বাড়ি > বায়োস্কোপ > শুধুমাত্র এই কারণেই অভিনয় ছেড়ে দিতে পারেন শাহরুখ খান
শাহরুখ খান ও গৌরী খান 
শাহরুখ খান ও গৌরী খান 

শুধুমাত্র এই কারণেই অভিনয় ছেড়ে দিতে পারেন শাহরুখ খান

  • শাহরুখ খানের 'চমকত্কার' ছবির পরিচালক এফ সি মেহরা অভিনেতাকে অবিলম্বে বিয়ে স্থগিত রাখবার কথা জানিয়েছিলেন। এসআরকে পরিষ্কার জানিয়ে দেন,'আমি ছবি ছাড়তে পারব,গৌরীকে নয়'।

শাহরুখ খান-তিনি বলিউডের বাদশা। কয়েক কোটি ভক্তের কিং খান তিনি। অভিনয়ের প্রতি শাহরুখের ভালোবাসা আর পাগলামিটাও কারুরই অজানা নয়, তবে এই সুপারস্টারের প্রথম ভালোবাসা কিন্তু অভিনয় নয়। এবং নিজের প্রথম ভালোবাসার জন্যই একমাত্র অভিনয় কেরিরারে ইতি টানতে পারেন শাহরুখ । তাঁর প্রথম ভালোবাসা অবশ্যই তাঁর জীবনসঙ্গিনী গৌরী খান। 

 অভিনেতার বায়োগ্রাফি, কিং অফ বলিউড: শাহরুখ খান অ্যান্ড দ্য সিডাকটিভ ওয়ার্ল্ড অফ সিনেমায় অনুপমা চোপড়ার লিখেছেন শাহরুখ-গৌরীর প্রেম কাহিনি সম্পর্কে। যে প্রেম কাহিনি বলিউডের যে কোনও সুপারহিট রোম্যান্টিক ছবির চিত্রনাট্যকে গুনে গুনে দশ গোল দেবে। সুইমিং পুলের ধারে কোলা হাতে শাহরুখ-গৌরীর প্রথম ডেট থেকে তাঁদের ব্রেক-আপ সবই লেখা রয়েছে অক্ষরে অক্ষরে। 

১৯৮৪ সালে দিল্লিতে এক পার্টিতে প্রথম পরিচয় শাহরুখ-গৌরীর। প্রথমে বন্ধুত্ব তারপর প্রেম। যদিও শাহরুখের কথায়, সেটা শুধু ‘অ্যাফেয়ার’ ছিল। শাহরুখের মাত্রাতিরিক্ত পসেসিভ আচরণের জন্য সম্পর্ক ভেঙে দিয়েছিলেন গৌরী। তবে পর্দার এই রোম্যান্স কিং নিজের প্রেমকে ফিরে পেতেও কম পরিশ্রম করেননি। বন্ধুদের সঙ্গে মুম্বই ঘুরতে এসেছিলেন গৌরী। প্রেমিকার রাগ ভাঙাতে দিল্লি থেকে মু্ম্বই পারি দেন শাহরুখ। মায়ানগরীর প্রত্যেকটি বিচে  পাগলের মতো গৌরীকে খুঁজে বেরিয়েছিলেন তিনি। অবশেষে মিলন হয়েছিল এই প্রেমিক যুগলের। 

শাহরুখ-গৌরীর বিয়ের ছবি 
শাহরুখ-গৌরীর বিয়ের ছবি 

১৯৯১ সালের অক্টোবর মাসে বিয়ের পর্ব সারেন শাহরুখ-গৌরী,তখনও মুক্তি পায়নি অভিনেতার ডেব্যিউ ছবি দিওয়ানা। ধর্ম আলাদা, শাহরুখ তখনও মুম্বইয়ে নিজের পায়ের তলার মাটি শক্ত করতে পারেনি।স্বাভাবিকভাবেই গৌরীর পরিবারকে বোঝানো সহজ ছিল না। তবে মেয়ের প্রেমের সামনে নতি স্বীকার করে নিয়েছিলেন বাবা-মা।  শাহরুখের চমকত্কার পরিচালক এফ সি মেহরা শাহরুখকে তাঁর বিয়ে স্থগিত রাখবার কথা জানিয়েছিলেন। ছবির হিরো বিবাহিত হবে এমনটা চাননি তিনি। মহিলা অনুরাগীদের ক্যাশ-ইন করার প্রয়াস ছিল পরিচালকের। তবে শাহরুখ পরিষ্কার জানিয়ে দেন, 'আমি ছবি ছাড়তে পারব,গৌরীকে নয়'।

গার্লফ্রেন্ড গৌরীর সঙ্গে শাহরুখ (ছবি-সংগৃহীত)
গার্লফ্রেন্ড গৌরীর সঙ্গে শাহরুখ (ছবি-সংগৃহীত)

১৯৯২ সালে স্টারডাস্ট ম্যাগজিনের এক আর্টিকেলে শাহরুখ জানান, 'আমার কাছে আমার স্ত্রী সবার আগে..যদি কোনদিনও কেউ আমাকে গৌরী এবং নিজের কেরিয়ারে মধ্যে একটা বেছে নিতে বলে আমি এক মিনিটও না ভেবে গৌরীকেই বেছে নেব…হয়ত আমি পাগল হয়ে যাব কিন্তু শুধু ওর জন্যই আমি এটা করতে পারি। আমার কাছে গৌরীই সব'।

আজ থেকে প্রায় বছর ২২ আদে 'রঁদেভু উইথ সিমি গারেওয়াল' টক শোতে গৌরী জানিয়েছিলেন শাহরুখের সঙ্গে তাঁর প্রেম সম্পর্কের কাহিনিটা।গৌরীর কথায়, 'প্রথম ছিল অধিকারবোধ তারপর সেটাই সংক্ষণশীল মনোভাবে। মাত্রাতিরিক্ত অধিকারবোধ দেখাত শাহরুখ, মানে একটা অসুস্থ ছিল। ভাবতে পারবেন না আমাকে সাদা শার্ট পরতে দিত না, ভাবত ওটা ট্রান্সপারেন্ট। ওর মনের মধ্যেই এই সমস্যাটা ছিল'।

স্ত্রীর এই অভিযোগ মেনে নেন অনুতপ্ত শাহরুখ। তবে কেন ওইরকম আচরণ করতেন বাদশা? শাহরুখের কথায়, ‘আমাদের সম্পর্কের কথাটা কেউ জানত না প্রথমদিকে,তাই সবসময়ই মনের মধ্যে একটা অধিকারবোধের অভাব কাজ করত। সেটা ছেলে-মেয়ে নির্বিশেষে হওয়াটাই স্বাভাবিক। তাই হয়ত আমি ওকে কন্ট্রোল করার চেষ্টা করতাম। যদিও সেটা খুব নিম্নরুচির পরিচয়’।

আসলে ভবিষ্যত অনিশ্চিত জেনেও শাহরুখের হাতটা শক্ত করে ধরেছিলেন গৌরী। আর বিয়ের ২৮ বছর পরেও একইভাবে একে অপরের হাতটা ধরে রেখেছেন শাহরুখ খান ও গৌরী খান। আরিয়ান,সুহানা, আব্রামকে নিয়ে সুখের সংসার শাহরুখ-গৌরীর। 

বন্ধ করুন