বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > হেরে গিয়েও কমল না ভালোবাসা, ফের বাঁকুড়ায় সায়ন্তিকা! চালু হল ‘কোভিড কেয়ার ইউনিট’
সায়ন্তিকা বন্দ্যোপাধ্যায় (ছবি-ফেসবুক)
সায়ন্তিকা বন্দ্যোপাধ্যায় (ছবি-ফেসবুক)

হেরে গিয়েও কমল না ভালোবাসা, ফের বাঁকুড়ায় সায়ন্তিকা! চালু হল ‘কোভিড কেয়ার ইউনিট’

  • সদ্য তৃণমূল কংগ্রেসের মাধ্যমে রাজনীতির ময়দানে পা রেখেছেন সায়ন্তিকা বন্দ্যোপাধ্যায়। কিন্তু যেভাবে দক্ষতার সঙ্গে পালন করে চলেছেন একের পর এক দায়িত্ব, তা লজ্জা দেবে অনেক পোড়-খাওয়া রাজনীতিবিদকেও।

‘মাত্র ৭৩৫ ভোটে হেরেছি আমি। তা হেরে গিয়েছি বলে কী কাজ করব না? তবে হ্যাঁ, জিতে গিয়ে পদটা পেলে কাজ করতে সুবিধা হত’, কিছুদিন আগে এমনই মন্তব্য করেছিলেন অভিনেত্রী সায়ন্তিকা বন্দ্যোপাধ্যায়। বিজেপি প্রার্থী নীলাদ্রিশেখর দানার কাছে হেরে গিয়েছেন তিনি। তবুও বারবার ‘পাশে আছি বাঁকুড়া’ বার্তা দিয়ে চলেছেন। করোনা থেকে ইয়াস, ভোলেননি নিজের কেন্দ্রের মানুষদের। 

এর আগে ‘দুয়ারে অক্সিজেন’, ‘দুয়ারে খাবার’ ও করোনা আক্রান্তদের জন্য সেফ হোমের ব্যবস্থা করেছিলেন। আর বুধবার বাঁকুড়ার মানুষদের জন্য নিয়ে এলেন ‘কোভিড কেয়ার ইউনিট’ থেকে শুরু করে, করোনা মহামারী মোকাবিলার জন্য একাধিক প্রকল্প। তাঁরসঙ্গে উপস্থিত ছিলেন পার্থ সারথি মুখোপাধ্যায়, কোভিড কেয়ার নেটওয়ার্কের সত্যরূপ সিদ্ধান্ত এবং বাঁকুড়া পৌরসভার প্রশাসক অলকা সেন মজুমদার। ২০টি শয্যার কোভিড কেয়ার সেন্টারে থাকছে অক্সিজেন-সহ থাকছে চিকিৎসক, প্রশিক্ষিত স্বাস্থ্যকর্মীরা। কোনও করোনা রোগীর অক্সিজেন স্যাচুরেশন কমতে শুরু করলে প্রাথমিক চিকিৎসা এখানেই করা যাবে। পরে তাঁকে প্রয়োজন বুঝলে অন্য কোথাও স্থানান্তরিত করা হবে। একইসঙ্গে এদিন ‘দুয়ারে ডাক্তার’ এবং ‘দুয়ারে ওষুধ’ প্রকল্পও চালু করলেন তৃণমূলের এই তারকা নেত্রী। 

যেভাবে তিনি বাঁকুড়ার মানুষের পাশে থেকে কাজ করছেন, তাতে এলাকাবাসী খুব খুশি বলেই জানিয়েছেন সায়ন্তিকা। কিছুটা আক্ষেপ, আর অনেকটা আত্মবিশ্বাসের সুরে কিছুদিন আগে জানিয়েছিলেন, ‘এখন নির্বাচন হলে হয়তো আমাকে জেতানোর জন্য মানুষের কাছে অনুরোধটুকুও আর করতে হত না, এমনই মানুষ ভোট দিত’।

বন্ধ করুন