দিনকয়েক আগে চিত্রনাট্য নিয়ে মতান্তর হওয়ায় বনশালির ছবি ছেড়ে এককথায় বেরিয়ে আসেন 'ভাইজান'। ওদিকে বনশালীও সেই ছবি সলমন ছাড়া অন্য কোনও অভিনেতার সঙ্গে তৈরি করেননি। বদলে আলিয়া ভাটকে সঙ্গে নিয়ে শুরু করে দিয়েছিলেন 'গঙ্গুবাঈ কাথিয়াওয়াড়ি' সিনেমার শ্যুটিং।

ফের যাক, 'বিয়ন্ড দ্য স্টার' এর কথায়। এই ডকু দিড়িযে যেহেতু সলমনের ব্যক্তিগত জীবনের নানান অজানা গল্প থেকে শুরু করে তাঁর বলিউড যাত্রার বিভিন্ন বাঁকের ঘটনার কথা উঠে আসবে, তেমনই তারকার দীর্ঘ তিন দশকের বেশি বলি-কেরিয়ারে তাঁকে নিয়ে তাঁর ইন্ডাস্ট্রির বন্ধু, সহকর্মী, পরিচালকদের মনোভাবের কথাও তুলে ধরা হবে। বলাই বাহুল্য, তার জন্য সলমন যে সমস্ত অভিনেতা, অভিনেত্রী, পরিচালক, প্রযোজকদের সঙ্গে কাজ করেছেন তাঁদের মধ্যে বাচ্চাই করা নানান ব্যক্তিত্বদের কাছে এই বিষয়ে শ্যুট করার অনুমতি চাওয়া হয়েছিল ডকু-সিরিজের নির্মাতাদের কাছে। সানন্দে রাজি হয়েছেন তাঁরা। এই তালিকাতেই অন্যতম নাম হিসেবে ছিলেন ছিল বনশালির নাম। কারণ সমন-অনুরাগী মাত্রই জানেন এই বলি-অভিনেতার কেরিয়ারের মোড় ঘুরে গেছিল বনশালি নির্দেশিত ছবিতে অভিনয় করার পর। শোনা যাচ্ছে, সলমন নাকি নিজে বনশালিকে অনুরোধ করেছিলেন এই ডকু-সিরিজে সাক্ষাৎকার দেওয়ার ব্যাপারে। বন্ধুর এককথায় রাজি হয়ে গেছিলেন এই জনপ্রিয় বলি-পরিচালক।

'ইনশাল্লাহ' অভিজ্ঞতার কথা মাথায় থাকলেও যে তাঁদের বন্ধুত্বের কোথাও চিড় ধরেনি সেই বার্তাই সম্ভবত বুঝি দিলেন 'বাজিরাও মাস্তানি'-র পরিচালক। সূত্রের খবর, ইতিমধ্যে 'বিয়ন্ড দ্য স্টার' এর জন্য শ্যুটিংও সেরে ফেলেছেন বনশালি। ওই সাক্ষাৎকারে সলমনের সঙ্গে তাঁর বন্ধুত্বের নানান কিসসা যেমন শেয়ার করেছেন তিনি তেমনই অভিনেতা ও ব্যক্তি সলমনের বিভিন্ন অজানা দিকের কথাও ব্যক্ত করেছেন ক্যামেরার সামনে।

বন্ধ করুন