বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > 'আতরঙ্গি রে'তে সারার অভিনয়ে অভিভূত সইফ এবং অমৃতা, হাউহাউ করে কেঁদে ফেলেছিলেন
সইফ আলি খান এবং অমৃতা সিংয়ের প্রথম সন্তান সারা। (ছবি সৌজন্যে - হিন্দুস্তান টাইমস)

'আতরঙ্গি রে'তে সারার অভিনয়ে অভিভূত সইফ এবং অমৃতা, হাউহাউ করে কেঁদে ফেলেছিলেন

  • 'আতরঙ্গি রে' দেখে কেমন লেগেছে তাঁর বাবা সইফ আলি খান এবং মা অমৃতা সিংয়ের? জানালেন সারা।

সম্প্রতি, মুক্তি পেয়েছে ‘আতরঙ্গি রে’। ছবি প্রশংসা পেয়েছে ইতিমধ্যেই। সারা এবং ধনুশের তো বটেই, খুব কম সময়ের জন্য অক্ষয়ের দেখা মিললেও বাহবা পেয়েছে তাঁর অভিনয়। এই ছবিতে সারার অভিনয় দেখে অভিভূত তাঁর মা অমৃতা সিং এবং বাবা সইফ আলি খান। এতটাই যে তাঁরা দু'জনেই ঝরঝর করে কেঁদে ফেলেছেন, জানালেন স্বয়ং সারা। পাশাপাশি এই ছবি দেখে তাঁর ভাই ইব্রাহিমের বক্তব্যও লুকোছাপা না করেই জানিয়েছেন বলি-সুন্দরী।

মজাদার ত্রিকোণ প্রেমের কাহিনি নিয়ে হাজির হয়েছেন জনপ্রিয় পরিচালক আনন্দ এল রাই।গত ২৪শে ডিসেম্বর জনপ্রিয় ওটিটি প্ল্যাটফর্ম ডিজনি+হটস্টার-য়ে মুক্তি পেয়েছে ‘আতরাঙ্গি রে’। ছবিতে রিঙ্কু সূর্যবংশীর ভূমিকায় রয়েছেন সারা আলি খান। অন্যদিকে সারার প্রেমিক সাজাদের চরিত্রে অক্ষয় কুমার এবং স্বামী বিষ্ণুর ভূমিকায় ধনুশ। এই ছবির সুবাদেই প্রথমবার অক্ষয়ের সঙ্গে কাজ করলেন সারা।‘আতরঙ্গি রে’-তে ২৬ বছর বয়সী সারার থেকে প্রায় ১২ বছরের বড় দক্ষিণী অভিনেতা ধনুশ। অন্যদিকে, সারার থেকে ২৮ বছরেরও বেশি বয়সের ফারাক রয়েছে বলি-তারকা অক্ষয় কুমারের!

ইন্ডিয়া টুডেকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে এই প্রসঙ্গে সারা জানিয়েছেন 'আতরঙ্গি রে' দেখে তাঁর বাবা ও মা দু'জনেই বেশ খুশি হয়েছেন। সারার কথায়, 'আমার মা বরাবরই আবেগপ্রবণ। তাই এই ছবি দেখে তিনি যে আবেগ ধরে রাখতে পারবেন না সেটা জানতাম। আর তাই হয়েছে। অন্যদিকে, বাবা এমনিতে ভীষণ শক্তপোক্ত মনের একজন মানুষ। আর তার উপর ভীষণ রুচিবান। সেই তিনিও এই ছবিতে আমার অভিনয় দেখে কেঁদে ফেলেছেন।'

আর ছোট ভাই ইব্রাহিম? সে জবাবও দিয়েছেন সারা,' ইব্রাহিমের সঙ্গে আমার খুনসুটি লেগেই থাকে। হাসি-তামাশা চলতেই থাকে আমাদের দু ভাই'বোনের মধ্যে। সেই ইব্রাহিমও এই ছবিতে আমার পারফর্মেন্স দেখে জানিয়েছে সে আমার জন্য ভীষণ গর্বিত .একথা আমাকে বলার পাশাপাশি অন্যদেরও জানিয়েছে সমান তালে।ব্যাপারটা ভীষণ স্পেশ্যাল আমার কাছে, এটুকু বলতে পারি।'

বন্ধ করুন