বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > অপু-হারা বিশ্বে অতিক্রান্ত ১০ দিন, শ্রাদ্ধানুষ্ঠান সম্পন্ন সৌমিত্রবাবুর
সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায় (ছবি-টুইটার)
সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায় (ছবি-টুইটার)

অপু-হারা বিশ্বে অতিক্রান্ত ১০ দিন, শ্রাদ্ধানুষ্ঠান সম্পন্ন সৌমিত্রবাবুর

  • মঙ্গলবার গৌড়ীয় মঠে শ্রাদ্ধানুষ্ঠান হয়। 

কলকাতা : করোনাভাইরাস আবহের মধ্যে সমস্ত নিয়মবিধি মেনে সম্পন্ন হল সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়ের শ্রাদ্ধানুষ্ঠান। গত ১৫ নভেম্বর প্রয়াত হন সৌমিত্রবাবু। মঙ্গলবার গৌড়ীয় মঠে শ্রাদ্ধানুষ্ঠান হয়। যাবতীয় করোনা-বিধি মেনে পারিবারিকভাবে তা করা হয়। প্রয়াত অভিনেতার স্ত্রী দীপা চট্টোপাধ্যায়,  পুত্র সৌগত চট্টোপাধ্যায় এবং কন্যা পৌলমী বসুর উপস্থিতিতে হয় অভিনেতার শ্রাদ্ধানুষ্ঠান। 

মঙ্গলবার বিকেল ৪ টা ৪৫ মিনিট নাগাদ প্রয়াত অভিনেতার পরিবারের সঙ্গে দেখা করতে যান বিমান বসু, সূর্যকান্ত মিশ্র, মহম্মদ সেলিম-সহ বাম নেতারা। কিছুক্ষণ কথা বলেন তাঁরা। অভিনেতা তথা ‘অপু’-র সৃষ্টিকে সংরক্ষণ করে রাখার প্রস্তাব দেন তাঁরা।

প্রসঙ্গত, সোমবার প্রয়াত অভিনেতার ঘাটকাজ সম্পন্ন করেছিলেন পুত্র সৌগত চট্টোপাধ্যায়। অভিনেতার মৃত্যুতে পরিবারে নেমে এসেছে শোকের ছায়া। কন্যা পৌলমী বসুর কথায়, ‘শুধু বাবাকে নয়, তিনি হারিয়েছেন নিজের সহযোদ্ধাকে, কমরেডকে।’ 

তবে সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়ের মৃত্যুর পর থেকেই সোশ্যাল মিডিয়ার একটা অংশের নিশানায় প্রয়াত অভিনেতার পরিবার। ফেসবুকে একের পর এক কুরুচিকর এবং বিভ্রান্তিমূলক পোস্ট দেখে ক্ষুব্ধ পৌলমী উগরে দিয়েছিলেন ক্ষোভ। কড়া ব্যবস্থাও নিয়েছিলেন তিনি। লালবাজারে অভিযোগ দাযের করেছিলেন। তারপরও সোশ্যাল মিডিয়ায় সেই কুরুচিকর পোস্ট চলতে থাকে। ক্ষুব্ধ, বীতশ্রদ্ধ পৌলমী নিজের ফেসবুক অ্যাকাউন্টটি ডিলিট অথবা ডিঅ্যাক্টিভেট করে দেন।

বন্ধ করুন