বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > নেমপ্লেট বদলে গেল ‘মন্নত’-এর! বান্দ্রার বাংলোর নতুন নাম রাখলেন নাকি শাহরুখ খান?
মন্নতের নেমপ্লেট পেল মেকওভার। 

নেমপ্লেট বদলে গেল ‘মন্নত’-এর! বান্দ্রার বাংলোর নতুন নাম রাখলেন নাকি শাহরুখ খান?

  • সোশ্যাল মিডিয়ায় এখন ট্রেন্ড করছে ‘মন্নত’। জানুন ঠিক কী হয়েছে!

মুম্বই দর্শনে গেলে দেশের বেশিরভাগ মানুষ এখনও শাহরুখ খানের প্রসাদসম বাংলো ‘মন্নত’-এর বাইরে ছবি তোলেন। এখনও যে কোনও ছবিতে এই বাড়ির ঝাঁ চকচকে অন্দরমহল চোখ টানে নেট-নাগরিকদের। এমনকী, তারকারাও মজা করে ‘মন্নত’ শাহরুখের থেকে নিয়ে নেওয়ার কথা বলেন!

সেই বাংলোর নেমপ্লেট বদলের খবরে চাঞ্চল্য চারিদিকে। অনেকের মনেই প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছে, কেসটা কী? শাহরুখ খানের ফ্যানক্লাবের পক্ষ থেকে একটি ছবি শেয়ার করা হয়েছে। সেখানেই নেমপ্লেট বদলের ব্যাপারটা সামনে এসেছে।

তবে, চিন্তা করার কারণ নেই। বাংলোর নাম মোটেও বদলাননি শাহরুখ। বরং আরও স্টাইলিশ লাগছে নতুন নেমপ্লেটে। দেখে নিন ‘মন্নত’-এর নেমপ্লেট বদলে কতরকম করা হয়েছিল এর আগেও।

মন্নতের নেমপ্লেটের বদল। 
মন্নতের নেমপ্লেটের বদল। 

এই নেমপ্লেট বদল হওয়ার পর থেকেই সোশ্যাল মিডিয়ায় ট্রেন্ড করছে মন্নত। এই তো দিন কয়েক আগেই রটে গিয়েছিল, পাঠান সিনেমা ভালো না চললে কিং খানকে তাঁর বাসভবন মান্নাত বিক্রি করে দিতে হবে। এমনকী, কিছু পোস্টে মন্নত বাঁচাতে অর্থসাহায্য চাওয়াও শুরু হয়েছিল। 

মন্নতের বাজার মূল্য এখন ২০০ কোটির বেশি। 'ইয়েস বস' এর শ্যুটিং করছেন শাহরুখ। সেই শ্যুটিং চলাকালীন প্রথমবার 'মন্নত' দর্শন হয় তাঁর। আর প্রথম দেখাতেই প্রেম। সেইদিনই মনে মনে তিনি ঠিক করে ফেলেন যে একদিন এই বাংলোটি তিনি নিজের জন্য কিনবেন। সেইসময় ওই বাংলোর মালিক ছিলেন একজন গুজরাতি। নাম ছিল নারিমান দুবাস। আর 'মন্নত' এর পরিচয় ছিল 'ভিলা ভিয়েনা' হিসেবে।

বাংলোটি কেনার পরের ৪ বছর সম্ভবত আইনি জটিলতার কারণে নাম পাল্টাতে পারেননি শাহরুখ। শেষপর্যন্ত ২০০৫ সালে কাগজপত্রে সইসাবুদ করে পাকাপাকিভাবে 'ভিলা ভিয়েনা'-র নাম বদলে হয় 'মন্নত'।

বন্ধ করুন